1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

সুচির মুক্তির আবেদন খারিজ, তবুও আশা মুক্তি পাবেন সুচি

মিয়ানমারের সাম্প্রতিক নির্বাচনের প্রহসনের মতোই যেন বিষয়টি ঘটলো৷ এই বুধবার সেদেশের আদালত গণতন্ত্রের মানসকন্যা অং সান সুচির গৃহবন্দীত্বের বিপক্ষে জানানো আবেদনটি খারিজ করে দিয়েছে৷

default

অবশেষে মুক্তির আশা

জানা গেছে, তাঁর আবেদনটি প্রত্যাখাত হলেও আশা করা হচ্ছে অচিরাতই তাঁর মুক্তি ঘটবে৷

নোবেল শান্তি জয়ী সুচি'র আইনজীবী অবশ্য বিশ্বাস করেন যে, আদালতের সিদ্ধান্ত যাই হোক না কেন মিয়ানমারের এই আপোশহীন নেত্রী আগামী শনিবার নাগাদ মুক্তি পেতে যাচ্ছেন৷ কিন্তু তারা আশা করেছিলেন, আদালত সুচিকে নির্দোষ হিসেবে ঘোষণা করে রায় দেবে৷

জানা গেছে, যদি সুচি'র মুক্তি ঘটে সেক্ষেত্রে ৬৫ বছরের এই আপোশহীন রাজনীতিবিদ যার জীবনের দুই যুগেরও বেশি সময় কারা-অন্তরীণে বন্দী অবস্থায় কেটেছে৷ মুক্ত হয়েই মিয়ানমারের রাজনীতিতে সক্রিয় হবেন তিনি৷

Dossierbild 2 Myanmar Wahlen

নির্বাচনে অংশ না নিয়েও তাঁর উপস্থিতি ছিল সর্বত্র

তাঁর আবেদনটি যে আদালত প্রত্যাখ্যান করেছে সে বিষয়টি নিশ্চিৎ করে সুচির আইনজীবী কাই উইন বলেছেন, বিষয়টি আরো অনেকদূর গড়াবে৷ তিনি বলেন, ‘‘আমরা এখনো পর্যন্ত জানি না আবেদনটি কেন প্রত্যাখাত হয়েছে, কেবল এটুকুই জানতে পেরেছি যে, এটি আদালতে প্রত্যাখাত হয়েছে৷''

উল্লেখ্য, গত বছরের আগস্ট মাসে অং সান সুচির গৃহবন্দীত্বের মেয়াদ আঠারো মাস বাড়ানো হয়েছিল৷ এই মেয়াদ বাড়ার পেছনের যুক্তিটি ছিল বড় আজব ধরণের৷ তাঁর গৃহবন্দীত্বের সময়টিতে সুচি যে লেকঘেরা বাড়িতে অন্তরীণ ছিলেন, এক মার্কিনি নাকি সেই লেক সাঁতরে তাঁর বাড়িতে পৌঁছানোর চেষ্টা করেছিল৷

যদিও আজ বৃহস্পতিবার মিয়ানমারের এক মুখপাত্র জানিয়েছেন, সুচির মুক্তি সংক্রান্ত দাপ্তরিক কাজকর্ম এগিয়ে চলছে৷ তবুও অনেকেই ধারণা করছেন, মিয়ানমারের ক্ষমতাসীন সামরিক শক্তি এখনো হয়তো সুচির মুক্তির বিষয়টিকে প্রলম্বিত করতে পারে৷ ২০০৯ এ যেভাবে সুচির গৃহবন্দীত্বের মেয়াদটি ছলছুতোয় সামরিক সরকার বাড়িয়ে নিয়েছিল৷ এবারেও অন্তত এই প্রহসনের নির্বাচনে কায়ক্লেশে গদি সামলে হয়তো তারা চাইবেন সুচি আরো কিছুদিন না হয় কারা অন্তরালেই থাকুন না৷ অন্তত সে আশংকাটিকে একেবারে উড়িয়েও দেওয়া যাচ্ছে না৷

প্রতিবেদন: হুমায়ূন রেজা
সম্পাদনা: সঞ্জীব বর্মন

সংশ্লিষ্ট বিষয়