1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

পাঠক ভাবনা

‘সালাহ উদ্দিন অপহরণের জন্য অবশ্যই হাসিনা দায়ী'

বিএনপি নেতা সালাহ উদ্দিন আহমেদকে কি সরকার অপহরণ করেছে? ডয়চে ভেলের ফেসবুকে করা এই প্রশ্নের উত্তরে প্রায় সকলেই ‘হ্যাঁ'সূচক উত্তর দিয়েছেন৷ অবশ্য কিছু ব্যতিক্রমও রয়েছে....

পাঠক আল-মামুন শতকরা ১০০ ভাগই নিশ্চিত যে, বিএনপি নেতা সালাহ উদ্দিন আহমেদকে সরকার অপহরণ করেছে৷ রাযেন্দ্র রায়, আজাদ খান এবং রাসেল মাহমুদও তাঁর সঙ্গে একমত৷

বিএনপি নেতা সালাহ উদ্দিন আহমেদকে অপহরণ মাহমুদুর রহমান মান্নার মতো একই অবস্থা বলে মনে করেন ‘হৃদয়ের কাঁটা' নামধারী এক পাঠক৷

অগ্নিবীনা হাসানের মন্তব্য, ‘‘এই কাজ আওয়ামী সরকারের আর এর জবাবদিহিতাও তাদেরকেই করতে হবে৷'' তৌহিদ বাবু এবং মো. আলমগীরও পুরোপুরি নিশ্চিত যে সালাহ উদ্দিন আহমেদকে অপহরণ করা হয়েছে৷

জাকির হোসেন মন্ডলের কথায়, ‘‘মাহমুদুর রহমান মান্না ভাইয়ের ক্ষেত্রে সরকার একই কথা বলেছিল৷''

তবে আজিজুল হাকিম মনে করেন না যে, এতে সরকারের হাত রয়েছে৷ আর পাঠক রানা সরকার মনে করেন, সালাহ উদ্দিন আহমেদ কোথায় পালিয়েছেন – তা সরকারকেই বের করতে হবে৷ কারণ সরকার দেশ ও জাতির জন্য কাজ করছে৷

সুমন চৌধুরীর মনে করেন, এটা বিএনপির ‘কু-চাল'৷ তার মতে ‘‘সালাহ উদ্দিন আহমেদ তো নিজে থেকেই অপহৃত ছিলেন....অন্য সব কূট-কৌশলের মতো এটাও বিএনপির একটা কু-চাল...৷''

শামীম হোসেন কোনো রাখঢাক না করে সরকারের ওপর তাঁর রাগ প্রকাশ করেছেন এভাবে, ‘‘সরকার সালাহ উদ্দিনকে অপহরণ না করলে তাঁকে কি ভূতে নিয়ে গেল? এ সরকার সবাইকে এবং দেশকে অপহরণ করে ভারতে দিয়ে আসবে৷''

ডয়চে ভেলের ফেসবুক বন্ধু মাহফুজ আদনান দেশের অস্থিতিশীল পরিস্থিতি নিয়ে এমনিতেই আতঙ্কিত৷ এখন আবার তার সাথে নতুন আতঙ্ক যোগ হলো৷ এ বিষয়ে তাঁর মন্তব্য, ‘‘বিরোধীদলের ককটেল আর পেট্রোল আতঙ্কের সাথে নতুন করে যুক্ত হলো সরকার দলের গুম আতঙ্ক, অপহরণ আতঙ্ক৷''

পাঠক রাজু আহমেদ, শহরিয়ার বাবুলও ১০০ ভাগ নিশ্চিত যে সরকারই সালাহ উদ্দিন আহমেদকে অপহরণ করেছে৷ রাজু আহমেদের পরের মন্তব্য, ‘‘বর্তমান সরকার ক্ষমতা টিকিয়ে রাখতে সবই পারে....প্রয়োজনে হাজারো মায়ের কোল খালিও যদি করতে হয়, তাও ওনাদের দিয়ে সম্ভব৷''

