1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বাংলাদেশ

সিলেটে জঙ্গি আস্তানা ঘিরে অভিযান চলছে

সিলেটের আতিয়া মহলে এখনো অভিযান চলছে৷ সোমবার সকালে আবারও বেশ কিছু সময় থেমে থেমে গুলি এবং বিস্ফোরণের শব্দ পাওয়া গেছে বলে স্থানীয় বাসিন্দাদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে৷

রোববার বিকালে এক ব্রিফিংয়ে সেনাবাহিনীর কর্মকর্তা ব্রিগেডিয়ার জেনারেল ফখরুল আহসান জানিয়েছিলেন, আতিয়া মহল নামের ওই বাড়িতে অন্তত দুই জঙ্গি মারা পড়েছে এবং ভেতরে আরও জঙ্গি রয়েছে বলে তাদের ধারণা৷ শনিবার সন্ধ্যায় সিলেটের দক্ষিণ সুরমা শিববাড়ি এলাকায় সেনাবাহিনীর জঙ্গি আস্তানায় কমান্ডো অভিযানের প্রথম পর্যায়ের ব্রিফিং শেষে সেখান থেকে মাত্র ৬০ গজ দূরে একটি বোমার বিস্ফোরণ ঘটে৷ এর কিছুক্ষণ পরেই কাছের পূর্ব পাঠানতলা মসজিদ এলাকায় আরেক দফা বোমা বিস্ফোরণ হয়৷ ওই জোড়া বিস্ফোরণে দুই পুলিশসহ ছয়জন নিহত হন৷

প্রসঙ্গত, সিলেটের শিববাড়ি এলকায় জঙ্গি আস্তানা সন্দেহে ‘আতিয়া মহল' নামে একটি বাড়ি শুক্রবার পুলিশ ঘেরাও করে৷ শনিবার সকালে সেনাবাহিনীর প্যারা ট্রুপার কমান্ডোরা ওই ৫ তলা ভবনে আটকে থাকাদের উদ্ধারে অভিযান চালায়৷ ভবনটির নীচতলায় জঙ্গিরা অবস্থান করছিল৷ বিকেলে নাগাদ সেখান থেকে উদ্ধার করা হয় ২৭ নারী ও ২১ শিশুসহ ৭৮ জনকে৷ সেসময় গুলি আর বোমার শব্দ শোনা যায়৷

শনিবার সন্ধ্যা সাড়ে ছয়টায় প্রেস ব্রিফিংয়ে সেনাবাহিনীর মুখপাত্র ব্রিগেডিয়ার জেনারেল ফখরুল আহসান রবিবার জঙ্গিদের আটকে ফের অভিযানের ঘেষণা দিয়ে রাতের মত অভিযান সাময়িক স্থগিত ঘোষণা করেন৷ এর পরপরই ওই জায়গা থেকে মাত্র ৬০ গজ দূরে বোমা বিস্ফোরণ ঘটে৷ সেখানে প্রচুর উৎসুক মানুষের ভিড় ছিল৷

এরপর রাত ৭টা ৫৫ মিনিটের দিকে আগের ঘটনাস্থলের কাছে পূর্ব পাঠানতলা মসজিদ এলাকায় আরেকটি বোমার বিস্ফোরণ ঘটে৷ পুলিশ জানিয়েছে দু'টি বোমাই ছিল শক্তিশালী৷ বিস্ফোরণে নিহতদের মধ্যে রয়েছেন সিলেট মহানগর পুলিশের পরিদর্শক চৌধুরী মো. আবু ফয়সাল এবং স্থানীয় লিডিং ইউনিভার্সিটির শিক্ষার্থী ওয়াহিদুল ইসলাম অপু৷ বাকিদের পরিচয় এখনো জানা যায়নি৷

বোমা বিস্ফোরণের সময় কাছেই থাকা ইন্ডিপেন্ডেন্ট টেলিভিশনের সাংবাদিক আব্দুল্লাহ আল রাফি ডয়চে ভেলেকে বলেন, ‘‘ব্রিফিং শেষ হওয়ার পরই আমরা বিস্ফোরণের বিকট শব্দ পাই৷ পরে আরো একটি বোমা হামলা হয়৷ আমরা শিববাড়ি এলাকায় চারটি রক্তাক্ত দেহ পড়ে থাকতে দেখি৷ হামলার পর সেখানে এক নারকীয় অবস্থার সৃষ্টি হয়৷''

তিনি বলেন, ‘‘সিলেট শহরে এখন ভয় আর আতঙ্ক৷ এমন ঘটনা ঘটতে পারে তা কারুর চিন্তায়ও ছিলনা৷ ঘটনার পরপরই শহরের দোকান পাট বন্ধ হয়ে যায়৷ যানবাহন চলাচল সীমিত হয়ে আসে৷''

নির্বাচিত প্রতিবেদন

এই বিষয়ে অডিও এবং ভিডিও

সংশ্লিষ্ট বিষয়