1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

সংকট নিরসনে সুশীল সমাজের উদ্যোগ

বাংলাদেশের চলমান রাজনৈতিক সংকট নিরসনে রাষ্ট্রপতির সঙ্গে বৈঠক করেছেন সুশীল সমাজের ছয়জন প্রতিনিধি৷ রাষ্ট্রপতির হস্তক্ষেপ চেয়েছেন তাঁরা৷ আর রাষ্ট্রপতি নিজের সাংবিধানিক ক্ষমতার মধ্যে সংকট নিরসনের আশ্বাস দিয়েছেন বলে প্রকাশ৷

সুশীল সমাজের এই প্রতিনিধিরা হলেন সুশাসনের জন্য নাগরিক সুজনের সম্পাদক ড. বদিউল আলম মজুমদার, আইনজীবী ড. শাহদীন মালিক, সাবেক তত্ত্বাবধায়ক সরকারের উপদেষ্টা জামিলুর রেজা চৌধুরী, অ্যাডভোকেট সুলতানা কামাল, ড. আকবর আলি খান এবং গণফোরাম নেতা ড. কামাল হোসেন৷

মঙ্গলবার সন্ধ্যায় বঙ্গভনে রাষ্ট্রপতি আব্দুল হামিদের সঙ্গে তাঁরা প্রায় এক ঘণ্টা বৈঠক করেন৷

জানা গেছে, বৈঠকে জাতীয় সংসদ নির্বাচনে সব দলের অংশগ্রহণের উপায় নিয়ে কথা বলেন নাগরিক প্রতিনিধিরা৷ তাঁরা নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা, নির্বাচনকালীন সরকার এবং বিরোধী দলের আন্দোলন নিয়ে কথা বলেন৷ সারা দেশে ব্যাপক সহিংসতা এবং একপাক্ষিক নির্বাচনে সংকট যে আরো গভীর হবে, তা তাঁরা তুলে ধরেন রাষ্ট্রপতির কাছে৷ এ নিয়ে তাঁদের উদ্বেগের কথাও জানান৷ তাঁরা দেশের চলমান সংকট নিরসনে রাষ্ট্রপতির হস্তক্ষেপ কামনা করেন৷ শেষ পাওয়া খবর অনুযায়ী, রাষ্ট্রপতি তাঁর সাংবিধানিক কাঠামোর মধ্যে থেকে সাধ্যমতো চেষ্টা করার আশ্বাস দিয়েছেন৷

সুজনের সম্পাদক ড. বদিউল আলম মজুমদার ডয়চে ভেলেকে জানান, দেশের সাধারণ নাগরিক হিসেবেই তাঁরা রাষ্ট্রপতির সঙ্গে দেখা করেছেন৷ তাঁরা মনে করেন, একটি গ্রহণযোগ্য নির্বাচনের জন্য নির্বাচনে সব দলের অংশগ্রহণ জরুরি৷ এছাড়া নির্বাচনকে সুষ্ঠু এবং নিরপেক্ষ করতেও সবার অংশগ্রহণ একটা ভূমিকা পালন করে, বলেন তিনি৷ কিন্তু নির্বাচন কমিশন সব দলের অংশগ্রহণ ব্যাপারে নিশ্চিত না হয়েই তফসিল ঘোষণা করছে৷ প্রসঙ্গত, তফসিল ঘোষণার পর এ পর্যন্ত সহিংসতায় নয়জন নিহত হয়েছেন৷

ড. বদিউল আলম বলেন, এখন সরকার ও বিরোধী দলের মধ্যে একটি রাজনৈতিক সমঝোতা হওয়া প্রয়োজন৷ এ জন্য সংলাপের কোনো বিকল্প নেই৷ নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করা হলেও, সময় শেষ হয়ে যায়নি৷ এখনো সংলাপ হতে পারে৷ বলা বাহুল্য, প্রধান দুই রাজনৈতিক দল আন্তরিক হলে সমঝোতা সম্ভব৷ আর সমঝোতা হলে নির্বাচনের তফসিল পুনর্নির্ধারণ সম্ভব৷

Dhaka Bangladesch 12 von 19

বৈঠকে জাতীয় সংসদ নির্বাচনে সব দলের অংশগ্রহণের উপায় নিয়ে কথা বলেন নাগরিক প্রতিনিধিরা

এমনকি ২৪শে জানুয়ারির মধ্যে নির্বাচন অনুষ্ঠানের যে সাংবিধানিক বাধ্যবাধকতা আছে, সেই সময়ের মধ্যেই সব দলের অংশগ্রহণে নির্বাচন সম্ভব৷ তাই সব দল যাতে নির্বাচনে অংশ নিতে পারে বা অংশ নেয়, সে জন্য উদ্যোগ নিতে রাষ্ট্রপতির কাছে অনুরোধ জানান হয়েছে বলে জানান বদিউল আলম মজুমদার৷ রাষ্ট্রপতিকে অনুরোধ করেন সংলাপ আয়োজনের৷

সুলতানা কামাল ডয়চে ভেলেকে জানান, তাঁরা দেশের ও দশের মানুষের কথা চিন্তা করেই রাষ্ট্রপতির সঙ্গে দেখা করেছেন৷ রাষ্ট্রপতির সাংবিধানিক সীমাবদ্ধতা থাকলেও দেশের সর্বোচ্চ অভিভাবক হিসেবে একটি নৈতিক গুরুত্ব আছে৷ সেই জায়গা থেকেই তাঁরা রাষ্ট্রপতিকে সংকট নিরসনে উদ্যোগ নেয়ার অনুরোধ করেছেন৷

রাষ্ট্রপতির পর তাঁরা প্রধান দুই রাজনেতিক দল আওয়ামী লীগ এবং বিএনপির নেত্রীদ্বয়ের সঙ্গে দেখা করবেন কি? এমন প্রশ্নের জবাবে বদিউল আলম মজুমদার বলেন, এখনো এ ব্যাপারে তাঁরা কোনো সিদ্ধান্ত নেননি৷

নির্বাচিত প্রতিবেদন