সিরিয়ায় ব্যাপক হামলা চালানোর দাবি ইসরায়েলের | বিশ্ব | DW | 11.02.2018
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

মধ্যপ্রাচ্য

সিরিয়ায় ব্যাপক হামলা চালানোর দাবি ইসরায়েলের

সিরিয়ার ছোড়া গোলার আঘাতে ইসরায়েলের একটি জঙ্গি বিমান ভূপাতিত হওয়ার পর সিরিয়ায় ইরানি লক্ষ্যবস্তুতে বড় ধরনের অভিযান চালানোর দাবি করেছে ইসরায়েল৷ যুক্তরাষ্ট্র এ ব্যাপারে ইসরায়েলকে সমর্থন জানিয়েছে৷

ইসরায়েলের সেনাবাহিনী জানিয়েছিল, শনিবার সিরিয়া থেকে পাঠানো ইরানের একটি ড্রোন ইসরায়েলের আকাশসীমায় প্রবেশ করলে সেটি তারা আটকে দেয়৷ এর জবাবে পাল্টাপাল্টি হামলা চালায় সিরিয়া ও ইসরায়েল৷ ইসরায়েলের সেনাবাহিনীর এক বিবৃতিতে বলা হয়েছে, সিরিয়ায় মোট ১২টি লক্ষ্যবস্তুতে আঘাত হেনেছে তারা, এর মধ্যে তিনটি বিমান ঘাঁটি এবং সিরিয়ায় ইরানের চারটি সামরিক ঘাঁটিতে৷ ২০১১ সালে সিরিয়ায় গৃহযুদ্ধ শুরুর পর এই প্রথম ইরান ও ইসরায়েল ভয়ানক দ্বন্দ্বে জড়িয়ে পড়েছে৷

তবে সিরীয় সেনাবাহিনী এবং তাদের সহযোগী দেশগুলো বলছে, চালকবিহীন ড্রোনটি ইসরায়েলের আকাশসীমা লঙ্ঘন করেনি৷ বরং এটি তথাকথিত জঙ্গি সংগঠন ইসলামিক স্টেটের জঙ্গিদের অবস্থান সম্পর্কে জানতে তাদের নিয়মিত অভিযানের অংশ৷ গতকালের বিভিন্ন গণমাধ্যমে প্রকাশ হয়েছিল সিরিয়ার গোলার আঘাতে ইসরায়েলের জঙ্গি বিমান এফ-১৬ ভূপাতিত হয়েছিল৷ কিন্তু ইসরায়েলের এক কর্মকর্তা বার্তা সংস্থা রয়টার্সকে জানিয়েছেন, গুলি করে বিমানটি ভূপাতিত করা হয়েছিল, যাতে তাদের দুই পাইলট গুরুতর আহত হয়৷

এদিকে জাতিসংঘ মহাসচিব আন্তোনিও গুতেরেস সব পক্ষকে শান্ত থাকার আহ্বান জানিয়ে অবিলম্বে শর্তহীন ভাবে সহিংসতা বন্ধের আহ্বান জানিয়েছেন৷ এক বিবৃতিতে তিনি বলেছেন, ৭ বছরের সংঘাতের মধ্যে সবচেয়ে সহিংস সময়ের মধ্য দিয়ে যাচ্ছে সিরিয়ার সাধারণ মানুষ৷

Russland Netanjahu trifft Putin

পুটিন-নেতানিয়াহু ফোনালাপ

নেতানিয়াহু-পুটিন আলোচনা

ইসরায়েলের প্রধানমন্ত্রী বেনিয়ামিন নেতানিয়াহু সিরিয়ার সঙ্গে এই সংকট নিয়ে রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুটিনের সঙ্গে টেলিফোনে কথা বলেছেন৷ রাশিয়ার ইন্টারফ্যাক্স বার্তা সংস্থা জানিয়েছে, পুটিন নেতানিয়াহুকে বলেছেন এমন কোন পদক্ষেপ না নেয়া হয়, যাতে ঐ অঞ্চলে নতুন করে সংঘাত শুরু হয়৷

দামেস্কের কাছে নতুন বিমান হামলা

সিরিয়ার রাষ্ট্রীয় টেলিভিশন জানিয়েছে, ইসরায়েল দামেস্কের কাছে তাদের বিমান ঘাঁটিতে হামলা শুরু করেছে৷ যুক্তরাজ্যভিত্তিক মানবাধিকার সংস্থা সিরিয়ান অবজারভেটরি ফর হিউম্যান রাইটস বিমান হামলার কথা নিশ্চিত করেছে৷ তবে তাদের ঘাঁটিতে ইসরায়েলের সফল বিমান হামলাকে মিথ্যা প্রচার বলে মন্তব্য করেছে ইরান৷ দেশটির পরররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র জানিয়েছেন, ইসরায়েল ইরানসহ এই অঞ্চলের অন্যান্য দেশের বিরুদ্ধে মিথ্যা প্রচার চালাচ্ছে৷ কেননা সিরিয়ায় ইরানের কোনো সামরিক উপস্থিতি নেই৷ সিরিয়া সরকারের অনুরোধে সেখানে কেবল তাদের কয়েকজন সামরিক উপদেষ্টা অবস্থান করছেন৷

Iran Bahram Ghasemi neuer Sprecher des Außenministeriums in Teheran

ইসরায়েল মিথ্যা প্রচারণা চালাচ্ছে

ইসরায়েলের পক্ষে যুক্তরাষ্ট্র

যুক্তরাষ্ট্র যথারীতি সিরিয়ায় হামলার জন্য ইসরায়েলকে সমর্থন করেছে৷ মার্কিন পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় এক বিবৃতিতে জানিয়েছে, ‘‘ইসরায়েল সীমান্তকে ঘিরে যে উত্তেজনা সৃষ্টি হয়েছে সে সম্পর্কে যুক্তরাষ্ট্র অবগত আছে এবং ইসরায়েল নিজেদের প্রতিরক্ষার জন্য যা করছে তাতে যুক্তরাষ্ট্রের সম্পূর্ণ সমর্থন রয়েছে৷''

আসাদ সরকার রাসায়নিক হামলা চালাচ্ছে

জাতিসংঘের মানবাধিকার সংস্থার প্রধান জেইদ রা'দ আল হুসেইন সিরিয়া সরকারের বিরুদ্ধে ‘বিষাক্ত রাসায়নিক গ্যাস' ব্যবহারের অভিযোগ তুলেছেন৷  জাতিসংঘের এই শীর্ষ মানবাধিকার কর্মকর্তা শনিবার জানিয়েছেন, গত এক সপ্তাহে রাশিয়া সমর্থিত সরকারি বিমান হামলায় সিরিয়ায় ২৩০ জন বেসামরিক মানুষ নিহত হয়েছে, যা যুদ্ধাপরাধের শামিল এবং এটি বিশ্বের কূটনীতির একটি বড় ব্যর্থতা৷ তিনি জানান, তার কাছে ভিডিও সহ কিছু প্রতিবেদন উপস্থাপন করা হয়েছে, যেখানে দেখা যাচ্ছে সারাকেব এলাকায় বিষাক্ত রাসায়নিক গ্যাস হামলা চালানো হয়েছে৷

২০১১ সালে সিরিয়ায় গৃহযুদ্ধ শুরুর পর থেকে এ পর্যন্ত অন্তত ৩ লাখ মানুষ নিহত হয়েছে৷ গৃহহীন হয়েছে কয়েক লাখ মানুষ৷

এপিবি/এসিবি (এপি, এএফপি, রয়টার্স, ডিপিএ)

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়