1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিজ্ঞান পরিবেশ

সাক্ষী যখন মানুষ নয়, পোষা তোতা!

ভারতের উত্তরে তাজমহলখ্যাত আগ্রায় এক সাংবাদিকের স্ত্রীর রহস্যজনক মৃত্যুর কিনারা করতে রীতিমত হিমশিম খাচ্ছিল পুলিশ৷ ডিএনএ পরীক্ষা, গোয়েন্দাগিরি কিছুই কাজে দিচ্ছিল না ৷ শেষে পোষা পাখিই দিল খুনির সন্ধান৷

ঘটনাটি ঘটেছিল ২০ ফেব্রুয়ারি, আগ্রার বালকেশ্বর কলোনিতে৷ খুন হয়েছিলেন স্থানীয় হিন্দি পত্রিকার সম্পাদক বিজয় শর্মার স্ত্রী নিলম শর্মা৷ ঐ বাড়িতে দুটি পোষা প্রাণী ছিল৷ একটি কুকুর এবং অন্যটি তোতা পাখি৷ নিলম শর্মার সঙ্গে খুন হয় পোষা কুকুরটিও৷

প্রথমে কেউই তোতার আচরণ লক্ষ্য করেনি৷ প্রথম লক্ষ্য করেন বিজয় শর্মা নিজেই৷ তিনি দেখেন, বাড়িতে যখনই তাঁর ভাতিজা আশুতোষ ঢোকে তখনই তোতাটির আচরণ অস্বাভাবিক হয়ে ওঠে৷ বিজয় শর্মার ভাই অজয় শর্মাও জানান, যখনই আশুতোষ পাখিটির খাঁচার পাশ দিয়ে যায় তখনই এটি চিৎকার করতে থাকে৷ এই থেকেই তাঁদের মনে সন্দেহ হয়৷ এরপর তাঁরা একটি পদ্ধতি অবলম্বন করেন৷ পরিবারের সদস্যরা পাখিটির সামনে সন্দেহভাজন কয়েকজনের নাম উচ্চারণ করেন৷

অজয় জানান, যখন আশুতোষের নাম উচ্চারণ করা হয় তখন পাখিটি হিন্দিতে বলে ওঠে ‘উসনে মারা', ‘উসনে মারা', অর্থাৎ ও মেরেছে৷ এরপর পরিবারের সদস্যরা পুলিশকে বিষয়টি জানায়৷ তারা আশুতোষকে আটক করে এবং জিজ্ঞাসাবাদে আশুতোষ তার অপরাধ স্বীকার করে৷

আশু পুলিশকে জানায়, সে এবং তার বন্ধু রনি বিজয় শর্মার বাড়িতে ঢুকে নিলমকে ভয় দেখিয়ে টাকা-পয়সা ও অন্য মূল্যবান জিনিস দিতে বলে৷ পরে তাঁদের মনে প্রশ্ন জাগে যে, নিলম তাদের সম্পর্কে যদি পুলিশকে বলে দেয়? তাই আশুতোষ ছুড়ি দিয়ে উপর্যুপরি আঘাত করে হত্যা করে নিলমকে৷ এ সময় কুকুরটি চিৎকার করতে থাকলে তাকেও মেরে ফেলে তারা৷

মঙ্গলবার আশুতোষ ও রনি দু'জনকেই আটক করা হয় এবং তাদের বিরুদ্ধে হত্যা ও লুটপাটের অভিযোগ আনা হয়৷ পুলিশও স্বীকার করে যে, পোষা তোতা পাখির সহায়তা ছাড়া খুনিকে পাকড়াও করা খুব সহজ হতো না৷

তোতা সম্পর্কে কয়েক গুরুত্বপূর্ণ তথ্য

তোতা বা টিয়া মানুষের শব্দ উচ্চারণ করতে পারে, অর্থ বুঝতে পারে এবং অনেক শব্দ মনে রাখতে ও বাক্য তৈরি করতে পারে৷ ভালো মতো প্রশিক্ষণ দিলে তারা ছয় পর্যন্ত গুনতে পারে এবং অনেক জিনিস চিহ্নিত করতে পারে৷ এছাড়া তারা সহজ প্রশ্নের উত্তর দিতে পারে এবং তাদের ঠোঁটকে যন্ত্র হিসেবে ব্যবহার করতে পারে, যেমন ছবি আঁকার ক্ষেত্রে৷

Kakapo Vogel

পাখিটি হিন্দিতে বলে ওঠে ‘উসনে মারা', ‘উসনে মারা', অর্থাৎ ও মেরেছে

বাংলাদেশেও তোতা বিলুপ্তির পথে

মৌলভীবাজার জেলার লাউয়াছড়া জাতীয় উদ্যান বাংলাদেশে অবশিষ্ট চিরহরিৎ বনের একটি উল্লেখযোগ্য নমুনা৷ এটি একটি সংরক্ষিত বনাঞ্চল৷ এখানে রয়েছে বিভিন্ন প্রজাতির দুর্লভ জীবজন্তু, কীটপতঙ্গ এবং উদ্ভিদ৷ কিন্তু তোতা পাখিসহ এখানকার ২০ প্রজাতির বন্যপ্রাণী বিলুপ্ত হতে চলছে৷

জাতীয় উদ্যানের পাশের বিভিন্ন চা বাগানগুলোতে ক্ষতিকর কীটনাশক এবং ওষুধ প্রয়োগ এবং বন্যপ্রাণী সংরক্ষণে নিরাপদ অভয়াশ্রম না থাকায় এসব প্রাণী বিলুপ্ত হচ্ছে বলে সংশ্লিষ্টরা মনে করছেন৷

পরিবেশবাদী ও সচেতন মহলের ব্যাপক প্রতিবাদ সত্ত্বেও ২০০৮ সালে বহুজাতিক তেল-গ্যাস কোম্পানি শেভরন লাউয়াছড়া ও তার আশেপাশের বনভূমি এলাকায় ত্রিমাত্রিক অনুসন্ধান শুরু করে৷ ত্রিমাত্রিক অনুসন্ধানের জন্য বনের অভ্যন্তর ও আশপাশের এলাকায় নির্বিচারে বিস্ফোরণ ঘটানো হয়৷ এসময় বন এলাকায় সৃষ্ট ভূকম্পনে বন্যপ্রাণী আতঙ্কিত হয়ে পড়ে, বনের কয়েক জায়গায় আগুন ধরে যায়৷ পাশাপাশি জলবায়ু পরিবর্তনের প্রভাবে হারিয়ে হুমকির মুখে রয়েছে এলাকার জীববৈচিত্র্য৷

এপিবি/ডিজি (পিটিআই, উইকিপিডিয়া)

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়