1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

সিরিয়া

সিরিয়ায় বিমানবন্দরের কাছে হামলার পেছনে ইসরায়েল?

সিরিয়ার রাজধানী দামেস্কের বিমানবন্দরের কাছের একটি অস্ত্র সরবরাহ কেন্দ্রে বৃহস্পতিবার ভোরে বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটেছে৷ সিরীয় বিদ্রোহী ও গোয়েন্দা সূত্রের বরাত দিয়ে রয়টার্স বলছে, হামলাটি চালিয়েছে ইসরায়েল৷

লেবাননের হেজবুল্লাহ গ্রুপ এই অস্ত্র সরবরাহ কেন্দ্রটি পরিচালনা করে বলে বার্তা সংস্থা রয়টার্সকে জানিয়েছেন নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক ঊর্ধ্বতন গোয়েন্দা কর্মকর্তা৷ তিনি বলেন, ইরান থেকে ঐ কেন্দ্রে অস্ত্র পাঠানো হয়ে থাকে৷ এসব অস্ত্রের বেশিরভাগই ব্যবহার করে হেজবুল্লাহর যোদ্ধারা, যারা সিরিয়ায় সরকারবিরোধী বিদ্রোহীদের সঙ্গে যুদ্ধে লিপ্ত৷

উল্লেখ্য, রাশিয়া ছাড়াও সিরিয়ার প্রেসিডেন্ট বাশার আল-আসাদের অন্যতম সমর্থক ইরান ও হেজবুল্লাহ৷

হেজবুল্লাহপন্থি লেবাননের টিভি চ্যানেল আল-মানার বলছে, অস্ত্র সরবরাহ কেন্দ্রে বিস্ফোরণের কারণ ‘সম্ভবত' ইসরায়েলের আকাশ হামলা৷ ডয়চে ভেলের সাংবাদিক ডানা রেগেভ সংবাদটি টুইট করেছেন৷

আল-মানার বলছে, প্রাথমিকভাবে যে তথ্য পাওয়া গেছে তাতে জানা গেছে, হামলায় কেউ প্রাণ হারায়নি, শুধু উপাদানগত ক্ষতি হয়েছে৷

ইসরায়েলের সামরিক বাহিনীর মুখপাত্র এসব বিষয়ে মন্তব্য করতে অস্বীকার করেছেন৷

তবে যুক্তরাষ্ট্র সফররত ইসরায়েলের গোয়েন্দা বিষয়ক মন্ত্রী ইসরায়েল কাটজ ইসরায়েলি সেনাবাহিনী পরিচালিত বেতারকে এক সাক্ষাৎকারে বলেছেন, ‘‘আমি নিশ্চিত করতে পারি যে, সিরিয়ায় যে ঘটনা ঘটেছে তা সিরিয়ায় থাকা হেজবুল্লাহ সদস্যদের কাছে ইরান যেন অস্ত্র পাঠাতে না পারে সেটি নিশ্চিত করার ইসরায়েলি নীতির সঙ্গে পুরোপুরি সামঞ্জস্যপূর্ণ৷ স্বাভাবিকভাবেই এর বেশি কিছু আমি বলতে চাই না৷''

কাটজ বলেন, ‘‘প্রধানমন্ত্রী (বেনইয়ামিন নেতানিয়াহু) বলেছেন, যখনই আমরা হেজবুল্লাহর কাছে আধুনিক অস্ত্র পৌঁছানোর খবর পাব তখনই হামলা করব৷''

জেডএইচ/এসিবি (রয়টার্স, এএফপি)

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়