1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

সমাজ সংস্কৃতি

সুচিত্রা মিত্রের প্রয়াণে শোকের আবহ কলকাতার সাংস্কৃতিক মহলে

দীর্ঘদিন ধরে অসুস্থ ছিলেন সুচিত্রা মিত্র৷ তবু তিনি আছেন, এটাই বোধহয় সব থেকে বড় সান্ত্বনা ছিল তাঁর অসংখ্য গুণগ্রাহীর, যাঁদের অনেকেই তাঁর হাত ধরে একদিন প্রবেশ করেছিলেন রবীন্দ্রনাথের গানের ভুবনে৷

tagore, রবীন্দ্রনাথ, সংস্কৃতি, বিনোদন, বাংলাদেশ, ভারত, কলকাতা, সুচিত্রা, মিত্র, সংগীত, Rabindra, India, Bangladesh, Song, Culture, Entertainment, Tagore

তাঁর অসংখ্য গুণগ্রাহীর অনেকেই সুচিত্রার হাত ধরে একদিন প্রবেশ করেছিলেন রবীন্দ্রনাথের গানের ভুবনে

এঁরা সবাই এসেছিলেন সোমবার সন্ধ্যায়, গড়িয়াহাট রোডে সুচিত্রা মিত্রের বাড়িতে৷ ছাত্রছাত্রীরা গান গেয়ে বাড়ি থেকে রওনা করে দিলেন তাঁদের প্রিয় মানুষটিকে৷ সোমবার রাতে সুচিত্রা মিত্রের মরদেহ সংরক্ষিত থাকবে পিস হাভেনে৷ মঙ্গলবার সকালে দেহ প্রথমে যাবে জোড়াসাঁকো ঠাকুরবাড়িতে রবীন্দ্র ভবনে, যেখানে দীর্ঘদিন শিক্ষকতা করেছেন তিনি৷ সেখান থেকে দেহ যাবে রবীন্দ্র সদনে, সাধারণ মানুষ যাতে শেষ শ্রদ্ধা জানাতে পারেন৷ রবীন্দ্র সদন থেকে সুচিত্রা মিত্রের প্রতিষ্ঠিত গানের স্কুল রবিতীর্থ ঘুরে কেওড়াতলা শ্মশানে তাঁর অন্ত্যেষ্টি হবে৷

সোমবার বিকেলে হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মারা যান ৮৬ বছর বয়সি সুচিত্রা মিত্র৷ তাঁর মৃত্যুর খবর ছড়িয়ে পড়ার সঙ্গে সঙ্গে বাংলা সাংস্কৃতিক জগতের বিখ্যাত মানুষদের ঢল নামে তাঁর বাড়িতে৷ এসেছিলেন সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়, ঊষা উথুপ, লোপামুদ্রা মিত্র৷ শেষ বিদায় জানাতে এসেছিলেন আরেক প্রবীণ সহশিল্পী দ্বিজেন মুখোপাধ্যায়৷ শোকে প্রায় বাকরুদ্ধ ছিলেন তিনি৷ মুখ্যমন্ত্রী বুদ্ধদেব ভট্টাচার্য খবর পেয়েই মহাকরণ থেকে সোজা চলে আসেন৷ মঙ্গলবার শিল্পীর শেষকৃত্যের সব ভার নিয়েছে রাজ্য সরকার৷

প্রতিবেদন: শীর্ষ বন্দ্যোপাধ্যায়

সম্পাদনা: অরুণ শঙ্কর চৌধুরী

নির্বাচিত প্রতিবেদন

ইন্টারনেট লিংক