অন্যদিকে মো. আরিফুজ্জামান ড্যানির ধারণা, সালাহ উদ্দিন আহমেদ নাকি নিজেই পালিয়েছেন৷

মো. উজ্জ্বল হোসেন সরাসরি কোনো মতামত না জানিয়ে আল্লাহর ওপর ভরসা রেখে লিখেছেন, ‘‘আল্লাহ পাক ভালো জানেন, তবে সত্যটা একদিন প্রকাশ হবেই, সত্য কেউ লুকিয়ে রাখতে পারবে না৷''

আলমগীর মাহমুদের মন্তব্য, ‘‘অবশ্যই হাসিনা দায়ী৷'' নাজমুল হোসেন বলছেন, ‘‘হাসিনা নাকি গুম ও খুনের রানি৷''

সিদ্দিক আবু বকরের মন্তব্য, ‘‘সালাউদ্দিন আহমেদের অপহরণ সরকারের কাজ৷'' এস রহমান বলছেন, ‘‘মান্নার আটকও অস্বীকার করেছিল সরকার৷''

আলমগীর আলমের মন্তব্য, ‘‘বোমায় যত লোক মরেছে সরকার তার চেয়ে বেশি লোক গুম করেছে৷''

নাজমুল হাসান সালাহ উদ্দিনের অপহরণকে বলছেন ‘মিথ্যাচার'৷ কারণ তাঁর মতে, ‘‘উনি তো আগে থেকেই লুকানো ছিলেন৷''

তবে রুবেন খানের মতে, ‘‘খুনি হাসিনার খুনি বাহিনী অপহরণ করেছে তাঁকে৷''

জুবায়ের হোসেনের ধারণা, ‘‘আবদুস সালাম আর মান্নাকে যে টিম অপহরণ করেছিল, তাদের দিয়েই সালাহ উদ্দিনকে গুম করানো হয়েছে৷''

মো. জামাল হোসেনও সরকারকেই দায়ী করছেন এই অপহরণের জন্য৷ শেষে নিজেদের জাতি সম্পর্কে জামাল হোসেনের মন্তব্য, ‘‘আমি মনে করছি যে আমরা এখন শ্রেষ্ঠ অসভ্য জাতি!''

মোস্তাফিজুর রহমানও জামাল হোসেনের সাথে একমত যে সরকারই দায়ী৷ তবে তিনি আরো একটু যোগ করেছেন এর সঙ্গে৷ লিখেছেন, ‘‘এখন মানুষ আর বোকা না, সরকারের চালবাজি সবাই জেনে গেছে৷''

পাঠক হাবীব সুমন একটু রসিয়ে লিখেছেন, ‘‘সালাহ উদ্দিন আহমেদের অপহরণের প্রশ্নটা করে সরকারকে লজ্জা দেবেন না, কারণ তারা এত কষ্ট করে অপহরণ করছে, আপনারা আবার বিশ্বাসও করেন না৷''

‘‘এই সত্যটা শিশুরা পর্যন্ত জানে'' – এমনই মন্তব্য পাঠক মোজাম্মেল হোসেনের৷

শাকিলের কথা, ‘‘যে ক্লিকবাজ সরকার, এ সব ছাড়া মাথায় কিচ্ছু আসে না৷''

ডিডাব্লিউ-র ফেসবুক পাঠক নোভেল ভালো করেই জানেন যে, বাংলাদেশের রাজনীতিতে সাধারণ জনগণের মতামতের কোনো মূল্য নেই৷ আর সেকথাটিই তিনি পরিষ্কার করে জানিয়েছেন ফেসবুকে৷ ‘‘আমি মনে করলেই কি, আর না করলেই কি?''

হুমায়ূন কবির দেশের রাজনৈতিক পরিস্থিতি আর সহ্য করতে পারছেন না৷ তাঁর অনুরোধ, ‘‘সরকারকে বলেন এই সব নাটক বন্ধ করতে৷''

সংকলন: নুরুননাহার সাত্তার

সম্পাদনা: দেবারতি গুহ

নির্বাচিত প্রতিবেদন