1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

সমাজ সংস্কৃতি

‘সমকামীদের উপেক্ষা করছে জার্মান সরকার’

অপেক্ষাকৃত কম বয়সি সমকামীরা সরকারের উপেক্ষার স্বীকার হচ্ছেন - এ অভিযোগ করলেন জার্মানির সবুজ দলের কাই গেরিং৷ আর এই জন্য তার মূল ক্ষোভ পরিবারমন্ত্রী ক্রিস্টিনা শ্রোয়েডারের ওপরই৷

Euro Pride gay parade

সমকামীদের প্যারেডে দুইজন নাচছে

বার্লিন আর কোলন - জার্মানিতে এই দুটি শহরকে বলা হয় সমকামীদের জন্য অনুকূল৷ এই জন্য শহর দুটিতে সমকামীর সংখ্যাও বেশি৷ সেখান থেকেই আসছে সমকামীদের ওপর নির্যাতনের খবর৷ এটা জানালেন দেশের লেসবিয়ান ও গে ফেডারেশনের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ইয়েট ক্লাউস ইয়েৎস৷ আর এই সবই ক্ষুব্ধ করেছে গেরিংকে৷ তাঁর দাবি, মধ্য ডানপন্থী সরকারের মন্ত্রী শ্রোয়েডার তরুণ সমকামীদের সুবিধা-অসুবিধার কোনো খবরই রাখছেন না৷ তিনি ডয়চে ভেলেকে বলেন, পাঁচ থেকে ১০ শতাংশ তরুণ বয়সির প্রতি মন্ত্রীর এই অবহেলা মেনে নেওয়া যায় না৷

সমকামীদের ওপর নির্যাতনের অভিযোগ তদন্তের জন্য মন্ত্রণালয়ের প্রতি আহ্বান রেখেছিলেন গেরিং৷ তবে সাড়া না পেয়ে হতাশ তিনি৷ জার্মান সবুজ দলের সাংসদ গেরিং বলেন, সমকামীদের ওপর নির্যাতনই শুধু হচ্ছে না, বঞ্চনা থেকে অনেকে আত্মহত্যাও করছে৷ অথচ মন্ত্রণালয় বলছে, এই ধরনের আত্মহত্যার কোনো ঘটনাই তাদের নজরে আসেনি৷

Christopher Street Day Parade

সমকামী এক জুটি

সমকামীবিদ্বেষ নির্মূলে সবুজ দলের পুরনো দাবিগুলোই আবার তুলে ধরলেন গেরিং৷ তিনি বললেন, সমকামীদের চাওয়া-পাওয়ার দিকে নজর দিতে হবে৷ তাদের প্রতি বিদ্বেষমূলক আচরণ যেন না হয়, সেজন্য জনসচেতনতা তৈরি করতে হবে৷ একটা পরিকল্পনা ধরে এগোতে হবে৷

সমকামীদের অধিকারের বিষয়ে জার্মানি বেশ সচেতন৷ তবে তারপরই বেশ কিছু প্রতিবন্ধকতা আছে বলে দাবি করলেন গে ফেডারেশনের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ইয়েৎস৷ তিনি ডয়চে ভেলেকে বলেন, সমাজ এখনো তাদের মেনে নিতে পারছে না৷ ইয়েৎসের মতে, সমকামীদের নিগ্রহের শুরুটা হয় স্কুলে৷ তাই পাঠ্যসূচিতে এই বিষয়টি অন্তর্ভুক্ত করা উচিত৷ তাহলে ছেলেবেলাতেই সবার সমকামীদের প্রতি সহানুভূতি তৈরি হবে৷ এছাড়া বর্ণবাদবিরোধী মনোভাব তৈরিতে যেভাবে পরিকল্পনা ধরে এগোনো হয়েছে, একই কাজটি এক্ষেত্রেও করতে হবে৷ ইয়েৎস জানালেন, বড় কয়েকটি শহরে অল্প বয়সি সমকামীদের পরামর্শ দেওয়ার ব্যবস্থা থাকলেও দেশের বেশিরভাগ এলাকায়ই তা নেই৷

সমকামীদের বিষয়ে আরো মনোযোগী হতে কেন্দ্রীয় ও রাজ্য সরকারগুলোর প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন গেরিং ও ইয়েৎস উভয়ই৷ দুজনেই আশা করছেন, সেদিন খুব দূরে নয়, যেদিন সমকামীদেরও অন্য চোখে না দেখে সবাই বন্ধু ভাবতে পারবে৷ হবে তাদের দুঃখ-বেদনার অংশীদার৷

প্রতিবেদন: মনিরুল ইসলাম

সম্পাদনা: আব্দুল্লাহ আল-ফারূক