1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

সিরিয়ায় আরেকটি রাজ্য দখল করে নিল আইএস

দৌরাত্ম বেড়েই চলেছে জঙ্গি গোষ্ঠী ইসলামিক স্টেট বা আইএস-এর৷ সিরিয়ার উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলীয় রাজ্য ইডলিবও এখন তাদের দখলে৷ সিরীয় রাষ্ট্রীয় সংবাদ মাধ্যমও নিশ্চিত করেছে এ খবর৷

সিরিয়ার প্রেসিডেন্ট বাশার আল-আসাদের অনুগত বাহিনীকে পিছু হঠতে বাধ্য করে আরেকটি গুরুত্বপূর্ণ অঞ্চলও দখল করে নিয়েছে ইসলামী জঙ্গি সংগঠন ইসলামিক স্টেট (আইএস)৷ গত সপ্তাহে মধ্য সিরিয়ার প্রাচীন নগরী পালমিরার নিয়ন্ত্রণ নিয়েছিল তারা৷ এবার আরিহা শহরও ছেড়ে যেতে বাধ্য হওয়ায় আসাদের অনুগত বাহিনী বস্তুতপক্ষে দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলের ওপরই নিয়ন্ত্রণ হারালো৷

এদিকে ব্রিটেন ভিত্তিক মানবাধিকার সংস্থা সিরিয়ান অবজারভেটরি ফর ফর হিউম্যান রাইটস জানিয়েছে, শুক্রবার আরিহার আশপাশের আরো কিছু জেলাও দখল করতে শুরু করেছে আইএস৷ ইডলিব রাজ্যে শুধু আরিহাই এতদিন বাশার আল আসাদের বাহিনীর নিয়ন্ত্রণে ছিল৷ এটিও আইএস-এর দখলে চলে যাওয়ায় পার্শ্ববর্তী উপকূলীয় রাজ্য লাটাকিয়াও এখন ঝুঁকির মধ্যে৷

Syrien Kämpfer der Al-Nusra Front

আসাদের অনুগত বাহিনী বস্তুতপক্ষে দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলের ওপরই নিয়ন্ত্রণ হারালো

ইডলিবের ওপর ধীরে ধীরে পূর্ণ নিয়ন্ত্রণ প্রতিষ্ঠার মাধ্যমে আইএস আসলে লাটাকিয়ায় হামলা চালানোর পথও উন্মুক্ত করছে৷ প্রসঙ্গত, লাটাকিয়া বাশার আল আসাদের অনুগত বাহিনীর খুব গুরুত্বপূর্ণ ঘাঁটি৷

ইরাকেও সাম্প্রতিক সময়ে সাফল্যই পাচ্ছে আইএস৷ কয়েকদিন আগে তারা রামাদি দখল করে নেয়৷

আইএস-কে আরো শক্তিশালী করতে নানা দেশ থেকে চরমপন্থি মানসিকতার নারী-পুরুষের সিরিয়া এবং ইরাকে যাওয়ার চেষ্টাও চলছে৷ অস্ট্রেলিয়ার পুলিশ জানিয়েছে, সে দেশ থেকে গত কিছুদিনে কমপক্ষে ১০০ জন দেশ ছেড়েছে৷ আইএস-এ যোগ দেয়ার জন্য তাঁরা সিরিয়া বা ইরাকে গিয়েছেন বলে ধারণা করা হচ্ছে৷ এ ছাড়া ১২জন নারীও আইএস-এ যোগ দেয়ার জন্য দেশ ছাড়ার চেষ্টা করেছিলেন বলে জানিয়েছে অস্ট্রেলিয়ার পুলিশ৷

এসিবি/এসবি (ডিপিএ, এএফপি, রয়টার্স)

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়