1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

সিরিয়া থেকে সৈন্য ফিরিয়ে নিচ্ছে রাশিয়া

সিরিয়া থেকে সৈন্য প্রত্যাহার শুরু করে দিয়েছে রাশিয়া৷ সোমবারই এ সিদ্ধান্তের কথা জানিয়েছিলেন রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুটিন৷ তিনি জানান, সিরিয়ায় সৈন্য পাঠানোর লক্ষ্য পূরণ হওয়ার কারণেই এ সিদ্ধান্ত নিয়েছেন তিনি৷

এখনি অবশ্য সিরিয়া থেকে সব সৈন্য ফিরিয়ে নেবে না রাশিয়া৷ যে দু'টি ঘাঁটি থেকে রাশিয়ার সৈন্যরা ইসলামিক স্টেট (আইএস)-এর বিরুদ্ধে বিমান হামলা পরিচালনা করছে, সেই দু'টি ঘাঁটির সৈন্যরা থাকবে৷ তবে তারপরও ভ্লাদিমির পুটিনের বেশির ভাগ রুশ সৈন্য সিরিয়া থেকে ফিরিয়ে নেয়ার আকস্মিক এই সিদ্ধান্ত সিরিয়া যুদ্ধ অবসানের প্রক্রিয়ায় গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখতে পারে বলে ধারণা করা হচ্ছে৷

সোমবার রাশিয়ার প্রতিরক্ষামন্ত্রী সের্গেই শয়গু-কে পুটিন জানান যে, তিনি সিরিয়া থেকে অনতিবিলম্বে বেশির ভাগ সৈন্য প্রত্যাহারের সিদ্ধান্ত নিয়েছেন৷ এ সিদ্ধান্ত কার্যকর করার জন্য প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়কে নির্দেশ দিয়েছেন বলেও জানান তিনি৷

সোমবার প্রতিরক্ষামন্ত্রীকে পুটিন বলেন, ‘‘(সিরিয়ায়) আমাদের প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় এবং সশস্ত্র বাহিনীর যে লক্ষ্য ছিল তা সার্বিকভাবে পূরণ হওয়ার কারণে প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়কে আমি এ নির্দেশ দিয়েছি৷ সিরিয়া থেকে সৈন্য প্রত্যাহার আগামী কাল থেকেই শুরু করতে বলেছি আমি৷''

পুটিনের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী, মঙ্গলবার, অর্থাৎ আজ খেকেই রুশ সৈন্যদের বড় একটা অংশ সিরিয়া ছাড়তে শুরু করলো৷

এদিকে এক বিবৃতির মাধ্যমে সিরিয়া সরকারের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, সৈন্য প্রত্যাহার শুরু করলেও ‘সন্ত্রাসবিরোধী লড়াইয়ে' রাশিয়া সিরিয়ার পাশে থাকবে৷ সৈন্য প্রত্যাহার শুরুর সিদ্ধান্তের কথা জানিয়ে রাশিয়া সরকার এ অঙ্গীকার পুনর্ব্যক্ত করেছে বলে বিবৃতিতে বলা হয়৷

সিরিয়ায় রুশ সৈন্য যাওয়ার পর তথাকথিত ইসলামি জঙ্গি সংগঠন আইএস পিছু হঠতে বাধ্য হয়৷ রুশ সৈন্যদের সহায়তায় বেশ কয়েকটি এলাকার ওপর নিয়ন্ত্রণ পুনরুদ্ধার করে বাশার আল-আসাদের অনুগত বাহিনী৷

ভিডিও দেখুন 02:28

রাশিয়ার সৈন্য প্রত্যাহারের ঘোষণার দিনেই সিরিয়া সংকটের পাঁচ বছর পূর্ণ হয়েছে৷ পাঁচ বছরে অনেক প্রাণহানির পাশাপাশি অন্তত ৪৮ লাখ সিরীয় নাগরিক দেশছাড়া হলেও এখনো সংকট নিরসন হয়নি৷

সোমবার থেকে শুরু হয়েছে শান্তি স্থাপনের আরেকটি উদ্যোগ৷ জেনেভায় শুরু হয়েছে শান্তি আলোচনা৷ সিরিয়ার প্রেসিডেন্ট বাশার আল-আসাদ ও তাঁর সরকারবিরোধী জোটের প্রতিনিধিরা এ আলোচনায় অংশ নিচ্ছেন৷

এসিবি/ডিজি (এপি, এএফপি, ডিপিএ)

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়