1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

সমাজ সংস্কৃতি

ষাঁড়ের লড়াই শিল্পের স্বীকৃতি পেয়ে গেল স্পেনে

ষাঁড়ের সঙ্গে মানুষের লড়াই বা বুলফাইটার মাতাদোর৷ জীবন বাজি রেখে এই খেলা আসলে শুধুই খেলা নয়, এ এক শিল্প৷ মাতাদোররা এতদিনে তাঁদের এই খেলার সাংস্কৃতিক স্বীকৃতি পেতে চলেছেন৷

default

শতাব্দপ্রাচীন এই খেলা যথেষ্ট বিপদজনক৷

মাদ্রিদ আর কাতালোনিয়া, স্পেন৷ শতাব্দের পর শতাব্দ ধরে এই কাতালোনিয়া আর মাদ্রিদে চলে আসছে মরণপণ করা ষাঁড়ের সঙ্গে মানুষের লড়াই৷ বুলফাইটিং৷ শক্তসমর্থ চেহারার যুবক বিশেষ চামড়ার পোশাক পরে, মাথায় উঁচু টুপি চড়িয়ে, হাতে একটা লাল কাপড় আর সরু লিকলিকে স্টিলেটো তলোয়ার নিয়ে দারুণ স্বাস্থ্যবান তেজি খ্যাপা ষাঁড়ের মোকাবিলা করছে৷ তাদের ঘিরে রয়েছে গ্যালারি ভর্তি দর্শক৷ চরম উত্তেজনা, অসম্ভব ক্ষিপ্রতা, দারুণ পৌরুষ, একটু অসাবধান হলেই ষাঁড়ের শিং-এর গুঁতোয়, নাহলে তার বিশাল শরীরের চাপে মৃত্যুর আশঙ্কা, সব মিলিয়ে এ এক দুরন্ত বীর্য, সাহস আর পুরুষালি খেলা৷ যে খেলা শেষ হয় ষাঁড়ের মৃত্যুতে৷

এই খেলারই এবার সাংস্কৃতিক স্বীকৃতি পেতে চলেছে স্পেনের বিখ্যাত মাতাদোররা৷ বহু শতাব্দ প্রাচীন এই জনপ্রিয় এবং ঐতিহ্যবাহী খেলা এতদিন কোনরকমের সরকারি স্বীকৃতি ছাড়াই অনুষ্ঠিত হচ্ছিল৷ কিন্তু এবার থেকে স্পেন সরকারের সংস্কৃতি মন্ত্রকের আওতায় চলে গেল এই বুলফাইটিং বা ষাঁড়ের লড়াই৷ স্পেনের বর্তমান সংস্কৃতিমন্ত্রী আলফ্রেডো

Stierkampfgegner vor dem Guggenheim Museum in Bilbao

পশুপ্রেমীদের প্রতিবাদ কাতালোনিয়ায়৷ ষাঁড়ের আকৃতির মানবশৃঙ্খলের মাধ্যমে৷

পেরেজ রুবালকাবার সঙ্গে দেখা করে বিষয়টি নিয়ে আলোচনা করেছেন শীর্ষ মাতাদোররা৷ মন্ত্রীর সম্মতিও মিলে যায়৷ পরে স্পেনের বিখ্যাত মাতাদোরদের অন্যতম কাইতানো রিভেরা ওডোনেজ জানান, সংস্কৃতিমন্ত্রী রাজি হয়েছেন৷ অচিরেই এই খেলাকে শিল্প হিসেবে গণ্য করা হবে৷ এর পূর্ণ নিয়ন্ত্রণ নিয়ে নেবে সরকার৷

তবে মাতাদোররা এই খেলাকে শিল্প হিসেবে দাবি করলেও বিতর্ক রয়েছে অন্য বিষয়ে৷ তা হল পশু অধিকারের বিতর্ক৷ পশুপ্রেমীদের সংগঠন দীর্ঘদিন ধরে নৃশংস উপায়ে ষাঁড় হত্যার বিরোধীতা করে আসছে৷ বুলফাইটিং-এর বিরুদ্ধে ১,৮০,০০০ মানুষের সই সংগ্রহ করে তারা কাতালোনিয়ায় নিষিদ্ধ করতে সফল হয়েছে ষাঁড়ের লড়াই৷ মাদ্রিদেও আপত্তি রয়েছে বহু স্পেনীয় নাগরিকের৷ কিন্তু মাতাদোরদের দাবি, স্পেনের বহু শতাব্দ প্রাচীন এই ঐতিহ্যকে তারা বাঁচিয়ে রাখবে৷ যে কারণে, জাতিসংঘের বিশ্ব ঐতিহ্যের তালিকায় বুলফাইটিংকে জায়গা করে দেওয়ার আবেদনও করেছে মাতাদোররা৷ এখন সংস্কৃতিমন্ত্রকের সমর্থন পাওয়ার পর তাদের কাজ কিছুটা সহজ হবে বলেই ধারণা করছে মাতাদোরদের সংগঠন৷

প্রতিবেদন: সুপ্রিয় বন্দ্যোপাধ্যায়

সম্পাদনা: আরাফাতুল ইসলাম

সংশ্লিষ্ট বিষয়