1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

সমাজ সংস্কৃতি

সেলেব্রিটিদের ওপর ‘উদ্দেশ্যমূলক আক্রমণ' চলছে

তারকাদের নগ্ন ছবি প্রকাশের ঘটনাটি পুরোপুরি ‘উদ্দেশ্যমূলক আক্রমণ'৷ অস্কারজয়ী অভিনেত্রী জেনিফার লরেন্সসহ বিনোদন জগতের বেশ কয়েকজন তারকার নগ্ন ছবি প্রকাশের বিষয়টি যাচাই করে এ কথাই বলেছে অ্যাপল৷

অস্কারজয়ী অভিনেত্রী জেনিফার লরেন্স, মডেল কেট আপটন, সংগীত শিল্পী অ্যাভ্রিল লাভিন, যুক্তরাষ্টের ফুটবল তারকা হোপ সোলোর মতো সেলেব্রিটির নগ্ন ছবি প্রকাশের বিষয়টি নিয়ে বিনোদন জগত এবং সংবাদমাধ্যমে বেশ তোলপার চলছে৷ কাজটি যে হ্যাকারদের, তা অনুমান করা সহজ৷ তবে কম্পিউটার, কম্পিউটার যন্ত্রাংশ ও সফটওয়্যার নির্মাণকারী প্রতিষ্ঠান ‘অ্যাপল ইনকর্পোরেট' শুধু অনুমান করে কথাটা বলেনি৷ যুক্তরাষ্ট্রের এই প্রতিষ্ঠান এক বিবৃতিতে জানিয়েছে যে, বিষয়টি সম্পর্কে জানার সঙ্গে সঙ্গে প্রকৌশলীদের কেমন করে নন্দিত তারকাদের অস্বস্তিতে ফেলার মতো ঘটনাটি ঘটলো – তা খতিয়ে দেখার দায়িত্ব দেয়া হয়েছিল৷

অ্যাপল-এর বিবৃতি অনুযায়ী, প্রায় চল্লিশ ঘণ্টা অক্লান্ত পরিশ্রম করে তাঁরা নিশ্চিত হয়েছেন যে, তারকাদের ই-মেল, ফেসবুক বা অন্য কোনো অ্যাকাউন্ট ‘হ্যাক' করেই স্বাভাবিক অবস্থায় অপ্রকাশ্য ছবিগুলো ইন্টারনেটে প্রকাশ করা হয়েছে৷

যার অর্থ, প্রতিষ্ঠানটির কোনো দুর্বলতার কারণে তা হয়নি৷

অ্যাপল জানিয়েছে, তাদের সিস্টেম, অর্থাৎ আইক্লাউড বা ‘ফাইন্ড মাই আইফোন'-এর সিস্টেমে কোনো ত্রুটি ছিল না৷ বরং হ্যাকাররাই সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিদের পাসওয়ার্ড বা অন্য কোনো ব্যক্তিগত তথ্য খুঁজে বের করে নগ্ন ছবিগুলো প্রকাশ করেছে৷

অ্যাপল মনে করে, সেলেব্রিটিদের নগ্ন ছবি প্রকাশের বিষয়টি বিচ্ছিন্ন কোনো ঘটনা নয়৷ বিবৃতিতে বলা হয়েছে, ‘‘চল্লিশ ঘণ্টারও বেশি সময় ধরে তদন্ত করার পর এ বিষয়ে আমরা নিশ্চিত যে এটি (হ্যাকারদের) উদ্দেশ্যমূলক এক আক্রমণ৷''

এসিবি/ডিজি (এএফপি, এপি)

নির্বাচিত প্রতিবেদন