1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

সমাজ সংস্কৃতি

সোনিয়া গান্ধীর কল্পিত জীবনী নিয়ে বিতর্কের ঝড়

স্প্যানিশ লেখক জাভিয়ার মোরোর লেখা কংগ্রেস সভানেত্রী সোনিয়া গান্ধীর কল্পিত জীবন কাহিনী নিয়ে দলটির রাজনৈতিক অঙ্গনে রীতিমত ঝড়৷ বিতর্ক ক্রমশই আইনি লড়াই-এ মোড় নিতে চলেছে৷ আর লেখকও পাল্টা আইনি ব্যবস্থা নেবার হুমকি দিয়েছেন৷

default

কংগ্রেস সভানেত্রী সোনিয়া গান্ধী

যে বই নিয়ে এই বিতর্ক, তার নাম ‘লাল শাড়ি'৷ সোনিয়া গান্ধী বিয়ের দিনের শাড়ির রঙ৷ লেখক স্পেনের জাভিয়ার মোরো৷ লেখকের মতে, বইটি সোনিয়া গান্ধীর এক কল্পিত জীবনী৷ ২০০৮ সালে বইটি প্রকাশিত হবার পর স্পেন, ডেনমার্ক ও ইটালিতে তিন লাখ কপি বিক্রি হয়৷ এই বিতর্ক সত্বেও বইটির ইংরাজি সংস্করণ তিন চার মাসের মধ্যেই ভারতে প্রকাশ করতে দৃঢ়প্রতিজ্ঞ রোলি বুকস প্রকাশনা সংস্থা৷

কংগ্রেস পার্টি এজন্য ছেড়ে কথা বলবেনা লেখক ও প্রকাশককে৷ কংগ্রেসের পক্ষে অভিষেক মনু সিংভি উকিলের চিঠি দিয়ে সোনিয়া গান্ধীর বিরুদ্ধে মিথ্যা অপবাদ দেবার জন্য মানহানির মামলা করবেন বলে জানিয়ে দিয়েছেন৷ চিঠিতে লেখকের উক্তি খণ্ডন করে বলা হয়েছে, জীবনী কখনও কাল্পনিক হয় না৷ অপর দিকে, লেখকের বক্তব্য, মূলতঃ কাল্পনিক হলেও তথ্যাদি সংগ্রহ করা হয় গবেষণা করেই৷ তাই তিনিও পাল্টা আইনি নোটিশ দেবেন বলে জানা গেছে৷

Sonia Gandhi

সোনিয়া গান্ধীর কল্পিত জীবন নিয়ে লেখা বিতর্কিত ঐ বইটির নাম ‘লাল শাড়ি’

কংগ্রেস মুখপাত্র ও সোনিয়া গান্ধীর আইনজীবি মনু সিংভি বই'টির থেকে একটি অংশ বিশেষ উল্লেখ করেন৷ যেখানে বলা হয়েছে, স্বামী রাজীব গান্ধীর হত্যার পর তাঁর অন্তেষ্টিক্রিয়ায় সোনিয়া গান্ধীকে থাকার অনুমতি দেননি হিন্দু পুরোহিত৷ এটা একেবারেই বানানো৷ দ্বিতীয় উদাহরণ, রাজীব গান্ধীর হত্যার পর সোনিয়া গান্ধী ছেলেমেয়েকে ফেলে ভারত ছেড়ে পালিয়ে যেতে চেয়েছিলেন তাঁর স্বদেশ ইটালিতে৷ এটাও জলজ্যান্ত মিথ্যা ও ভিত্তিহীন৷ লেখকের হাতে এর কোন প্রমাণ নেই৷ বিনা অনুমোদনে এই ধরনের মনগড়া কথা লেখা বে-আইনি৷ উল্লেখ্য, প্রকাশ ঝা পরিচালিত হিন্দী ছবি ‘রাজনীতি'তে সোনিয়া গান্ধীর আদলে নায়িকার চরিত্রটি অত্যন্ত নেতিবাচকভাবে তুলে ধরা হয়েছে৷ তাতেও উষ্মা প্রকাশ করেছে কংগ্রেস৷ আর বিজেপি মুখপাত্র রবিশঙ্কর প্রসাদ এ বিষয়ে দলের প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করে মত প্রকাশের স্বাধীনতাকে মর্যাদা দেবার আহ্বান জানিয়েছেন৷

প্রতিবেদন : অনিল চট্টোপাধ্যায়, নতুনদিল্লি

সম্পাদনা : দেবারতি গুহ

সংশ্লিষ্ট বিষয়