1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

সামরিক শাসন কায়েমের চেষ্টা করেছিল তত্ত্বাবধায়ক সরকার

ছাত্র আন্দোলনকে চিরতরে দমন করে ২০০৭ সালে সামরিক শাসন প্রতিষ্ঠার চেষ্টা করেছিল সেসময়ের তত্ত্বাবধায়ক সরকারের প্রধান ফকরুদ্দিন আহমেদ ও সেনা প্রধান মইন ইউ আহমেদ৷ অভিযোগ শিক্ষা মন্ত্রণালয় সংক্রান্ত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির৷

Harun Ur Rashid Swapan Dhaka, Bangladesh Cell: 01713030149 & 0152319189 Res: 8061739 Off : 9888705 & 9889821 Fax: 8853574 Email: swapansg@yahoo.com

তত্ত্বাবধায়ক সরকারের সাবেক প্রধান ফকরুদ্দিন আহমেদ

তত্ত্বাবধায়ক সরকারের আমলে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ছাত্র-সেনা সংঘর্ষের ঘটনা সূত্রে আজ ১৯ শিক্ষার্থীর বক্তব্য রেকর্ড কারার পর এই মন্তব্য করেন কমিটির সদস্যরা৷

২০০৭ সালের আগষ্টে ঢাকা বিশ্বিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় খেলার মাঠে সেনা সদস্য এবং ছাত্রদের মধ্যে সংঘর্ষ হয় এবং তা ছড়িয়ে পড়ে সারা দেশে৷ ওই ঘটনায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ৪ জন এবং রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের ৬ জন শিক্ষকসহ বহু শিক্ষার্থীকে আটক করা হয়৷ অভিযোগ, রিমান্ডে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদের নামে চালান হয় নির্যাতন৷ ওই ঘটনা তদন্তে এখন কাজ করছে শিক্ষা মন্ত্রণালয় সংক্রান্ত সংসদীয় স্থায়ী কমিটি৷ তদন্তের অংশ হিসেবে আজ কমিটির সদস্যরা ঘটনার সাক্ষী ১৯ জন ছাত্র এবং ছাত্রনেতার বক্তব্য নিয়েছেন৷ তারা ওই সহিংসতার জন্য সেনাবাহিনী এবং তখনকার তত্ত্বাবধায়ক সরকারকে দায়ী করেন৷

General Moin U Ahmed

সাবেক সেনা প্রধান মইন ইউ আহমেদ

ছাত্রদের বক্তব্য শোনার পর কমিটির সদস্য শাহ আলম এমপি অভিযোগ করেন, দেশকে মেরুদণ্ডহীন করে সামরিক শাসন প্রতিষ্ঠা করতেই সুপরিকল্পিতভাবে ঐ সহিংসতা ছড়ানো হয়েছিল৷ কমিটির প্রধান রাশেদ খান মেনন এমপি বলেন ওই ঘটনার জন্য যারাই দায়ী থাকুকনা কেন তাদের চিহ্নিত করে শিগগিরই তদন্ত রিপোর্ট প্রকাশ করা হবে৷

তদন্ত কমিটি গত ১৮ই এপ্রিল তত্ত্বাবধায়ক সরকারের সাবেক প্রধান ফকরুদ্দিন আহমেদ এবং সাবেক সেনা প্রধান মইন ইউ আহমেদকে সাক্ষী দিতে ডেকেছিল৷ কিন্তু তারা কমিটির সামনে হাজির না হয়ে লিখিত বক্তব্য পাঠান৷ তাদের আগামী ৫ই জুন আবার হাজির হতে বলা হয়েছে৷ তারা দু'জনই দেশের বাইরে রয়েছেন৷

প্রতিবেদন: হারুন উর রশীদ স্বপন, ঢাকা

সম্পাদনা: আব্দুল্লাহ আল-ফারূক

সংশ্লিষ্ট বিষয়