1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

সম্পন্ন হলো ইরাক যুদ্ধের আনুষ্ঠানিক সমাপ্তি

ইরাকে মার্কিন কমব্যাট বাহিনীর অভিযানের আনুষ্ঠানিক সমাপ্তি হলো মঙ্গলবার৷ এই গুরুত্বপূর্ণ মুহূর্তে বাগদাদে হাজির হন মার্কিন ভাইস-প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন৷ বৈঠক করেন ইরাকি নেতৃবৃন্দের সাথে৷

US, Army, Combat, Team, Iraq, ইরাক, যুদ্ধ, আনুষ্ঠানিক, সমাপ্তি

ফাইল ছবি

মার্কিন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামার প্রতিশ্রুত সময়ের মধ্যেই শেষ হলো ইরাক থেকে মার্কিন কমব্যাট বাহিনীর প্রত্যাবর্তন৷ ৩১ আগস্ট ইরাক থেকে সকল কমব্যাট সৈন্য দেশে ফেরত আনার ঘোষণা দিয়েছিলেন ওবামা৷ সেই ঘোষণা অনুযায়ী বেশ কয়েক মাস ধরেই চলছে সৈন্যদের ঘরে ফেরার পালা৷ তবে মঙ্গলবার আনুষ্ঠানিকভাবে এই প্রক্রিয়ার সমাপ্তি ঘটল৷ অবশ্য ইরাকের প্রতিরক্ষা বাহিনীর সদস্যদের প্রশিক্ষণ দেওয়ার লক্ষ্যে প্রায় ৫০ হাজার মার্কিন সেনা ইরাকে থাকবে৷ তবে তাদেরকেও দেশে ফিরিয়ে নেওয়া হবে ২০১১ সালের শেষ নাগাদ৷

মঙ্গলবার দিনটিকেই ধরে নেওয়া হচ্ছে ইরাকে মার্কিন নেতৃত্বাধীন যৌথ বাহিনীর দীর্ঘ যুদ্ধের সমাপ্তি দিবস হিসেবে৷ তাই এ উপলক্ষ্যে টেক্সাসের সেনা ঘাঁটিতে ইরাক থেকে ফিরে আসা সৈন্যদের সাথে সাক্ষাৎ করবেন ওবামা৷ এরপর ওভাল অফিস থেকে জাতির উদ্দেশ্যে ভাষণ দেবেন তিনি৷ এছাড়া ২০০৩ সালে মার্চ মাসে ইরাকের বিরুদ্ধে যুদ্ধ ঘোষণার নায়ক তৎকালীন মার্কিন প্রেসিডেন্ট জর্জ ডাব্লিউ বুশকে টেলিফোন করারও কথা রয়েছে ওবামার৷

ওবামার ভাষণের প্রাক্কালে তাঁর প্রধান মুখপাত্র রবার্ট গিবস বলেন, ‘‘আমরা সেসব নারী-পুরুষদের ধন্যবাদ জানাতে পারি যারা প্রভূত আত্মত্যাগ স্বীকার করেছেন৷'' ওবামার ভাষণ সম্পর্কে গিবস বলেন, ‘‘আজ রাতে আপনারা যা শুনতে পাবেন বলে আমি মনে করি, তা হলো দেশের ভেতরের নিরাপত্তা আরো বাড়াতে কী করণীয় এবং এর জন্য প্রয়োজনীয় পদক্ষেপসমূহ৷'' এর আগে এনবিসি টেলিভিশনকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে ইরাকের পরিস্থিতি সম্পর্কে বারাক ওবামা বলেন, ‘‘এখন সেখানে ক্রমান্বয়ে কম পরিমাণ সহিংসতা দেখা যাচ্ছে৷ ইরাকি নিরাপত্তা বাহিনীর সদস্যরা খুব বেশি উন্নতি না করলেও আমাদের প্রত্যাশার চেয়ে ভালো করছে৷''

এদিকে, এই ঐতিহাসিক মুহূর্তে বাগদাদে উড়ে গেছেন মার্কিন ভাইস-প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন৷ বৈঠক করলেন ইরাকি প্রেসিডেন্ট জালাল তালাবানি এবং প্রধানমন্ত্রী নুরি আল মালিকির সাথে৷ মার্কিন সৈন্য প্রত্যাহারের পর নিজেদের নিরাপত্তা সম্পর্কে মালিকি বলেন, ‘‘ইরাক একটি স্বাধীন এবং সার্বভৌম রাষ্ট্র৷ আমি নিশ্চিত করতে চাই যে, ইরাকি নিরাপত্তা বাহিনীর সদস্যরা নিজেদের দেশের নিরাপত্তার সম্পূর্ণ দায়িত্ব গ্রহণে সক্ষম৷ যদিও দুঃখজনকভাবে এ নিয়ে সন্দেহের জাল ছড়ানো হচ্ছে৷''

প্রতিবেদন: হোসাইন আব্দুল হাই

সম্পাদনা: সঞ্জীব বর্মন