1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

সমাজ সংস্কৃতি

‘সমকামীদের উচিত শিক্ষা দেয়া উচিত’

পাকিস্তানের এক ‘সিরিয়াল কিলার’ মোহাম্মদ ইজাজ সমকামীদের শিক্ষা দিতে তিন ব্যক্তিকে হত্যা করেছে৷ সম্প্রতি পুলিশ তাকে গ্রেপ্তার করার পর সে জানায়, সমকামীদের উচিত শিক্ষা দিতেই নাকি সে হত্যা করেছে তাদের৷

default

কারাগারে আটক ‘সিরিয়াল কিলার’ মোহাম্মদ ইজাজ

দুই সন্তানের জনক ২৮ বছর বয়সি ইজাজ স্বীকার করেছে যে, সে তিনজন সমকামীকে নির্মম ভাবে হত্যা করেছে৷ কারণ সে সমকামী রূপী শয়তানদের একটি বার্তা পৌঁছে দিতে চায়৷ যদিও পুলিশ বলছে তিনটি হত্যাকাণ্ডের আগে সে ঐ ব্যক্তিদের সাথে যৌন সম্পর্ক স্থাপন করেছে৷

লাহোরের পূর্বাঞ্চলে যেখানে সমকামী সম্প্রদায় বেশি, সেখানে তাঁদের মধ্যে এই ঘটনায় আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়েছে৷ কারণ তাঁদের ধারণা, ইসলাম ধর্ম্বালম্বী কট্টরপন্থিরা হয়ত ইজাজকে ‘হিরো' হিসেবে আখ্যা দেবেন৷ পাকিস্তানে সমকামিতা শাস্তিযোগ্য অপরাধ এবং এর জন্য ১০ বছরের কারাদণ্ডের বিধান রয়েছে৷

রবিবার রাতে প্রিজন সেলে সংবাদ সংস্থা এএফপি-র সাংবাদিককে ইজাজ বলেন, সমাজে যেসব অনাচার চলছে তা বন্ধ করার উদ্যোগ নিয়েছে সে৷ আর সেজন্যই তাঁদের হত্যা করেছে৷ সে এও বলেছে যে, তার পথটি ঠিক নয়৷ এটা খুবই দুঃখের যে অনেকে তাঁদের প্রিয়জনকে হারিয়েছেন৷ কিন্তু সমকামীরা সমাজে অনাচার ছড়িয়ে দিচ্ছিল এবং তাই তার মনে হয়েছে এটা বন্ধ করা উচিত৷

পুলিশ অফিসার আসাদ সরফরাজ এ সব হত্যাকাণ্ডের তদন্ত দলের প্রধান৷ তিনি জানান, খুন তিনটি এ বছরের মার্চ ও এপ্রিল মাসে হয়েছে৷ এঁদের মধ্যে একজন মধ্যবয়স্ক অবসরপ্রাপ্ত মেজর এবং অন্য দু'জনের বয়স ২৫ থেকে ৩০-এর মধ্যে৷ তিনজনেরই ঘাড় ভাঙা ছিল৷ নিহতদের মোবাইল ফোন থেকে তারা ইজাজের ফোন নম্বরও উদ্ধার করে৷

ইজাজ পুলিশকে জানিয়েছে, দুই মাস আগে সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে সমকামীদের সাথে যোগাযোগ শুরু করে সে এবং দেখতে পায় যে, লাহোরে প্রচুর সমকামী রয়েছে৷ তারা একটা ভয়ঙ্কর রোগের মতো এটাকে সবার মধ্যে ছড়িয়ে দিচ্ছে বলে জানায় সে৷

ইজাজ জানায়, তার বয়স যখন ১০ বছর, তখন তার চেয়ে বেশ বড় একটি ছেলে তার ওপর যৌন হয়রানি করেছিল৷ শৈশবের সেই অভিজ্ঞতা পরবর্তী জীবনে তাকে অসুখী করে তোলে৷ তখন থেকে সে এই ধরনের ব্যক্তিদের ঘৃণা করতে শুরু করে৷ তবে সমকামী সম্প্রদায়ের একজন দাবি করেন যে, বেশ কয়েক মাস ধরেই সমকামীদের সাথে চলাফেরা এবং তাদের সাথে দৈহিক সম্পর্কেও লিপ্ত হয়েছিল ইজাজ৷

এপিবি/ডিজি (এপি, এএফপি)

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়