1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিজ্ঞান পরিবেশ

সিঙ্গাপুরে প্রত্যেকের জন্য ইলেকট্রনিক মেলবক্স

কর দেওয়া থেকে শুরু করে প্রায় সব সরকারি কাজে কোনো জটিলতা আর রাখছে না সিঙ্গাপুর৷ এ জন্য সবাইকে দেওয়া হচ্ছে একটি ইলেকট্রনিক মেলবক্স৷ যেখানে ই-মেলের মাধ্যমে পৌঁছে যাবে সরকারি সব চিঠি৷

default

না, এতোসব কাগজ-পত্রের জঞ্জাল আর নয়, সিঙ্গাপুরে এখন থেকে ই-মেইলবক্স

সিঙ্গাপুরের জনসংখ্যা ৫০ লাখ, এর মধ্যে ১০ লাখই অভিবাসী৷ সরকারের লক্ষ্য, ২০১২ সালের মধ্যেই সবার জন্যই ‘ওয়ান-ইনবক্স' পদ্ধতি চালু করা – যা সরকার ও জনগণের মধ্যে সেতুবন্ধন গড়ে তুলবে৷ ব্যক্তির জন্য যেমন, তেমনি প্রতিটি ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের জন্যও থাকছে মেল বক্স৷

তথ্য প্রযুক্তি বিষয়ক সরকারি দপ্তর ইনফোকম ডেভেলপমেন্ট অথরিটি অফ সিঙ্গাপুরের (আইডিএ) এক মুখপাত্র বলেন, ‘‘মেলবক্স সবার সঙ্গে যোগাযোগের জন্য সরকারের একটি মাধ্যম৷'' নিজেদের বেছে নেওয়া ই-মেল ঠিকানায় সবাই পেয়ে যাবেন তার সরকারি চিঠি-পত্র৷ বিভিন্ন ধরনের বিল পরিশোধ করা যাবে অনলাইনেই৷

ই-মেল পাঠানোর সঙ্গে সঙ্গে মোবাইল ফোনে একটি টেক্সট মেসেজ পাওয়ার সুযোগও রয়েছে৷ যা সবাইকে জানিয়ে দেবে, আপনার একটি ডাক এসেছে৷ যার অর্থ মেলবক্স খুলুন৷ এখানে বলে রাখা ভালো, সিঙ্গাপুরে প্রতি ১০০ জনে মোবাইল ফোন রয়েছে ১৩৭টি৷ সংখ্যাটি শত ছাড়িয়ে যাওয়ার কারণ, অনেকের হাতে দুটো, কারো কারো হাতে তিনটি পর্যন্ত মোবাইল দেখা যায়৷

আইডিআই বলছে, ওয়ান-ইনবক্স পদ্ধতিতে পাঠানো সব তথ্যের নিরাপত্তা ব্যবস্থা হবে সুরক্ষিত৷ ফাঁস হওয়ার কোনো সুযোগ নেই৷ আইডিআই এবং অর্থ মন্ত্রণালয় এক জরিপ চালিয়ে দেখেছে, সিঙ্গাপুরের ৬৫ শতাংশ মানুষ ই-মেলে তাদের সরকারি চিঠি-পত্র পেতে চান৷ বেসরকারিভাবে চালানো একটি জরিপে দেখা গেছে, এ হার ৬৬ শতাংশ৷

বর্তমানে ট্যাক্স দেওয়া, গাড়ি চালানোয় অনিয়মের জরিমানা, বিদেশিদের থাকার মেয়াদ বাড়ানোসহ কিছু কাজ অনলাইনে করা যায়৷ তবে ‘ওয়ান-ইনবক্স' চালু হলে সব কিছুই হয়ে যাবে অনলাইন৷

প্রতিবেদন: মনিরুল ইসলাম

সম্পাদনা: সঞ্জীব বর্মন

সংশ্লিষ্ট বিষয়