1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

সিরীয় বিদ্রোহীদের অস্ত্র দিতে রাজি যু্ক্তরাষ্ট্র

সিরীয় বিদ্রোহীদের সব সহায়তা দিলেও একটা জায়গায় আটকে ছিল যুক্তরাষ্ট্র৷ অস্ত্র সহায়তা দিলে তা চলে যেতে পারে আল-কায়েদার মতো সংগঠনগুলোর কাছে – এই আশঙ্কা অবশেষে কিছুটা দূরে সরাতে পেরেছে ওবামা সরকার৷

সিরীয় বিদ্রোহীদের অস্ত্র দেয়ার পথে এগোচ্ছে যুক্তরাষ্ট্র৷

কিছুটা অগ্রগতি হয়েছিল ১২ জুলাই হয়ে যাওয়া যুক্তরাষ্ট্রের সিনেট ইন্টেলিজেন্স কমিটির সদস্যদের এক বিশেষ বৈঠকে৷ আগে সিরীয় বিদ্রোহীদের অস্ত্র সহায়তা দিলে সেটা প্রকারান্তরে ইসলামি জঙ্গিদের বিশ্ব জুড়ে ক্রমবর্ধমান তৎপরতায় মদত দেয়া হবে – এমন যুক্তি দেখালেও সেদিনের রুদ্ধদ্বার বৈঠকে সদস্যরা যুক্তরাষ্ট্র নিজস্ব পরিকল্পনা নিয়ে সহায়ত দিতে পারে বলে মত প্রকাশ করেন৷ ওবামা সরকারের জন্য সেটা ছিল পরিষ্কার সবুজ সংকেত৷ যে প্রশ্নে রিপাবলিকান আর ডেমোক্র্যাটরা একজোট হয়ে বিরোধীতা করেছে তাতে সিনেটের সতর্ক সমর্থন অবশেষে সিরীয় বিদ্রোহীদের প্রত্যাশা পূরণের পথে এগিয়ে দিয়েছে যুক্তরাষ্ট্রকে৷

Barack Obama telefoniert

বারাক ওবামা

সোমবার যুক্তরাষ্ট্রের হাউজ অফ রিপ্রেজেন্টেটিভ ইন্টেলিজেন্স কমিটির চেয়ারম্যান মাইক রজার্স জানিয়েছেন, বারাক ওবামা এখন সিরিয়ার যুদ্ধ অবসানের জন্য বিদ্রাহীদের অস্ত্র সহায়তা দেয়ার কথা ভাবছে৷ বার্তা সংস্থা রয়টার্সকে তিনি বলেন, ‘‘আমরা মনে করি আমরা এখন এমন এক জায়গায় দাঁড়িয়ে যেখান থেকে যুক্তরাষ্ট্রের প্রশাসন সামনে এগোতে পারে৷ প্রাথমিক পর্যায়ে যে বিষয়টি খুব ভাবাচ্ছিল, তা দূর করার জন্য আমরা কংগ্রেসের সঙ্গে কাজ করে আসছিলাম৷ এখন আমরা এগোতে পারি৷''

অস্ত্র সহায়তা দেয়ার কথা ভাবলেও যুক্তরাষ্ট্র ইসলামি জঙ্গিদের নিয়ে আশঙ্কাটাকে এখনো একেবারে উড়িয়ে দেয়নি৷ রজার্স বলেছেন, ‘‘তবে এখনো আপত্তির শক্ত ভিত্তি রয়েছে – এ কথাটাও বলে রাখা দরকার৷''

এসিবি/ ডিজি (রয়টার্স)

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়