1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

সংসদে ফিরল বিরোধী দল বিএনপি

টানা ৭৩ কার্যদিবস সংসদে অনুপস্থিত থাকার পর আজ সংসদে ফিরল বিএনপি এবং বিএনপির নেতৃত্বে ৪ দলীয় জোটের সংসদ সদস্যরা৷

default

বিরোধী দলীয় নেত্রী বেগম খালেদা জিয়া (ফাইল ছবি)

সংসদে ফিরে বিরোধী দলীয় নেত্রী বেগম খালেদা জিয়া বলেছেন, দেশ এক দুঃসহ পরিস্থিতির মধ্যে রয়েছে৷ সাধারণ মানুষ কষ্টে আছেন৷ সরকারকে অত্যাচার, নির্যাতন বন্ধ করতে হবে৷

বিকেল ৫টায় সংসদ অধিবেশন শুরুতেই খালেদা জিয়ার নেতৃত্বে বিরোধী দলীয় সংসদ সদস্যরা সংসদে যোগ দেন৷ স্পিকার আব্দুল হামিদ তাঁদের স্বাগত জানান৷ সরকার দলের সংসদ সদস্যরা টেবিল চাপড়ে তাদের অভিনন্দন জানান৷

অধিবেশনের শুরুতেই দিনের অন্যান্য কর্মসূচি মুলতুবি করে বিরোধী দলীয় নেত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে কিছু বলার আহ্বান জানান স্পিকার৷ খালেদা জিয়া তাঁর বক্তব্যে সংসদকে কার্যকর রাখতে স্পিকারসহ সবার সহযোগিতা চান৷ তিনি তাঁর দীর্ঘ বক্তৃতায় সাবেক তত্ত্বাবধায়ক সরকারকে অবৈধ বলে উল্লেখ করেন৷ তিনি বলেন, তত্ত্বাবধায়ক সরকার দেশের অপূরণীয় ক্ষতি করে গেছে৷

খালেদা জিয়া বর্তমান সরকারের সমালোচনা করে বলেন, দেশের মানুষ শান্তিতে নেই৷ দ্রব্যমূল্য, আইন-শৃঙ্খলা সব কিছুর অবনতি ঘটেছে৷ এই সরকার মানুষের কল্যাণে কোন কাজ করছেনা৷ দেশ সন্ত্রাস চাঁদাবাজি ও টেন্ডারবাজিতে ছেয়ে গেছে৷ তিনি এসব বন্ধের আহ্বান জানান৷

নোবেলজয়ী অর্থনীতিবিদ ড. মুহম্মদ ইউনূসকে গ্রামীণ ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালকের পদ থেকে সরিয়ে দেওয়ার সমালোচনা করেন বেগম খালেদা জিয়া৷ তিনি বলেন, যাদের সম্মান কেড়ে নেওয়া হয়েছে, বিএনপি ক্ষমতায় এলে তাদের সম্মান ফিরিয়ে দেওয়া হবে৷

এর আগে গতকাল সন্ধ্যায় বিএনপির সংসদীয় দলের বৈঠকে সংসদ অধিবেশনে যোগ দেয়ার সিদ্ধান্ত হয়৷ খালেদা জিয়ার সভাপতিত্বে বৈঠকে জোটের সংসদ সদস্যসহ মোট ৩৩ জন সংসদ সদস্য উপস্থিত ছিলেন৷

সর্বশেষ গতবছরের ২রা জুন সংসদ অধিবেশনে যোগ দিয়ে বিরোধী দল সংসদ বর্জন করে৷ ৮ মাস পর তারা আবার সংসদে যোগ দিলেন৷ তারা মোট ৭৩ কার্যদিবস সংসদে অনুপস্থিত থাকেন৷ নিয়ম অনুযায়ী টানা ৯০ কার্যদিবস সংসদে অনুপস্থিত থাকলে সদস্যপদ বাতিল হয়৷ তবে বিরোধী দল বলেছে সদস্যপদ বাঁচাতে নয়, দেশের মানুষের কথা বলতেই তারা আবার সংসদে যোগ দিয়েছেন৷ সংসদে আসন বিন্যাসসহ নানা ইস্যুতে তারা অধিবেশন বর্জন করে আসছিলেন৷

প্রতিবেদন: হারুন উর রশীদ স্বপন, ঢাকা

সম্পাদনা: সঞ্জীব বর্মন