1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

সমকামী অ্যাক্টিভিস্টদের খুনের ঘটনায় চাপে সরকার

বাংলাদেশের রাজধানী ঢাকায় সোমবার দুই সমকামী অ্যাক্টিভিস্টকে কুপিয়ে হত্যা করা হয়, যাদের একজন ইউএসএইড-এর কর্মকর্তা ছিলেন৷ এই ঘটনায় গোটা বিশ্বে নিন্দার ঝড় উঠেছে৷

কমপক্ষে ছয় দুর্বৃত্ত সেমবার সন্ধায় সমকামী অ্যাক্টিভিস্ট জুলহাস মান্নানের বাসায় প্রবেশ করে৷ এ সময় তাদের হাতে ছিল চাপাতি এবং আগ্নেয়াস্ত্র৷ কুরিয়ার সার্ভিসের সদস্যের বেশে প্রবেশের সময় তারা গেটের প্রহরীকে কুপিয়ে আহত করে৷ এরপর অ্যাপার্টমেন্টের মধ্যে কুপিয়ে হত্যা করা হয় মান্নান এবং তাঁর বন্ধু মাহবুব তনয়কে৷ মান্নান বাংলাদেশের একমাত্র সমকামীদের ম্যাগাজিন ‘রূপবানের' সম্পাদক ছিলেন৷ তাঁর মৃত্যুতে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে নিন্দার ঝড় ওঠে৷

মার্কিন প্রশাসন এই হত্যাকাণ্ডের সমালোচনা করে খুনিদের দ্রুত বিচারের আওতায় আনার দাবি করেছে৷ সেদেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রী জন কেরি টুইটারে শক্তভাষায় হত্যাকাণ্ডের নিন্দা জানিয়েছেন৷ পাশাপাশি হোয়াইট হাউস থেকেও খুনিদের বিচার দাবি করা হয়েছে৷

নিন্দা জানানোর পাশাপাশি অনেকে মান্নানের একটি ভিডিও শেয়ার করেছেন৷ নেপাল ভ্রমণের সময় করা ভিডিওটি থেকে নিহত অ্যাক্টিভিস্ট সম্পর্কে কিছুটা ধারণা পাওয়া যায়৷

প্রসঙ্গত, বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সাধারণত ব্লগার হত্যাকাণ্ডের নিন্দা জানান না৷ বরং কেউ ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত হানলে তাঁরও খারাপ লাগে এমন মন্তব্য করে সমালোচিত হয়েছেন তিনি৷ তবে জুলহাস মান্নান এবং তাঁর বন্ধুকে হত্যার ঘটনায় মন্তব্য করেছেন হাসিনা, জানিয়েছেন খুনিদের বিচারের আওতায় আনা হবে৷

উল্লেখ্য, বাংলাদেশে গতবছর খুন হন চার নাস্তিক ব্লগার এবং একজন সেক্যুলার প্রকাশক৷ ধর্মীয় উগ্রপন্থিরা এ সব হত্যাকাণ্ডের দায় স্বীকার করেছে৷ এরপর মাঝখানে কিছুদিন হত্যাকাণ্ড বন্ধ থাকলেও চলতি মাসে খুন হয়েছেন বিশ্ববিদ্যালয় অধ্যাপকসহ চার অ্যাক্টিভিস্ট, যাদের গতবছরের মতো একইভাবে কুপিয়ে হত্যা করা হয়েছে৷ মান্নান এবং তাঁর বন্ধুকে হত্যাকাণ্ডের দায় স্বীকার করেছে জঙ্গি গোষ্ঠী আনসারুল ইসলাম৷

আপনার কি কিছু বলার আছে? লিখুন নীচের মন্তব্যের ঘরে৷

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়