1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

ভাইরাল ভিডিও

সারা বিশ্ব দেখছে সাফিয়া খানের সেই হাসি

শ’খানেক মানুষের সামনে গিয়ে দাঁড়িয়েছিলেন সাফিয়া খান৷ গিয়েছিলেন আরেক নারীকে উদ্ধার করতে৷ তাঁর দিকে তেড়ে এলেন একজন৷ ভয় না পেয়ে হাসিমুখে চোখে চোখ রেখে তাকালেন৷ সেই থেকে সাফিয়া অনেকের কাছেই প্রতিবাদী নারীর প্রতীক৷

নীচের ভিডিওটি এ পর্যন্ত এক লক্ষ ১৩ হাজার ৭৪১ বার দেখা হয়েছে এবং এটা নিশ্চিত যে, আগামীতে আরো বহুবার দেখা হবে৷ এই ভিডিওতেই যে সেদিনের ঘটনাটি নিজের মুখে বলছেন সাফিয়া! ভিডিওতে হিজাব পরা যে নারীকে দেখা যাচ্ছে তাঁর নাম সায়রা জাফর৷ গত সপ্তাহান্তে ইংল্যান্ডের বার্মিংহামে তাঁকে বাঁচাতে গিয়েই সারা বিশ্বের খবর হয়েছেন সাফিয়া৷

বার্মিংহামে সেদিন উগ্র ডানপন্থি এবং মুসলিমবিদ্বেষী সংগঠন হিসেবে পরিচিত ইংলিশ ডিফেন্স লিগ (ইডিএল)  প্রতিবাদ মিছিল করছিল৷ গত কয়েকদিনে বিশ্বের বিভিন্ন স্থানের জঙ্গি হামলার প্রতিবাদ এবং সেগুলোতে হতাহতদের প্রতি সহমর্মিতা জানাতেই সমবেত হয়েছিল ইএফএল-এর শ'খানেক সমর্থক৷

সেই পথ দিয়েই যাচ্ছিলেন সায়রা জাফর৷ যাবার সময় ইডিএল কর্মীদের তিনি ‘রেসিস্ট' বলেছেন বলে অভিযোগ৷ সঙ্গে সঙ্গে বেশ কয়েকজন ইডিএল কর্মী তাঁকে ঘিরে ধরে হেনস্থা করতে শুরু করে৷ দূর থেকে এ দৃশ্য দেখে সাফিয়া দ্রুত এগিয়ে যান৷ তাঁর দিকে তেড়ে আসে একজন৷ এত লোকের ভিড়ে কারো সঙ্গে বিবাদে জড়ালে বিপদ হতে পারে ভেবে পিছিয়ে যাননি বসনীয় ও পাকিস্তানি বংশোদ্ভূত এই নারী৷ ইডিএল সমর্থকের অগ্নিদৃষ্টির জবাবে তিনি শুধু মৃদু হাসছিলেন৷ কয়েক মুহূর্তের মধ্যেই পুলিশ এসে দু'জনকে সরিয়ে নেয়৷ কিন্তু ঐ ফাঁকে সাফিয়া খানের প্রতিবাদকারীর ভূমিকায় নির্ভিক অবস্থানের ছবি তুলে ফেলেছিলেন প্রেস অ্যাসোসিয়েশনের ফটোগ্রাফার জো গিডেনস৷ খুব তাড়াতাড়িই সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে পড়ে সেইি ছবি৷

ভাইরাল হয়ে যাওয়া সেই ছবিকে ‘সপ্তাহের সেরা ছবি'-র মর্যাদা দিয়েছে অনেক সংবাদমাধ্যম৷

এসিবি/ডিজি

নির্বাচিত প্রতিবেদন

ইন্টারনেট লিংক