সিরিয়া আক্রমণে মরিয়া ওবামা, পুটিনকে আসাদের ‘ধন্যবাদ′ | বিশ্ব | DW | 09.09.2013
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

সিরিয়া আক্রমণে মরিয়া ওবামা, পুটিনকে আসাদের ‘ধন্যবাদ'

আক্রমণ করার আগে ভোটে জিততে হবে কংগ্রেসে৷ তার আগে হোয়াইট হাউসের কর্মকর্তাই বলে দিলেন, আসাদের বিরুদ্ধে প্রত্যক্ষ প্রমাণ যুক্তরাষ্ট্রের হাতে নেই৷ তাতে অবশ্য তৎপরতা থেমে নেই৷ কোমর বেঁধে লড়ে যাচ্ছেন ওবামা৷

মার্কিন প্রেসিডেন্টের এখনকার লড়াই আসন্ন জরুরি কংগ্রেস অধিবেশনে ভোটে জেতা৷ এদিকে ২১শে আগস্ট সিরিয়ার প্রেসিডেন্ট বাশার আল আসাদের অনুগত বাহিনীই কথিত হামলা চালিয়েছিল কিনা সে বিষয়ে নিশ্চিত না হয়ে কোনো রকম হামলার বিপক্ষে জনমত গড়ে উঠছে যুক্তরাষ্ট্রে৷ এ পরিস্থিতিতে হোয়াইট হাউসের চিফ অফ স্টাফ ডেনিস ম্যাকডোনা বলে দিয়েছেন, আসাদের বিরুদ্ধে আসলেই প্রত্যক্ষ কোনো প্রমাণ নেই৷ প্রেসিডেন্ট ওবামা তারপরও হাল ছাড়েননি৷ বরং সিরিয়ায় সামরিক হস্তক্ষেপের সিদ্ধান্ত কার্যকর করতে আগের চেয়ে অনেক বেশি সক্রিয় তিনি৷ ২০০৯ সালে শান্তিতে নোবেল জয়ী যুক্তরাষ্ট্রের প্রথম কৃষ্ণাঙ্গ প্রেসিডেন্ট চার বছর পরই যুদ্ধর জন্য মরিয়া৷

সোমবার হামলার পক্ষে নিজের বক্তব্য তুলে ধরার জন্য এক সঙ্গে ছয়টি টেলিভিশন চ্যানেলকে সাক্ষাৎকার দিচ্ছেন তিনি৷ মঙ্গলবার জাতির উদ্দেশ্যে ভাষণ দেবেন হোয়াইট হাউস থেকে৷ তারপরই কংগ্রেসে ভোট হওয়ার কথা৷ দিনক্ষণ এখনো চূড়ান্ত হয়নি৷

এদিকে বার্তা সংস্থা এএফপির এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, সিরিয়ায় যুক্তরাষ্ট্রের আক্রমণ নিশ্চিত করার জন্য যুক্তরাষ্ট্রে ইসরায়েলের লবি তৎপর রয়েছে৷ আসাদ-বিরোধী সিরীয় জোটও সেখানে সক্রিয়৷ যুক্তরাষ্ট্রের গোয়েন্দা সংস্থার দেয়া তথ্য অনুযায়ী ২১ শে আগস্টের হামলায় দামেস্কে ১,৪২৯ জন মারা গেছেন৷ আসাদ-বিরোধী জোটের সদস্য ওয়াশিংটনে জানিয়েছেন, মৃতের সংখ্যা আরো বেশি৷ তবে ব্রিটেন-ভিত্তিক সিরিয়ান অবজারভেটরি ফর হিউম্যান রাইটস জানিয়েছে, এ পর্যন্ত ৫০২ জনের মৃত্যু সম্পর্কে নিশ্চিত হওয়া গেছে৷

সিরিয়ায় আক্রমণের জন্য যুক্তরাষ্ট্রের সব তৎপরতার মাঝেই সোমবার আবার মুখ খুলেছেন বাশার আল আসাদ৷ দুঃসময়ে তাঁর দেশের পাশে দাঁড়ানোর জন্য রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুটিনকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন তিনি৷

এসিবি/এসবি (এপি, এএফপি)

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়