1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিজ্ঞান পরিবেশ

সেবিট মেলার মূল বিষয় আইটি নিরাপত্তা

বিশ্বের সবচেয়ে বড় তথ্য প্রযুক্তি মেলা সেবিট শেষ হচ্ছে শুক্রবার৷ এডওয়ার্ড স্নোডেনের দৌলতে এবার আইটি খাতে নিরাপত্তার বিষয়টি বিশেষ গুরুত্ব পেয়েছে৷ জার্মান সংস্থাগুলি বেশ কিছু নির্ভরযোগ্য সমাধানসূত্র তুলে ধরেছে৷

ন্যাটোর উপ মহাসচিব ‘আস্থা ও নিরাপত্তা' নিয়ে ভাষণ দিয়েছেন৷ আইটি নিরাপত্তার ‘গডফাদার' হিসেবে পরিচিত ইউজিন কাস্পারস্কি নিজে মেলায় এসেছেন৷ এনএসএ কেলেঙ্কারি তথ্য প্রযুক্তি জগতকে কতটা নাড়া দিয়েছে, এর ফলে তা স্পষ্ট হয়ে যায়৷ ইউরোপীয় কমিশনের ভাইস প্রেসিডেন্ট নেলি ক্রুস বলেন, ইউরোপের আইটি কোম্পানিগুলির এবার নড়েচড়ে বসার সময় হয়েছে৷ এবারের সেবিট মেলায় সেই সচেতনতা অবশ্য দেখাও গেছে৷ চারিদিকে শুধু ‘আস্থা' ও ‘নিরাপত্তা'-র কথা শোনা গেছে৷

Cebit 2014 Frauenpower

আইটি সিকিউউরিটির প্রশ্নে জার্মানি তার সুনাম তুলে ধরতে চাইছে

আইটি সিকিউউরিটির প্রশ্নে জার্মানি তার সুনাম তুলে ধরতে চাইছে৷ ইন্টারনেটের ক্ষেত্রে বিদেশের উপর নির্ভরতা কাটিয়ে তুলে ‘মেড ইন জার্মানি সলিউশন' আপাতত মূল লক্ষ্য৷ জার্মানির ডয়চে টেলিকম গ্রাহকদের তথ্য সংরক্ষণের উপর জোর দিচ্ছে৷ বিদেশি প্রোভাইডারদের উপর আস্থা কমে চলায় সেই শূন্যস্থান পূরণ করতে এগিয়ে আসছে জার্মানির অনেক ইন্টারনেট কোম্পানি৷ অন্যদিকে বাণিজ্যিক প্রতিষ্ঠানগুলিকে নিজেদের তথ্য সংরক্ষণের ক্ষেত্রে আরও সচেতন করে তুলতে চায় টেলিকম৷ সেই লক্ষ্যে তাদের জন্য সমাধানসূত্র তৈরির কাজ করছে এই সংস্থা৷

নিরাপত্তার ক্ষেত্রে একটি বড় প্রশ্ন দেখা যাচ্ছে ‘ক্লাউড কম্পিউটিং'-কে ঘিরে৷ ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠান যে ক্লাউড পরিষেবার উপর ভরসা করে মূল্যবান তথ্য সেখানে জমা রাখছে,

তা অন্য কারো নাগালের মধ্যে আছে কিনা, সেটা একটা বড় প্রশ্ন৷ এক্ষেত্রে জার্মানির কিছু সংস্থা অত্যন্ত নির্ভরযোগ্য পরিষেবা দিচ্ছে৷ এনএসএ কেলেঙ্কারির জের ধরে মার্কিন সংস্থাগুলির প্রতি আস্থা বিশাল ধাক্কা খেয়েছে৷ তাই স্থানীয় পর্যায়ে ক্লাউড কম্পিউটিং-এর ভবিষ্যৎ বেশ উজ্জ্বল হয়ে উঠছে৷ নিজস্ব হার্ডওয়্যার ও সফটওয়্যার নিয়ে জার্মানির মতো দেশ অন্তত ইউরোপের মধ্যে প্রকৃত বিকল্প হয়ে উঠতে পারে – এমন সম্ভাবনা উজ্জ্বল হয়ে উঠছে৷

এমন সচেতনতা সত্ত্বেও বাস্তব সত্য হলো, এখনো বাজারের একটা বিশাল অংশ মার্কিন সংস্থাগুলির হাতে রয়েছে৷ রাতারাতি পরিস্থিতির পরিবর্তনের কোনো সম্ভাবনাও দেখা যাচ্ছে না৷ তবে আপাতত ব্যক্তি পর্যায়ে সম্ভব না হলেও বাণিজ্যিক প্রতিষ্ঠানগুলি গুপ্তচরবৃত্তির মোকাবিলা করতে এমন নিরাপদ পরিষেবার দিকে ঝুঁকতে শুরু করেছে৷

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়