1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

‘সমাবেশের অনুমতির পরও অব্যাহত উত্তেজনা'

প্রধান বিরোধী দল বিএনপিকে অবশেষে সমাবেশ করার অনুমতি দিয়েছে ঢাকা মেট্টোপলিটন পুলিশ৷ কিন্তু এতেও উত্তেজনা থামছে না৷ বিএনপি নেতাদের দাবি, তাঁরা সোহরাওয়ার্দি উদ্যানে নয় নয়াপল্টনে কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে সমাবেশ করতে চান৷

বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় বিএনপিকে সমাবেশ করার অনুমতি দেয়া হয়েছে ১৩টি ‘শর্তে'৷ পুলিশের এই অনুমতির মধ্য দিয়ে শুক্রবারকে ঘিরে মানুষের উত্তেজনা খানিকটা হলেও প্রশমিত হয়েছে৷ তবে তারপরও আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা এদিন সর্বোচ্চ সতর্ক অবস্থায় থাকবে৷ পুরো প্রস্তুতি নিয়ে মাঠে থাকবে পুলিশ৷

জানা গেছে, ইতিমধ্যেই রাজধানীতে নামানো হয়েছে ২০ ‘প্লাটুন' বডার গার্ড বাংলাদেশ বা বিজিবি৷ সমাবেশের অনুমতি পাওয়ার পরই বিএনপির একটি প্রতিনিধি দল পুলিশ কমিশনারের কার্যালয়ে হাজির হয়৷ বিরোধী দলীয় চিফ হুইপ জয়নুল আবেদীন ফারুকের নেতৃত্বে চার সদস্যের ঐ প্রতিনিধি দলে ছিলেন বরকতউল্লাহ বুলু এমপি, শহীদ উদ্দিন চৌধুরী অ্যানি এমপি ও আবুল খায়ের ভুঁইয়া এমপি৷

Police cordon the office of the main opposition party BNP in Naya Paltan, Dhaka, Bangladesh. Aufnahmeort: Dhaka, Afnahmedatum: 11.03.2012 Copyright: DW

মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মোফাজ্জেল হোসেন চৌধুরী মায়া ডয়চে ভেলেকে বলেন, সমাবেশের নামে বিএনপি-জামায়াতকে রাজপথে নৈরাজ্য করার কোনো সুযোগ দেয়া হবে না

বৈঠক শেষে বের হয়ে বরকতউল্লাহ বুলু ডয়চে ভেলেকে বলেন, ‘‘আমরা পুলিশ কমিশনারকে বলেছি, আইনের প্রতি আমরা শ্রদ্ধাশীল৷ কিন্তু এত অল্প সময়ের মধ্যে সোহরাওয়ার্দি উদ্যানে সমাবেশ করা সম্ভব নয়৷ মাইক লাগানো থেকে শুরু করে মঞ্চ তৈরি সব কিছুতেই সময় লাগবে৷ তাই আমরা নয়াপল্টন কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে সমাবেশের অনুমতি দেয়ার অনুরোধ জানিয়েছি৷ আশা করি, পুলিশ কমিশনার বিষয়টি বিবেচনা করবেন৷'' অনুমতি না পেলে বিএনপি কি করবে – এমন প্রশ্নের জবাবে বরকতউল্লাহ বুলু বলেন, ‘‘দলের মহাসচিব এ ব্যাপারে সিদ্ধান্ত দেবেন৷'' এর কিছুক্ষণ পর বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী আহমেদ দলীয় কার্যালয়ে এক ব্রিফিংয়ে বলেন যে, তাঁরা নয়াপল্টনেই সমাবেশ করবেন৷


বিএনপি নেতাদের সঙ্গে বৈঠকের পর এক ব্রিফিংয়ে পুলিশ কমিশনার বেনজির আহমেদ বলেন, ‘‘১৩টি শর্তে বিএনপিকে সোহরাওয়ার্দি উদ্যানে সমাবেশ করার অনুমতি দেয়া হয়েছে৷ কোনো শর্ত ভঙ্গ হলে তাত্‍ক্ষণিকভাবে তাদের সমাবেশের অনুমতি বাতিল করা হবে৷ আইন-শৃঙ্খলার বিঘ্ন ঘটে এমন কোনো কাজ তারা করতে পারবে না৷ এমনকি, সমাবেশে লাঠি-সোটা বা ধারালো কোনো অস্ত্র বহন করাও যাবে না৷ আইনের প্রতি শ্রদ্ধা দেখিয়ে বিএনপি সোহরাওয়ার্দি উদ্যানেই সমাবেশ করবে বলে আশা করেন তিনি৷ সমাবেশের স্থান বদল করার সুযোগ নেই৷'' এছা়ড়া, আওয়ামী লীগের অনুমতির বিষয়ে তিনি বলেন, ‘‘আওয়ামী লীগ প্রথমে সমাবেশের কথা বললেও পরে তারা বাতিল করেছে৷ নতুন করে তাদের কোনো আবেদন না পাওয়ায় বিষয়টি বিবেচনা করা হচ্ছে না৷ আবেদন করলে পরে বিষয়টি দেখা হবে৷''

Supporters of the main opposition Bangladesh Nationalist Party (BNP) and its alliance gather in front of their party office during a rally before a mass procession in Dhaka January 30, 2012. The BNP and its alliance rescheduled its mass procession demanding the restoration of the caretaker government system after police banned rallies and processions in the capital and four other cities on Saturday amid fears of violent clashes between the rival parties, local media reported. REUTERS/Andrew Biraj (BANGLADESH - Tags: POLITICS)

বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী আহমেদ দলীয় কার্যালয়ে এক ব্রিফিংয়ে বলেন যে, তাঁরা নয়াপল্টনেই সমাবেশ করবেন

এদিকে শুক্রবার আওয়ামী লীগ কোনো সমাবেশ করবে না৷ তবে আইনকে অগ্রাহ্য করে কেউ যাতে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করতে না পারে, সেজন্য ভোর থেকে সজাগ ও সতর্ক অবস্থানের মাধ্যমে মসজিদ, অলি-গলি, পাড়া-মহল্লাসহ পুরো রাজপথে দখলে রাখবে ঢাকা মহানগর আওয়ামী লীগ৷ বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মোফাজ্জেল হোসেন চৌধুরী মায়া ডয়চে ভেলেকে বলেন, সমাবেশের নামে বিএনপি-জামায়াতকে রাজপথে নৈরাজ্য করার কোনো সুযোগ দেয়া হবে না৷ রাজধানীতে কেউ অরাজকতা ও সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ড ঘটানোর চেষ্টা করলে জনগণকে সাথে নিয়ে তাদের গণধোলাই করে পুলিশের হাতে তুলে দিতে মহানগরীর ওয়ার্ড, ইউনিয়ন ও থানা শাখা দলীয় নেতা-কর্মীদের প্রতি নির্দেশ দেয়া হয়েছে৷

সমাবেশকে কেন্দ্র করে এহেন উত্তেজনাময় রাজনৈতিক পরিস্থিতিতে রাজধানীতে বিজিবি সদস্য নামানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার৷ বৃহস্পতিবার সচিবালয়ে নিজ দপ্তরে সাংবাদিকদের এ কথা জানান স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী অ্যাডভোকট শামসুল হক টুকু৷ তিনি বলেন, শুক্রবার যদি বিরোধী দল আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতির অবনতি ঘটাতে চায় এবং নাশকতার চেষ্টা করে, তবে আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী সর্বোচ্চ শক্তি দিয়ে তা প্রতিহত করবে৷

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়