1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

পাঠক ভাবনা

‘সত্যিই, একেবারে অবিশ্বাস্য লাগলো’

‘কুকুরের রক্তে জীবন ফিরে পেল বিড়াল’ লেখাটি পড়ে খুব আনন্দ পেলাম৷ আমি জানতাম একই প্রজাতির সদস্য না হলে ব্লাড ট্রান্সফিউশন করা যায় না৷ আর একই প্রজাতির হলেও, গ্রুপ মিললে একমাত্র তবেই একজনের রক্ত অপরজনকে দেওয়া যায়৷

তাই আজকের খবরটি বেশ অবাক করেছে আমাকে৷ এখন মনে হচ্ছে, যদি কুকুরের রক্ত দিয়ে বেড়ালকে বাঁচানো যায়, তাহলে মনুষ্যেতর কোনও প্রাণীর রক্ত দিয়ে মানুষকেও তো বাঁচানো যেতে পারে৷ কোন প্রাণীর রক্ত মানুষের শরীর গ্রহণ করতে পারে এ বিষয়ে এবার গবেষণা হওয়া দরকার৷ আজ কেট হেলার এক নতুন পথ দেখালেন৷ এই পথে হেঁটে আগামীদিনে অন্য কোনও প্রাণীর অঙ্গপ্রত্যঙ্গ যে মানবদেহে প্রতিস্থাপন করা যাবে না, তাই বা কে বলতে পারে? আপনাদের জানাই ধন্যবাদ এত সুন্দর একটি লেখার জন্য৷ প্রণাম নেবেন৷ অন্বেজা মাজি, শিং ভাঙা মোড়, গঙ্গাজলঘাটী, বাঁকুড়া থেকে এই ই-মেলটি পাঠিয়েছেন৷

ওয়েবসাইটের প্রতিবেদনগুলো পড়তে গিয়ে হঠাৎ নজরে পড়লো যে ইউটিউবেও এখন হাজির ডয়চে ভেলের বাংলা বিভাগ, চমকে গেলাম৷ আর দেরি না করে ইউটিউব চ্যানেলের লিংক ওপেন করে দেখে নিলাম ১৩টি ‘আপলোডেড' ভিডিও থেকে বেশ কয়েকটি প্রতিবেদন৷ অবশ্যই এটি একটি প্রশংসনীয় প্রয়াস৷ সুভাষ চক্রবর্তী, নতুন দিল্লি, ভারত থেকে পাঠিয়েছেন এই ই-মেলটি৷