1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

শোক পালন করলো নিউজিল্যান্ডের মানুষ

নিউজিল্যান্ডের ভূমিকম্পে হতাহতদের স্মরণে আজ রোববার দেশটিতে শোক পালন করা হয়েছে৷ এদিকে নিহতের সংখ্যা এখন পর্যন্ত ১৪৭ জনে দাঁড়িয়েছে৷ তবে এখনও অনেক লোক ধ্বংসস্তুপের নিচে চাপা পড়ে থাকায় এই সংখ্যা আরও বাড়ার আশংকা করা হচ্ছে৷

default

নিউজিল্যান্ডের ভূমিকম্পে ক্ষতিগ্রস্ত ভবন

গত মঙ্গলবার নিউজিল্যান্ডের দ্বিতীয় বৃহত্তম শহর ক্রাইস্টচার্চে ৬.৩ মাত্রার শক্তিশালী ভূমিকম্প সংঘটিত হয়৷ এরপর থেকে চার লাখ অধিবাসীর এই শহরটিতে বিরাজ করছে শোক এবং আতংক৷ রোববার গোটা দেশে নিহতদের স্মরণে শোক পালন করা হয়েছে৷ গির্জাগুলোতে অনুষ্ঠিত হয় বিশেষ প্রার্থনা৷ গোটা দেশই যেন শোকে মুহ্যমান হয়ে পড়েছে স্মরণকালের এই প্রাকৃতিক বিপর্যয়ে৷

এদিকে ক্রাইস্টচার্চে এখনও চলছে ধ্বংসস্তুপের নিচে চাপা পড়ে থাকা মানুষগুলোর উদ্ধার কাজ৷ যদিও গত বুধবারের পর থেকে জীবিত কাউকে উদ্ধার করা যায়নি, তবুও শহরের মেয়র বব পার্কার আশা ছাড়তে রাজি নন৷

Flash-Galerie Erdbeben in Neuseeland Pyne-Gould-Guinness

ভূমিকম্পে ধ্বংস হয়ে গেছে অনেক বহুতল ভবন

রোববার তিনি জানান, জীবিত কাউকে উদ্ধারের জন্য তারা শেষ পর্যন্ত কাজ চালিয়ে যাবেন৷ জানা গেছে, এখন পর্যন্ত নিহতের সংখ্যা ১৪৭ জনে দাঁড়িয়েছে৷ নিহতদের মধ্যে চীন, জাপান এবং তাইওয়ানের অনেক ছাত্রছাত্রী রয়েছে যারা এসেছিল ইংরেজি শেখার উদ্দেশ্যে৷ এছাড়া আরও অনেক নিহতের পরিচয় এখনও জানা যায়নি৷ ধ্বংসস্তুপের নিচে আরও কত মানুষ পড়ে আছে সেটাও সুনির্দিষ্ট করে কেউ বলতে পারছে না৷ দমকল বাহিনীর প্রধান স্টুয়ার্ট ব্ল্যাক জানান, তারা ধসে পড়া ভবনগুলোর ভেতরে প্রবেশের চেষ্টা করছেন যদি কাউকে জীবিত পাওয়া যায় সেই আশায়৷ তবে যতই সময় যাচ্ছে ততই সেই আশা কমে আসছে৷

এদিকে ক্রাইস্টচার্চ শহরের আশেপাশে বহু মানুষ এখন বিপন্ন অবস্থায় দিন কাটাচ্ছে৷ তাদের কাছে খাবার এবং পানি পৌঁছে দেওয়ার জন্য কাজ করে যাচ্ছে স্বেচ্ছাসেবকরা৷ ভূমিকম্পের কারণে শহরের অনেক বাড়ি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে যেগুলো যে কোন সময় ধসে পড়তে পারে বলে আশংকা করা হচ্ছে৷ এদিকে উদ্ধার তৎপরতা এবং শহরের পুনর্গঠনের জন্য নিউজিল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী জন কি ছয় বিলিয়ন নিউজিল্যান্ড ডলারের একটি তহবিলের ঘোষণা দিয়েছেন৷ এছাড়া নিউজিল্যান্ডের ভূমিকম্প কমিশনের জন্য বরাদ্দ অর্থের পরিমাণ বাড়ানোরও কথা জানিয়েছেন জন কি৷

প্রতিবেদন: রিয়াজুল ইসলাম

সম্পাদনা: জাহিদুল হক