1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

সমাজ সংস্কৃতি

সাঁতরে মহাদেশ পাড়ি দিয়ে পঙ্গুত্বকে জয় করতে চান ক্রোয়াজঁ

হাত নেই, পা নেই৷ তাতে কী ? ইচ্ছা এবং অদম্যশক্তির কাছে শারীরিক বাধাকে তুচ্ছ প্রমাণ করেছে ফ্রান্সের এক ব্যক্তি৷ ইতোমধ্যে সাঁতরে পাড়ি দিয়েছেন ইংলিশ চ্যানেল৷ এবার নিজেই নিয়েছেন এক চ্যালেঞ্জ৷ সাঁতরে পাড়ি দেবেন পাঁচটি সাগর৷

default

পাছাড়াই স্কি করাও সম্ভব!

ফিলিপ ক্রোয়াজঁর বয়স ৪৩ বছর৷ সতেরো বছর আগে এক দুর্ঘটনায় তিনি তাঁর হাত ও পা দুইই হারিয়েছেন৷ তবে প্রস্তুতি নেওয়া শুরু করেছেন শতশত কিলোমিটার সাঁতরে পাঁচটি মহাদেশের জলসীমা ছুঁয়ে যাওয়ার ৷

দুই সন্তানের জনক ক্রোয়াজঁ বলেন, আমার সাঁতার কেটে চ্যানেল পাড়ি দেওয়ার পর আমার মতো যারা আছেন তাঁদের মধ্যে আশার আলো জাগবে৷ আর সাঁতারের এই অভিযানে তাঁর সঙ্গী হতে পারেন দীর্ঘপথ সাঁতরে অতিক্রম করা চ্যাম্পিয়ন ৩৪ বছরের আরনো চাসেরি৷

সাঁতরে পাঁচ মহাদেশের জলসীমা অতিক্রম করার জন্য প্রথম রাউন্ডে তাঁরা পাপুয়া নিউগিনি এবং ইন্দোনেশিয়া সংলগ্ন প্রশান্ত মহাসাগরের ২০ কিলোমিটার জায়গাজুড়ে সাঁতার কাটবেন৷ যদিও এসময় এই দুই সাঁতারু মুখোমুখি হতে পারেন তীব্র স্রোত, হাঙর এবং বিষাক্ত জেলি ফিশের৷

সবকিছু যদি ঠিক থাকে তাহলে ক্রোয়াজঁ এবং তাঁর সহযাত্রী জুন মাসে আকাবা উপসাগর দিয়ে জর্ডান থেকে মিশরের উপকূলীয় এলাকার ২৫ কিলোমিটার জলপথ পাড়ি দেবেন৷ তার পরের মাসে এই দুই সাঁতারু আফ্রিকা থেকে জিব্রালটার প্রণালী হয়ে ইউরোপে উপস্থিত হবেন৷

সবচেয়ে চমক অপেক্ষা করছে আগস্টের শেষে৷ রাশিয়া হয়ে এশিয়া মহাদেশের জলপথে প্রবেশ করবেন তাঁরা৷ সেসময় প্রায় শূন্য ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রার সাগর পাড়ি দিতে হবে তাঁদের৷

১৯৯৪ সালে একটি বাড়ির ছাদ থেকে টেলিভিশনের অ্যান্টেনা খোলার চেষ্টা করতে গেলে ২০ হাজার ভোল্ট বিদ্যুতের চার্জে আহত হন ক্রোয়াজঁ৷ তারপর চিকিৎসকরা অপারেশন করে তাঁর হাত ও পা কেটে ফেলে৷ হাসপাতালে তিনি যখন ধীরে ধীরে সুস্থ হয়ে উঠছিলেন তখন একজন চ্যানেল সাতারুকে নিয়ে টেলিভিশনে একটি প্রামাণ্যচিত্র হচ্ছিল৷ তখনই মনের মধ্যে স্বপ্ন দানা বাঁধে৷ সাঁতার কাটার জন্য বিশেষ ফ্লিপারস ব্যবহার করে তিনিও একদিন পাড়ি দেবেন চ্যানেল৷

প্রতিবেদন: জান্নাতুল ফেরদৌস

সম্পাদনা: আব্দুল্লাহ আল-ফারূক