1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

সমাজ সংস্কৃতি

সব সমস্যার মূলে কুকুরের মলত্যাগ!

অ্যামেরিকাকে নানান কারণেই আজব একটা দেশ বলে থাকেন অনেকেই৷ এবার সেখানেই ঘটলো আরোও একটি আজব কাণ্ড৷ কুকুরের মলত্যাগ করা নিয়ে নিজেদের মধ্যে গোলাগুলি করেছেন দুই প্রতিবেশী৷

default

ঘটনাটা ঘটেছে মিসিসিপি রাজ্যে৷ সেখানকার একটি গ্রামে পাশাপাশি থাকেন জেরি ব্লাসিঙ্গেম ও টেরি টেহনেট৷ একদিন ব্লাসিঙ্গেমের পালিত কুকুর প্রকৃতির ডাকে সাড়া দিতে চলে যান টেহনেটের বাড়ির সামনের সবুজ সুন্দর বাগানে৷ হয়তো জায়গাটা পছন্দ হয়েছে বলেই!

কিন্তু বেচারা কুকুর তো আর জানে না কী ভুলটাই না সে করেছে৷ যার খেসারতে মালিককে গালমন্দ শুনতে হয়েছে৷ অর্থাৎ টেহনেট বিচার নিয়ে ছুটে যান ব্লাসিঙ্গেমের কাছে৷ তাতেই শুরু হয় রেষারেষি৷ এক পর্যায়ে একজন গুলি করেন আরেক জনকে৷ অন্যজনও থেমে না থেকে তিনিও বের করেন পিস্তল৷ করেন গুলি৷ ফলাফল, দুজনই আহত৷

তবে এখানেই শেষ নয়৷ বিষয়টা গড়ায় আদালত পর্যন্ত৷ সেখানে দুই প্রতিবেশীই একে অপরকে দোষারোপ করেন আগে গুলি চালানোর জন্য৷ শেষে সুরাহা করতে না পেরে আদালত শুনিয়েছেন নীতিবাক্য ‘‘বাড়ি ও সম্পত্তির মালিকদের একে অপরকে সম্মান দেখানো প্রয়োজন৷ কুকুর যদি কারও বাড়িতে মলত্যাগ করে তাহলে আইন নিজের হাতে তুলে না নিয়ে পুলিশকে খবর দেয়াই উত্তম৷''

প্রতিবেদন: জাহিদুল হক

সম্পাদনা: হোসাইন আব্দুল হাই

সংশ্লিষ্ট বিষয়