1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

সংসদে বাজেট পেশ, পদ্মা সেতুর জন্য বরাদ্দ

শেষ পর্যন্ত নিজস্ব অর্থায়নেই পদ্মা সেতু নির্মাণ করতে যাচ্ছে সরকার৷ আওয়ামী লীগের নির্বাচনী ইশতাহারের অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ পদ্মা সেতু নির্মাণের জন্য বৃহস্পতিবার ঘোষিত বাজেটে বড় অংকের টাকা বরাদ্দ রাখা হয়েছে৷

প্রত্যেক বছরের মতো এবারো বেড়েছে বাজেটের আকার৷ ২০১৩-১৪ অর্থবছরের জন্য প্রস্তাব করতে যাওয়া দেশের ৪৩তম এ বাজেটের আকার হচ্ছে ২ লাখ ২২ হাজার ৫০০ কোটি টাকা৷ স্বাধীনতার পর ১৯৭২ সালে বাংলাদেশের প্রথম বাজেট ঘোষণা করেন তত্‍কালীন অর্থমন্ত্রী তাজউদ্দীন আহমেদ৷ ঐতিহাসিক এ বাজেটে মোট বরাদ্দ ছিল ৭৮৬ কোটি টাকা৷ এরপর প্রতিবারই বেড়েছে বাজেটের আকার৷ ১৯৭৪ সালে তৃতীয় বাজেটের আকার ১ হাজার কোটি টাকা ছাড়ায়৷ এদিকে প্রধান বিরোধী দল বিএনপির সংসদ সদস্যরা বাজেট উপস্থাপনের সময় সংসদে উপস্থিত ছিলেন না৷ বাজেট উপস্থাপন শেষেও তাত্‍ক্ষনিকভাবেও তাঁরা কোন প্রতিক্রিয়া দেননি৷

তবে বাজেট ঘোষণার পরই ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের নেতারা এই বাজেটকে ইতিবাচক আখ্যায়িত করে বলছেন, এটা নির্বাচনী বাজেট নয়, উন্নয়নের বাজেট৷ তাঁরা বলেন, বিএনপি-জামায়াত ও হেফাজতে ইসলামের দেশব্যাপী ব্যাপক সহিংসতা এবং নৈরাজ্যকে পাশ কাটিয়ে একটা উন্নয়নের বাজেট উপস্থাপন করা হয়েছে৷ বাজেটে কালো টাকা সাদা করার সুযোগকেও স্বাগত জানিয়েছেন আওয়ামী লীগ নেতারা৷ বাজেট প্রতিক্রিয়ায় আওয়ামী লীগের সভাপতি মণ্ডলীর সদস্য মোহাম্মদ নাসিম বলেন, এই বাজেট খুবই ইতিবাচক বাজেট৷ এটা নির্বাচনী বাজেট না৷ বিশ্বের সাথে তাল মিলিয়ে একটা ভালো বাজেট দেওয়া হয়েছে৷ তিনি আরও বলেন, রাজস্ব পূরণ করা হয়তো সরকারের জন্য একটু চ্যালেঞ্জিং হবে৷ বিশ্ব মন্দার কারণে কর্মসংস্থানের জায়গা সৃষ্টি করা কঠিন৷

r. Abul Mal Abdul Muhit is the Finance minister of Bangladesh Government.

অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আব্দুল মুহিত

বাজেটকে গণমুখী আখ্যায়িত করে আওয়ামী লীগের উপদেষ্টামণ্ডলীর আরেক সদস্য আমির হোসেন আমু বলেন, এ বাজেটে বৃহত্তর জনগোষ্ঠীর আশা-আকাঙ্ক্ষার প্রতিফলিত হয়েছে৷ তিনি বলেন, স্বাধীনতা বিরোধী ও জঙ্গীবাদের দোসরদের প্ররোচনায় দেশে নানাবিধ সংকট সৃষ্টির পরও সরকার একটি উন্নয়ন ও জনকল্যানমুখি বাজেট উপহার দিতে পেরেছে৷ আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুব উল আলম হানিফ বলেন, চলতি অর্থবছর অর্থনীতির সূচকই সঠিকভাবে চলছে৷ যারা এ বাজেট নিয়ে সমালোচনা করছেন-তারা মূলত দেশের মঙ্গল চায় না৷ মহাজোট সরকারের এ বাজেট কল্যাণমুখী৷ এ বাজেটে নিম্ন আয়ের মানুষ উপকৃত হবে৷

পদ্মা সেতু প্রসঙ্গে বাজেট বক্তৃতায় অর্থমন্ত্রী বলেন, ‘‘আমাদের সরকারের একটি অন্যতম অগ্রাধিকার প্রাপ্ত উন্নয়ন প্রকল্প পদ্মা বহুমুখী সেতু নির্মাণ৷ নানা কারণে আমরা প্রকল্প বাস্তবায়নের যে নির্ঘণ্ট প্রণয়ন করি, তা বিশ্বব্যাংকের নির্ঘণ্টের সঙ্গে সামঞ্জস্য ছিল না৷ আমরা এই প্রকল্পে অধিকতর বিলম্ব পরিহারের জন্য নিজস্ব অর্থায়নে এর প্রাথমিক কাজ শুরু করেছি৷''

তিনি আরও বলেন, ‘‘পদ্মাসেতুতে বিশ্ব ব্যাংকের অভিযোগ প্রমাণ বা খণ্ডনে এবং ক্যানাডার মামলাও শেষ হতে আরো অনেক সময় লাগবে৷ সেজন্য আমাদের অপেক্ষা করা অনুচিত৷ আমাদের প্রত্যাশা দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক) এই মামলাটির দ্রুত রহস্য উদ্ঘাটন করবে৷'' তিনি বলেন, ‘‘এই প্রকল্পের জন্য ভারতের অনুদান ২০ কোটি ডলার আমরা ব্যবহার করবো৷ আমি এও আশা করছি যে, এই প্রকল্পের জন্য ইসলামিক উন্নয়ন ব্যাংক (আইডিবি) এবং আরো কতিপয় উন্নয়ন সহযোগীর সমর্থন আমরা যথাসময় আদায় করত পারবো৷''

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়