1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

‘সরকার আসলে ক্ষমতা দীর্ঘায়িত করতে চায়’

আইনমন্ত্রী শফিক আহমেদ বলেন, জাতীয় সংসদ নির্বাচন সরকারের মেয়াদ পূর্তির আগে বা পরে করা যায়, পরে করলে সংসদ ভেঙে দিতে হবে৷ সংবিধান বিশেষজ্ঞ ড. শাহদীন মালিক বলেন সংবিধান অনুযায়ী সরকার মেয়াদের শেষ ৩ মাসেই নির্বাচন করতে হবে৷

বর্তমান মহাজোট সরকার পাঁচ বছর মেয়াদ পূর্ণ করে পরের ৩ মাসে (৯০ দিন) নির্বাচন করার কথা ভাবছে – সংবাদমাধ্যমে প্রকাশিত এমন খবর নিয়ে এখন তুমুল আলোচনা৷ কারণ, এর আগে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা একাধিকবার বলেছেন যে, মেয়াদের শেষ ৩ মাসের মধ্যেই নির্বাচন হবে৷

এই খবরের প্রতিক্রিয়ায় আইনমন্ত্রী ব্যারিস্টার শফিক আহমেদ বলেছেন, পঞ্চদশ সংশোধনী অনুযায়ী মেয়াদের শেষ ৩ মাসে আবার মেয়াদ শেষ হওয়ার পরের ৩ মাসে – এই দুই প্রক্রিয়াতেই নির্বাচন করা যায়৷ তবে মেয়াদের পরে করলে সংসদ ভেঙে দিতে হবে৷ আগে করলে অবশ্য সংসদ ভাঙার প্রয়োজন নেই৷ তিনি বলেন, নির্বাচনকালীন সরকার নিয়ে সংবিধান সংশোধনের কোনো পরিকল্পনা নেই সরকারের৷ সংবিধান অনুযায়ী অন্তর্বর্তী সরকার কেবল দৈনন্দিন কাজ করবে৷ নির্বাচনের সব দায়িত্ব এবং ক্ষমতা নির্বাচন কমিশনের৷

তবে সংবিধান বিশেষজ্ঞ ড. শাহদীন মালিক ডয়চে ভেলেকে বলেন, পঞ্চদশ সংশোধনী অনুযায়ী সরকারের মেয়াদ পূর্তির শেষ ৩ মাসেই নির্বাচন করতে হবে৷ মেয়াদ পূর্তির পরে নির্বাচন করার কোনো সুযোগ নাই৷ এছাড়া, মেয়াদ শেষ হওয়ার আগে যদি সংসদ ভেঙে যায় তাহলে সংসদ ভাঙার পরবর্তী ৩ মাসের মধ্যে নির্বাচন হবে৷ আর মেয়াদ শেষ হওয়ার পরের ৩ মাসে নির্বাচন করতে হলে সংবিধান সংশোধন করতে হবে৷ দলীয় স্বার্থে সংবিধান সংশোধন করলে তার পরিণতি ভালো হয় না বলেও মন্তব্য করেন তিনি৷ যেমন, চতুর্থ সংশোধনীর মাধ্যমে সরকারের মেয়াদ বাড়িয়েছিল আওয়ামী লীগ, যার পরিণতি ভালো হয়নি৷ আর বিএনপি চতুর্দশ সংশোধনীর মাধ্যমে বিচারপতিদের অবসরে যাওয়ার বয়স বাড়িয়ে নিজেদের স্বার্থ হাসিলের চেষ্টা করছে৷ তার পরিণতিও প্রশ্নসাপেক্ষ৷ তাই এবারও দলীয় স্বার্থে সংবিধান সংশোধন করলে তা কোনো শুভ ফল বয়ে আনবে না৷

এদিকে বিএনপির ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, ক্ষমতায় টিকে থাকতে এবং মেয়াদ বাড়াতে সরকার নানা ষড়যন্ত্র করছে৷ তারা সংবিধানে নানা অস্পষ্টতা রেখেছে৷ এর মধ্য দিয়ে তারা ক্ষমতা আরো দীর্ঘ করতে চায়৷ কিন্তু সরকারের এই ষড়যন্ত্র সফল হবে না, বলেন মির্জা ফখরুল৷

নির্বাচিত প্রতিবেদন