1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

সমাজ সংস্কৃতি

শ্রীঅঙ্গে শুধুই বেল্ট পরে নেচে সম্পর্ক ভেঙে গেল শাকিরার

হয়ে গেল ছাড়াছাড়ি৷ নাচিয়ে গায়িকা শাকিরা আর অ্যান্টোনিও’র৷ দীর্ঘ এগারো বছর মানে প্রায় একযুগ একসঙ্গে থাকার পরেও টেঁকানো গেল না সম্পর্ক৷ কারণটা কী? কারণ হল গায়িকার অতি খোলামেলা পোষাক আশাক৷

ছাড়াছাড়ি, নাচিয়ে গায়িকা শাকিরা, অ্যান্টোনিও, খোলামেলা, পোষাক,স্বর্ণকেশী, সুন্দরী, আর্জেন্টিনা, মা, বেল্ট, স্টিলেটো, Shakira, Split, Separation, pop, Music, Singer, প্রেসিডেন্ট

নাচগানই শাকিরার জীবন

বেচারা অ্যান্টোনিও! আর্জেন্টিনার প্রাক্তন প্রেসিডেন্ট ফার্নান্দো দে লা রুয়ার ছেলে অ্যান্টোনিও দে লা রুয়ার একটু রক্ষণশীল ভাবনাচিন্তাই বিশ্বখ্যাত নাচিয়ে গায়িকা শাকিরার সঙ্গে তাঁর বিচ্ছেদের কারণ হয়ে গেল৷ এগারো বছরের সম্পর্কের ওপর যবনিকা পড়বে পড়বে বলে শোনা যাচ্ছিল আগাম৷ মঙ্গলবার কলাম্বিয়ার নামজাদা পপস্টার শাকিরার ওয়েবসাইটের খবর সেই বিচ্ছদের কফিনে পুঁতে দিল শেষ পেরেক৷ যার অর্থ, ‘আমরা এখন আলাদা৷'

আলাদা হওয়ার জন্য সেলেব্রিটি ওয়েবসাইট জিমবিওতে শাকিরার সর্বশেষ অ্যালবাম ‘শি উলফ'-কেই দায়ী করেছেন শাকিরা নিজে৷ ঘটনা হল, শি উলফ অ্যালবামে শাকিরাকে দেখে দর্শকের মনে হতেই পারে, ৩২ বসন্তের স্বর্ণকেশী সুন্দরী গায়িকা তাঁর শ্রী অঙ্গে ধারণ করে আছেন শুধুই একটি কোমরের বেল্ট৷ আর পায়ে একজোড়া স্টিলেটো জুতো৷ আর কিচ্ছুটি নয়৷ তো, এই অ্যালবামটি দেখার পর থেকেই নাকি প্রেসিডেন্ট পুত্রের চক্ষু চড়কগাছ৷ শাকিরাকে অ্যান্টোনিও বলেছিলেন, ‘নিদেনপক্ষে শরীরে একটা স্কার্ফ তো জড়াতে পারতে তুমি!'

শাকিরাও তেড়ে জবাব দিয়েছেন৷ বলেছেন, ‘আমার গায়ে একটা স্বচ্ছ বডি স্যুট ছিল ওই গানের শ্যুটিং-এর সময়৷ তুমি সেটা দেখতে পাও নি৷'

MTV European Music Awards in Berlin Flash-Galerie

বার্লিনে এমটিভি অ্যাওয়ার্ডে শাকিরার অনুষ্ঠানের ঝলক

অগত্যা.... এই শি উলফ-ই শেষমেষ ভেঙে দিল শাকিরা অ্যান্টোনিওর প্রেমকাহিনী৷ তাছাড়া, আপাতত নিজের আসন্ন দুনিয়া ভ্রমণ, মানে নাচ গানের পসরা নিয়ে গোটা দুনিয়ায় অনুষ্ঠান করতে যাওয়ার প্রস্তুতি নিয়েই ব্যস্ত শাকিরা৷ সেখানে এইসব প্যাচপেচে প্রেম আর শরীর নিয়ে শুচিবাই বরদাস্ত করতে চান না তিনি৷ নাচিয়ে গায়িকার খোলামেলা স্বীকারোক্তি, অ্যান্টোনিওকে ভালোবেসেছিলাম৷ ওর সন্তানের মা হওয়ারও ইচ্ছে ছিল...কিন্তু...৷

ওই কিন্তুতেই আপাতত থেমে গেল শাকিরার প্রেম৷ জানিয়ে দিয়েছেন, ‘এখন থামতে চাই না আর৷ আমার পরবর্তী থামার স্টেশন আসবে তখন, যেদিন মা হতে ইচ্ছে হবে আমার৷ কিন্তু তারপরেও আবার আমি ফিরে আসব আমার সৃষ্টির জগতে৷ আমার নাচগানের জগতে৷ সৃজনশীলতাই আমার বাঁচার প্রেরণা৷'

সৃজনশীলতা৷ শিল্পীর জীবনে অন্যতম প্রধান প্রয়োজন৷ তো, সেখানে শাকিরার জয়যাত্রা অব্যাহত থাকুক৷ অ্যান্টোনিও না হয় তাঁর রক্ষণশীলতাকে সম্বল করে চুপচাপ থেকে যাবেন৷

প্রতিবেদন: সুপ্রিয় বন্দ্যোপাধ্যায়

সম্পাদনা : হোসাইন আব্দুল হাই

নির্বাচিত প্রতিবেদন

ইন্টারনেট লিংক