1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

‘সত্যিকারের ইসলাম একটি নয়'

আইএস এবং তালিবানের মতো তথাকথিত ইসলামি জঙ্গি সংগঠনগুলো দাবি করে যে, তারা ‘সত্যিকারের ইসলাম' কায়েম করবে৷ অক্সফোর্ডের ইসলামি চিন্তাবিদ সাঈদ নোমানুল হক মনে করেন, জঙ্গিদলগুলো যা করছে তা ইসলাম সমর্থন করে না৷

সত্যিকারের ইসলাম আসলে কেমন? ডয়চে ভেলেকে দেয়া সাক্ষাৎকারে অক্সফোর্ড ইউনিভার্সিটি প্রেস স্টাডিজের জেনারেল এডিটর সাঈদ নোমানুল হক বলেন, ‘‘এটা খুব মজার প্রশ্ন৷ আমাদের মনে রাখা উচিত, ইসলামে চার্চের মতো কোনো প্রতিষ্ঠান নেই, সুতরাং প্রাতিষ্ঠানিকভাবে ইসলামের যাবতীয় ব্যাখ্যা সর্বজনগ্রাহ্য করে প্রচার করার সুযোগ কোনো প্রতিষ্ঠানের নেই৷ সে কারণে ইসলামে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ হয়ে দাঁড়ায় জনমত৷ তাছাড়া এ কথাও মনে রাখা দরকার যে, আল-কোরআনে শুধু কিছু নিয়মই লিপিবদ্ধ করা হয়নি, (ইসলামের এই পবিত্র) গ্রন্থটি বিধিনিষেধ নিয়েই রচিত- তা-ও নয়৷ '' তিনি আরো বলেন, শরিয়াও মানুষের সৃষ্টি৷ তাই এর কিছু বিষয় নিয়ে মুসলমানদের মধ্যেও মতবিরোধ আছে৷

অনেকেই বলেন, ইসলামিক স্টেট বা আইএস-এর সঙ্গে ইসলামের কোনো সম্পর্ক নেই৷ কথাটা কি ঠিক? এ প্রসঙ্গে সাঈদ নোমানুল হকের অভিমত, ‘‘তারা (আইএস) কোরআন, হাদিসের কথা বলে৷ আমার মনে হয় তারা যেভাবে সব কিছুর সমাধান করতে চায় সেদিকে নজর দেয়াই উত্তম৷

চিন্তাবিদ সাঈদ নোমানুল হকের ছবি

অক্সফোর্ডের ইসলামি চিন্তাবিদ সাঈদ নোমানুল হক

আমরা যদি বিশ্বাস করি, নিরপরাধ শিশু হত্যা ইসলাম সমর্থন করে না, তাহলে (ইসলামিক স্টেট) ওদের সঙ্গে ইসলামের সম্পর্ক আছে কিনা এ বিষয় নিয়ে বিতর্কেরই তো দরকার পড়ে না৷''

দীর্ঘ সাক্ষাৎকারে কয়েকটি মুসলিম প্রধান দেশে উগ্র জঙ্গিবাদের উত্থানের বিষয়টি নিয়েও কথা বলেছেন সাঈদ নোমানুল হক৷ দক্ষিণ এশিয়ার মুসলমানরা যেভাবে ইসলাম পালন করেন তার সঙ্গে সৌদি ওয়াহাবি বা সালাফিজম নির্দেশিত ইসলামের বড় রকমের পার্থক্য দেখতে পান শিক্ষাবিদ ও ইসলামি চিন্তাবিদ সাঈদ নোমানুল হক৷ তাঁর মতে, ‘‘সুফিরা যে ভূমিকা পালন করেছেন সেটা ছাড়া দক্ষিণ এশিয়ায় ইসলাম ছড়াতে পারতো না৷ সুফিরা আইন এবং রাজনীতির বিষয়গুলোকে বেশি গুরুত্ব দেননি৷ আবার ইসলামের মূল নীতির প্রশ্নে কোনো আপোষও করেননি৷ তবে ইসলাম ব্যাখ্যায় তাঁরা ছিলেন মানবিক৷ কৌশলটা খুব ভালো ছিল তাঁদের৷ অমুসলিমদের কিছু রীতি-নীতি তাঁরা মেনে নিতেন এই ভেবে যে একদিন অমুসলিমরাও তাঁদের কাতারে আসবে৷''

নির্বাচিত প্রতিবেদন