1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

সমাজ সংস্কৃতি

সরকারকে হুঁশিয়ারি দিলেন খালেদা জিয়া

আজ বাংলাদেশের পত্র-পত্রিকা জুড়ে আছে আসন্ন হরতাল প্রসঙ্গে বিরোধী দলীয় নেত্রী খালেদা জিয়ার মন্তব্য৷ অপরদিকে বিশেষ করে রাজধানী ঢাকায় নিরাপত্তা এবং বিভিন্ন নিষেধাজ্ঞার ব্যাপারটিও গুরুত্ব পেয়েছে৷

default

আবারও কি উত্তপ্ত হচ্ছে বাংলাদেশ? (ফাইল ছবি)

ইত্তেফাকের রিপোর্ট অনুযায়ী শুক্রবার রাজারবাগে এক সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশ কমিশনার এ কে এম শহিদুল হক৷ তাঁর সঙ্গে ছিলেন পুলিশের অপরাপর ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা৷ পুলিশ কমিশনার মন্তব্য করেন যে, প্রায় সাড়ে তিন বছর পর দেশে হরতাল আহ্বান করা হয়েছে৷ আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতির অবনতির আশঙ্কায় ডিএমপি বিশেষ উদ্যোগ নিয়েছে এবং তাৎক্ষণিক গ্রেপ্তারের নির্দেশও দেওয়া হয়েছে৷ পুলিশ কমিশনার আরো বলেন যে, হরতালের নামে কেউ বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করলে তাদের কঠোর হস্তে দমন এবং তাদের বিরুদ্ধে ফৌজদারি মামলা করে গ্রেপ্তার করা হবে৷ তিনি জানান যে, মিরপুর-এয়ারপোর্টসহ ভিআইপি সড়কে কোন ধরণের মিছিল, সমাবেশ ও পিকেটিং নিষিদ্ধ করা হয়েছে৷ এসব স্থানে কোন ধরণের মিছিল বের করা হলে এ্যাকশনে যাবে আইন প্রয়োগকারী সংস্থা৷

তবে শুধু বাধার কথাই বলেনি পুলিশ৷ জনকণ্ঠের বিবরণ অনুযায়ী পুলিশ কমিশনার রাজারবাগ পুলিশ টেলিকম সেন্টারে এ'ও বলেন যে, গণতান্ত্রিকভাবে হরতাল পালনে বাধা দেবে না পুলিশ, বরং সহযোগিতা করবে৷

নিহত শিশুর মা'র পরকীয়া

ছ'বছরের শিশু সামিউল'কে গত বৃহস্পতিবার মৃত অবস্থায় তার বাড়ির অদূরে পাওয়া যায়৷ তার পর পরই সামিউলের মা হুমায়রা এশা'কে গ্রেপ্তার করা হয়৷ তখনই নাকি হুমায়রা পরকীয়ার কথা স্বীকার করেন৷ সেই উপাদানটিকেই শীর্ষক করে হুমায়রা'র চারদিনের রিমান্ডের খবর দিয়েছে সমকাল৷ তাঁর স্বামী কে আর আজম রোজ নাকি আগে থেকেই স্ত্রীর পরকীয়ার কথা জানতেন৷ কিন্তু, সমকালের ভাষ্যে, ‘‘ফুটফুটে সন্তানটির মুখের দিকে চেয়ে স্ত্রীর প্রতি কোনো কঠোর সিদ্ধান্ত নিতে পারেননি আজম৷ দ্য ডেইলি স্টারের খবর অনুযায়ী পুলিশ সাতদিনের রিমান্ড চেয়েছিল৷ এদিকে হুমায়রা'র ফেরারি প্রেমিক শামসুজ্জামান আরিফের অনুসন্ধান চলেছে৷

বিশ্বকাপ

‘‘কাকাহীন নিয়মরক্ষার ম্যাচ - বিবর্ণ ব্রাজিল'', এই হল জনকণ্ঠের শীর্ষক৷ সমকালের শীর্ষক হল: ‘‘ব্রাজিল-পর্তুগাল ছন্দহারা ম্যাচ ড্র''৷ অপরদিকে সে ম্যাচে যে হলুদ কার্ডের ছড়াছড়ি ছিল, সেটাও নজর এড়ায়নি প্রতিবেদকের৷ কাজেই তাঁর মন্তব্য: ‘‘এ ম্যাচে জেতেনি কেউ৷ জিতেছে মেক্সিকান রেফারি বেনিতে আর্চুন্দিয়ার বাঁশি৷'' ভোরের কাগজের প্রতিবেদক ফিরে গেছেন ইতিহাসে, কিংবদন্তীর যুগে, যখন খেলার মাঠে পর্তুগালের ইউসেবিও'র সঙ্গে মোলাকাত হতো ব্রাজিলের পেলে'র৷ এবারও ছিল সেরকম ক্রিস্টিয়ানো রোনাল্ডো, কাকা'র মোলাকাতের প্রত্যাশা৷ কিন্তু কাকা'র লাল কার্ড ঘটিত অনুপস্থিতিতে তা ঘটেনি৷ ভোরের কাগজের প্রতিবেদক কিন্তু মনে করেন, যে ‘‘স্টেডিয়ামে শুরু থেকেই দু'দল আক্রমণাত্মক খেলায় মনোযোগী ছিল'' এবং ‘‘ম্যাচটি দেখে মনেই হচ্ছিল না কোনো আনুষ্ঠানিকতার ম্যাচ এটি৷''

প্রতিবেদন: অরুণ শঙ্কর চৌধুরী

সম্পাদনা: হোসাইন আব্দুল হাই

সংশ্লিষ্ট বিষয়