1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

ভারত

সবেতন মাতৃত্বকালীন ছুটির মেয়াদ হলো ২৬ সপ্তাহ

এতদিন মাতৃত্বকালীন ছুটির মেয়াদ ছিল ১২ সপ্তাহ, যা বেড়ে হলো ২৬ সপ্তাহ৷ শুক্রবার আইনসভায় পাস হয় সংশোধনী বিলটি৷ নতুন আইন অনুযায়ী, ১০ বা তার বেশি সংখ্যক কর্মী রয়েছে যে সব সংস্থায়, তাদের ক্ষেত্রে এই আইন প্রযোজ্য হবে৷

ভারতীয় নারীদের আরও বেশি সুবিধা দেওয়ার লক্ষ্যে লোকসভায় পাস হয়েছে ‘‌সংশোধিত মাতৃত্বকালীন সুবিধা বিল, ২০১৬'৷ নতুন আইন চালু হলে দেশে অন্তত ১৮ লক্ষ কর্মরত নারীর সুবিধা হবে৷ গতবছরের আগস্ট মাসেই এই বিল রাজ্যসভায় পাশ হয়ে গিয়েছিল৷ তবে নতুন আইন অনুসারে, শুধুমাত্র প্রথম দুই সন্তানের জন্মের সময়ই এই সুবিধা পাওয়া যাবে৷ তৃতীয় সন্তানের ক্ষেত্রে এই ছুটির মেয়াদ ১২ সপ্তাহই থাকবে৷

এই আইন পাশের ফলে সবেতন মাতৃত্বকালীন ছুটির মেয়াদের দিক থেকে তৃতীয় স্থানে উঠে এলো ভারত৷ ক্যানাডায় হবু মায়েদের ৫০ সপ্তাহ ও নরওয়েতে ৪৪ সপ্তাহ সবেতন ছুটি পাওয়ার অনুমোদন রয়েছে৷ ভারতের মতো দেশে মহিলাদের সুবিধার্থে মাতৃত্বকালীন সুবিধা-‌সংক্রান্ত বিলটি পাস হওয়ায় নিজেকে গর্বিত মনে করেছেন দেশের নারী ও শিশুকল্যাণ বিষয়ক মন্ত্রী মানেকা গান্ধী৷

তবে ভারতীয় সংসদে মাতৃত্বকালীন ছুটি বিষয়ক বিলটি পাস হওয়ার আগে বিরোধী রাজনৈতিক দলগুলি পিতৃত্বকালীন ছুটি ও অসংগঠিত ক্ষেত্রের নারীদের জন্য মাতৃত্বকালীন ছুটি নিয়ে সরব হয়৷

এই প্রসঙ্গে তৃণমূল কংগ্রেসের সাংসদ কাকলি ঘোষদস্তিদার বলেন, ‘‌‘গৃহস্থালির কাজকর্ম করা মহিলা, কৃষি ও খনি শ্রমিকদেরও এই বিলের আওতায় আনা উচিত৷'‌'‌ একই দাবি তোলেন তৃণমূল সাংসদ রত্না দে নাগ৷

দাবি ওঠে, এই ছ'মাসের মাতৃত্বকালীন ছুটি নারীদের সুবিধে অনুযায়ী পাওয়া উচিত৷ লোকসভায় বহু প্রতীক্ষিত এই বিলটি নিয়ে আলোচনার সময়ই পিতৃত্বকালীন ছুটির দাবিতেও ঝড় ওঠে৷ রাজ্যসভাতেও আগে একই দাবি উঠেছিল৷ তাৎপর্যপূর্ণভাবে এদিন প্রায় সব নারী সাংসদই পুরুষদের সুযোগ দেওয়ার পক্ষে সরব হন৷

‌আসামের শিলচরের কংগ্রেস সাংসদ সুস্মিতা দেব প্রশ্ন তোলেন, ‘‌‘‌পুরুষদের ক্ষেত্রে যদি শিশু দত্তক নেওয়ার সুযোগ থাকে, তাহলে পুরুষদের পিতৃত্বকালীন ছুটির সুযোগ থেকে বঞ্চিত রাখা হবে কেন?'‌'‌

ভারতের তথ্য ও সংস্কৃতি মন্ত্রক আন্তর্জাতিক নারী দিবসের পরদিন মাতৃত্বকালীন সুবিধা-‌সংক্রান্ত এই বিল পাস হওয়ায় সমস্ত রাজনৈতিক দলকে ধন্যবাদ জানানোর পাশাপাশি মহিলাদের শুভেচ্ছা জ্ঞাপন করেছে৷ ‌এমনকি এই বিলের কয়েকটি সুবিধা টুইটারেও তুলে ধরেছে তারা৷

বন্ধু, পুরুষদেরো কি পিতৃত্বকালীন ছুটির সুযোগ পাওয়া উচিত? জানান আমাদের, লিখুন নীচের ঘরে৷

নির্বাচিত প্রতিবেদন