1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

সামরিক গোপন দলিল হস্তান্তরের দাবি পেন্টাগনের

আফগানিস্তান যুদ্ধ সম্পর্কিত বিপুল সংখ্যক গোপন সামরিক দলিল প্রকাশ করে আলোচিত উইকিলিক্স৷ এখনও তারা যে ১৫ হাজার গোপন দলিল প্রকাশ করেনি সেগুলো হস্তান্তরের দাবি জানালো পেন্টাগন৷

Website, Wikileaks, Afghanistan, USA, War,

সম্প্রতি প্রকাশিত ৭০ হাজার গোপন দলিলসহ উইকিলিক্সের পেজের অংশ

এছাড়া প্রকাশিত দলিলসমূহ মুছে ফেলারও দাবি তুলেছে মার্কিন প্রতিরক্ষা দপ্তর৷ সম্প্রতি ৭০ হাজার গোপন দলিল প্রকাশ করে বেশ হৈচৈ ফেলে দিয়েছে উইকিলিক্স৷ বিশ্লেষকরা মনে করেন, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের সামরিক ইতিহাসে এটিই গোপন দলিল ফাঁস হওয়ার সবচেয়ে বড় ঘটনা৷ মার্কিন প্রতিরক্ষা দপ্তরের আশঙ্কা, এই ঘটনা আফগানিস্তানে নিয়োজিত মার্কিন সৈন্য এবং তাদের সহযোগীদের জীবনকে আরো হুমকির দিকে ঠেলে দিয়েছে৷ ফলে এর মাধ্যমে উইকিলিক্স নিজেদের কলঙ্কিত করেছে৷

তবে উইকিলিক্স প্রতিষ্ঠাতা অস্ট্রেলিয়ার কম্পিউটার প্রোগ্রামার জুলিয়ান আসাঞ্জ বলছেন, তাদের কাছে আরো ১৫ হাজার গোপন দলিল রয়েছে৷ আর মূলত নিরপরাধ মানুষদের জীবন বাঁচাতেই সেগুলো এখনও প্রকাশ করা হয়নি৷ এই প্রেক্ষিতে পেন্টাগন উইকিলিক্সের কাছে দাবি তুলেছে অপ্রকাশিত দলিলসমূহ ফেরত দেওয়ার৷ এছাড়া উইকিলিক্স যেন প্রকাশিত দলিলসমূহ অনলাইন থেকে মুছে ফেলে৷ এসব গোপন দলিলের প্রকৃত মালিক মার্কিন সরকার বলে উল্লেখ করেন পেন্টাগন মুখপাত্র জিওফ মোরেল৷

তিনি বলেন, ‘‘আমরা তাদের সঠিক কাজটি করতে বলছি৷ আশা করি, তারা আমাদের দাবির প্রতি সম্মান জানাবে৷'' উইকিলিক্স যদি পেন্টাগনের এই দাবি না মানে, তবে প্রতিরক্ষা দপ্তর কি তাদের বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নেবে - সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নের উত্তরে কোন বিশেষ পদক্ষেপের কথা বলেননি মোরেল৷ তবে সেক্ষেত্রে বিষয়টি মার্কিন কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থা এফবিআই এবং বিচার দপ্তরই ঠিক করবে বলে মোরেল জানান৷

মোরেলের কথায়, ‘‘তাদের পক্ষে যদি সঠিক কাজটি করা সম্ভব না হয়, তবে তাদেরকে সঠিক কাজ করতে বাধ্য করার জন্য বিকল্পসমূহ আমরা ভেবে দেখবো৷'' মূলত আফগানিস্তান যুদ্ধে সম্ভাব্য অতিরিক্ত ক্ষয়ক্ষতি ঠেকাতেই পেন্টাগনের এই দাবি বলে উল্লেখ করেন মোরেল৷ মার্কিন পররাষ্ট্র দপ্তরের মুখপাত্র পি জে ক্রাউলিও এসব গোপন দলিল ফেরত দেওয়ার জন্য উইকিলিক্সের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন৷ উল্লেখ্য, গত ২৫ জুলাই এসব দলিল প্রকাশিত হওয়ার পর থেকেই ঘটনার তদন্তে কাজ চালিয়ে যাচ্ছে পেন্টাগন এবং এফবিআই৷

প্রতিবেদন: হোসাইন আব্দুল হাই

সম্পাদনা: রিয়াজুল ইসলাম

ইন্টারনেট লিংক