1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

‘সহিংস' কন্টেন্ট ঠেকাতে ৩,০০০ কর্মী নিয়োগ দিচ্ছে ফেসবুক

হত্যা বা ধর্ষণের মতো বিষয়ের লাইভ সম্প্রচার বন্ধে ব্যর্থ হওয়ায় সমালোচনার মুখে নতুন এক ঘোষণা দিয়েছে ফেসবুক৷ বিশ্বের সবচেয়ে বড় সামাজিক যোগাযোগ সাইটটি জানিয়েছে, আপত্তিকর কন্টেন্ট মনিটর করতে ৩,০০০ নতুন কর্মী নিয়োগ দেয়া হবে৷

বাড়তি ৩,০০০ কর্মী নিয়োগের ঘোষণাটি ফেসবুক দিয়েছে গত বুধবার৷ সাম্প্রতিক সময়ে হত্যা, আত্মহত্যা এমনকি ধর্ষণের মতো বিষয়াদি ফেসবুকে সরাসরি  সম্প্রচারের ঘটনা ঘটেছে, যা প্রতিষ্ঠানটির নীতিমালাবিরুদ্ধ হলেও তাৎক্ষণিকভাবে তা বন্ধের কোনো উদ্যোগ নেয়া হয়নি৷ কোনো কোনো ক্ষেত্রে সেগুলো পরে সরিয়ে ফেলতেও কয়েক ঘণ্টা সময় নিয়েছে ফেসবুক৷ ফলে বিশ্ব মিডিয়ায় বিষয়টির তীব্র সমালোচনা শুরু হয়৷

নতুন নিয়োগ প্রসঙ্গে ফেসবুকের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মার্ক সাকারবার্গ বলেন, ‘‘আমরা এসব কন্টেন্ট সম্পর্কে আরো সহজে রিপোর্ট করার ব্যবস্থা করছি যাতে দ্রুত পদক্ষেপ গ্রহণ সম্ভব হয়৷ এই পদক্ষেপ গ্রহণের মধ্যে কাউকে সহায়তার বিষয়টিও থাকতে পারে কিংবা পুরো কন্টেন্ট অপসারণ করাও হতে পারে৷''

আগামী বছর নাগাদ নতুন এই কর্মীদের নিয়োগ দেয়া হবে, যারা প্রতিষ্ঠানটির কমিউনিটি অপারেশন্স ডিপার্টমেন্টে ইতোমধ্যে কাজ করা ৪,৫০০ কর্মীর সঙ্গে কাজ করবেন৷ তবে লাইভ সম্প্রচার মনিটর করার পাশাপাশি ‘হেট স্পিচ' বা শিশু নিপীড়ন প্রতিরোধেও কাজ করবে বলে জানান সাকারবার্গ৷ তিনি আরো বলেন, ‘‘আমরা স্থানীয় বিভিন্ন কমিউনিটি ও আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সঙ্গে কাজ অব্যাহত রাখবো, কেননা, তারাই নিজের ক্ষতি করছে এমন কাউকে রক্ষার কিংবা অন্যের দ্বারা ঝুঁকির মুখে আছে, এমন কাউকে বাঁচাতে দ্রুত এগিয়ে আসতে পারেন৷''

ভিডিও দেখুন 00:20

মার্ক সাকারবার্গ ফেসবুকের ইতিবাচক দিক সম্পর্কে জানাতে গিয়ে সম্প্রতি আত্মহত্যা থেকে এক ব্যক্তিকে বাঁচাতে সক্ষম হওয়ার ঘটনাটি তুলে ধরেন৷ ফেসবুকে বিষয়টি ধরা পড়ার পর দ্রুত সহায়তা করা সম্ভব হয়েছিল সেই ব্যক্তিকে৷ আরেকটি ক্ষেত্রে অবশ্য চেষ্টা করেও আত্মহত্যাকারীকে বাঁচানো যায়নি, জানান তিনি৷

উল্লেখ্য, ফেসবুকের দ্রুত প্রসারের পাশাপাশি এতে প্রকাশিত আপত্তিকর কন্টেন্ট দ্রুত মুছে ফেলার বিষয়টি সামনে এসেছে৷ বিশেষ করে মার্কিন নির্বাচনের পর ফেসবুকের মাধ্যমে যাতে আর ভুয়া খবর ছড়িয়ে পড়তে না পারে সেজন্য কঠোর আইনের উদ্যোগ নিয়েছে বিভিন্ন দেশ৷ জার্মানির মন্ত্রিসভা সম্প্রতি এক খসড়া আইন অনুমোদন করেছে৷ সেখানে ফেসবুককে চারশ' কোটি টাকা পর্যন্ত জরিমানার সুযোগ রাখা হয়েছে৷

এআই/এসিবি (এএফপি, ডিপিএ, রয়টার্স)

নির্বাচিত প্রতিবেদন