1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

খেলাধুলা

‘সাতটি পচা আপেল' নিয়ে তদন্ত করবে ক্যামেরুন

চূড়ান্ত হতাশার পর এখন দলের সাতজনের দিকে সন্দেহের আঙুল৷ এক থলে আপেলে অর্ধেকেরও বেশি পচা হলে যেমন লাগে, ক্যামেরুন দল নিয়ে ঠিক সেরকমই একটা অবস্থা দেশটির ফুটবল ফেডারেশনের৷

বিশ্বকাপে ক্যামেরুনের ম্যাচ পাতানো নিয়ে তাই তদন্তে নামছে তারা৷ ব্রাজিল বিশ্বকাপে সত্যিই হতাশা উপহার দিয়েছে ক্যামেরুন৷ মাঠে খেলোয়াড়দের মাঝে শৃঙ্খলার লেশমাত্র ছিল না৷ ক্রোয়েশিয়ার বিপক্ষে ম্যাচ চলার সময় নিজেদের মধ্যে প্রায় মারামারি শুরু করে দিয়েছিলেন ক্যামেরুনের দুই খেলোয়াড়৷ সমর্থকদের লজ্জায় ডোবানো এ ঘটনা দিয়েই সব শেষ হলে তবু কথা ছিল৷ সঙ্গে প্রিয় দলের বিরুদ্ধে ওঠা ম্যাচ পাতানোর অভিযোগের অস্বস্তিও মানতে হচ্ছে সমর্থকদের৷ ক্রোয়েশিয়ার বিপক্ষে ক্যামেরুন মাঠে নামার আগেই জার্মানির এক পত্রিকায় ছাপা হয়ে যায় সম্ভাব্য ফলাফল৷ সিঙ্গাপুরের এক বাজিকরের উদ্ধৃতি দিয়ে পত্রিকাটি লিখে দেয়, ম্যাচে ক্রোয়েশিয়া ৪-০ গোলে জিতবে এবং ক্যামেরুনের এক খেলোয়াড়কে লাল কার্ড দেখানো হবে৷

আশ্চর্যের বিষয় হলো, ঠিক ৪-০ গোলেই ক্রোয়েশিয়ার কাছে হেরে যায় ক্যামেরুন৷ ম্যাচের এক পর্যায়ে ক্রোয়েশিয়ার এক খেলোয়াড়ের পিঠে কনুই চালিয়ে লাল কার্ড দেখে মাঠ ছেড়ে যান অ্যালেক্স সং৷

নয় গোল খেয়ে একটা মাত্র গোল করা এবং তিন ম্যাচের সবগুলো হেরে গ্রুপ পর্ব থেকেই বিদায় নেয়া দল নিয়ে ক্যামেরুনের ফুটবল ফেডারেশন ‘ফেকাফুট'-ও পড়েছে অস্বস্তিতে৷ এক বিবৃতিতে ফেকাফুট জানিয়েছে, যাঁরা ম্যাচ পাতানোয় জড়িত বলে সন্দেহ করা হচ্ছে তাঁদের বিষয়ে তদন্ত করা হবে৷ ইতিমধ্যে তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে জানিয়ে বিবৃতিতে বলা হয়, ‘‘বিশ্বকাপে তিনটি ম্যাচ, বিশেষ করে ক্যামেরুন-ক্রোয়েশিয়া ম্যাচ এবং ‘দলে থাকা' সাতটি পচা আপেলকে নিয়ে শিগগিরই তদন্ত শুরু হবে৷'' জার্মানির পত্রিকার প্রতিবেদনে বলা হয়েছিল, ক্যামেরুন দলের সাতজন খেলোয়াড় ম্যাচ পাতানোয় জড়িত৷

সেই সাতজনকে ‘পচা আপেল' হিসেবে উল্লেখ করে ফেকাফুট জানায়, ক্যামেরুন গত ৫৫ বছরে কখনো ম্যাচ পাতানো সংক্রান্ত অভিযোগের কালোছায়ায় পড়েনি, এবারের অভিযোগ সত্যি হলে দোষীদের কেউ ক্ষমা পাবে না৷

মাঠে শৃঙ্খলা ভঙ্গ করা খেলোয়াড়রাও আসছেন শাস্তির আওতায়৷ সেক্ষেত্রে বেনোয়া আসু-একতো আর বেঞ্জামাঁ মুকঞ্জো-রও শাস্তি হওয়ার কথা৷ ক্রোয়েশিয়ার বিপক্ষে ম্যাচ চলার সময় বচসায় লিপ্ত হয়েছিলেন ক্যামেরুনের এই দুই খেলোয়াড়৷ এক পর্যায়ে বেঞ্জামাঁ-র বুকে ঢুঁশ মেরে বসেন বেনোয়া আসু-একতো! প্রতিপক্ষের সঙ্গে মারামারি, বিশ্বকাপ ফাইনালে ইটালির মাতেরাৎসির বুকে জিনেদিন জিদানের ঢুঁশ আগেই দেখেছে বিশ্বকাপ৷ ব্রাজিলে এবার সতীর্থের বুকে আরেক সতীর্থের ঢুঁশ মারাও দেখা হলো! আসু-একতো কী সাজা পান সেটাই এখন দেখার বিষয়৷

এসিবি/ডিজি (এপি, এএফপি)

নির্বাচিত প্রতিবেদন