1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

সমাজ সংস্কৃতি

শুরু হল ভেনিস চলচ্চিত্র উৎসব

১লা সেপ্টেম্বর থেকে পর্দা উঠেছে ৬৭তম আন্তর্জাতিক ভেনিস চলচ্চিত্র উৎসবের৷ পড়ন্ত গ্রীষ্মে সমুদ্রঘেরা শহর ভেনিস আলোকোজ্জ্বল হয়ে উঠেছে এখন৷ আর এই মনোরম পরিবেশেই ১১ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত বিশ্বের সেরা সেরা ছবি উপভোগ করা যাবে৷

Bangladeshi, film, Venice film Festival, ভেনিস চলচ্চিত্র উৎসব, প্রথম, বাংলাদেশি ছবি, ‘৭২০ ডিগ্রি’,

ভেনিস চলচ্চিত্র উৎসবে প্রথম বাংলাদেশি ছবি ‘৭২০ ডিগ্রি’র একটি দৃশ্য

ভেনিস চলচ্চিত্র উৎসবের যাত্রা শুরু হয় ১৯৩২ সালে৷ নানা চড়াই উতরাই পার হয়ে আজ এটি বিশ্বের এক সেরা চলচ্চিত্র উৎসবে পরিণত হয়েছে৷ অত্যন্ত উন্নত মানের শৈল্পিক ছায়াছবি প্রদর্শিত হয় বলে এই চলচ্চিত্র উৎসবে অংশ নেয়া চলচ্চিত্র নির্মাতাদের জন্য এক বিশেষ সম্মানের ব্যাপার৷ শিল্প ও বাণিজ্যের অপূর্ব এক সংমিশ্রণ ভেনিস চলচ্চিত্র উৎসব৷

উৎসবের পরিচালক মার্কো ম্যুলার বলেন, ‘‘আমরা সব রকমের ধারাকেই তুলে ধরার চেষ্টা করি৷ বিপরীতধর্মী নানা ধারার সংমিশ্রণ নিয়ে গড়ে উঠেছে এখানকার চলচ্চিত্র৷ আগে ছায়াছবি বলতে আমরা যা বুঝতাম, আজ তা অনেক বদলে গেছে৷''

এবারের উৎসবে সেরা পুরস্কার স্বর্ণ সিংহের জন্য লড়ছে ১১টি দেশের ২৪টি ছবি৷ প্রতিযোগিতার বাইরে থেকেও যোগ দিয়েছে বেশ কিছু ছায়াছবি৷ জুরি মণ্ডলীর প্রধান হলেন মার্কিন চলচ্চিত্র পরিচালক কোয়েন্টিন ট্যারেন্টিনো৷ তাঁর অনুভূতি সম্পর্কে জানাতে গিয়ে ট্যারেন্টিনো বলেন, ‘‘লোকে এখানে আসে ছুটি কাটাতে, আনন্দ উল্লাস করতে৷ কিন্তু আমরা এসেছি বিচার করতে৷ এত ভাল ভাল ছবি, পরিচালক ও শিল্পীদের মধ্য থেকে সবচেয়ে ভালটা ঠিক করা বেশ কঠিন৷''

অ্যামেরিকার ‘ব্ল্যাক সোয়ান' ছবিটি দিয়ে উদ্বোধন করা হয় উৎসবের৷ পরিচালক ড্যারেন অ্যারোনফস্কি তাঁর এই মনস্তাত্বিক ছবিতে এক ব্যালে নৃত্যশিল্পীর কথা তুলে ধরেছেন৷ শহরে নতুন এক শিল্পীর আবির্ভাবে কিছুটা নড়বড়ে হয়ে উঠেছে যার অবস্থান৷ প্রতিযোগিতায় অংশ নিচ্ছে এই ছবি৷ উল্লেখ্য ২০০৮ সালে পরিচালক অ্যারোনফস্কির ‘দ্য রেসলার' ছবিটি ভেনিস চলচ্চিত্র উৎসবে স্বর্ণ সিংহ পুরস্কার পেয়েছিল৷

Balada_Triste_de_Trompeta_(2).jpg

৬৭তম ভেনিস চলচ্চিত্র উৎসবের একটি ছবির পোস্টার

বাংলাদেশের জন্য সুখবর হল, ভেনিস চলচ্চিত্র উৎসবে এবারেই প্রথমবারের মত মনোনীত হয়েছে বাংলাদেশের স্বল্পদৈর্ঘ্যের ছায়াছবি ‘৭২০ ডিগ্রি'৷ পাঁচ মিনিট দৈর্ঘ্যের সংলাপহীন এই ছবিটি পরিচালনা করেছেন ইশতিয়াক জিকো৷ ইরা মোশন পিকচার্সের ব্যানারে ছবিটি প্রযোজনা করেছেন আশিক মোস্তফা৷ ৭২০ ডিগ্রি ছবিটির শুটিং হয়েছে গত বছরের নভেম্বর মাসে কক্সবাজারের হিমছড়িতে৷ উৎসবে প্রদর্শিত হচ্ছে ছবিটি ৬ সেপ্টেম্বর৷ ভারতের তারকা অভিনেত্রী ঐশ্বরিয়া রাই ও অভিষেক বচ্চনের যোগ দেওয়ার কথা ছিল ভেনিস চলচ্চিত্র উৎসবে৷ তাদের অভিনীত ছবি ‘রাবণ' প্রদর্শিত হচ্ছে সেখানে৷ কিন্তু অন্য কাজে ব্যস্ত থাকায় আসতে পারলেননা তারা উৎসবে৷ ‘রাবণ'এর পরিচালক মনি রত্নম পাচ্ছেন চলচ্চিত্র উৎসবে শ্রেষ্ঠ পরিচালকের পুরস্কার, ‘গ্লোরি টু ফিল্মমেকার অ্যাওয়ার্ড'৷ প্রথম দিকে তামিল ভাষায় ছবি তৈরি করলেও পরে হিন্দি ও অন্যান্য ভাষাতেও পারদর্শী হয়ে ওঠেন তিনি৷ আজ পরিচালক মনিরত্নমের খ্যাতি সারা ভারতজুড়ে৷

ইরানের খ্যাতিমান পরিচালক জাফর পানাহির স্বল্পদৈর্ঘ্যের ছায়াছবি ‘‘দি অ্যাকোর্ডিয়ন'' প্রদর্শিত হচ্ছে উৎসবে৷ ইরানের বিতর্কিত নির্বাচন পরবর্তী পরিস্থিতি নিয়ে একটি ছবির শুটিং করার সময় তাঁকে আটক করা হয়৷ পরে তাঁকে জামিনে মুক্তি দেওয়া হলেও ভেনিসে যাওয়ার অনুমতি পাননি তিনি৷ ২০০০ সালে পানাহির ‘দি সার্কল' ছবিটি গোল্ডেন লায়ন পুরস্কার পায়৷ ভেনিস চলচ্চিত্র উৎসবে স্বাভাবিকভাবেই বেশ কিছু ইটালিয়ান ছবি প্রদর্শিত হচ্ছে৷ অংশ নিচ্ছে প্রতিযোগিতায়৷ এর মধ্যে উল্লেখযোগ্য হল ইসাবেলা রোসেলিনি অভিনীত ‘দি সলিটিউড অফ প্রাইম নাম্বার্স'৷ ফরাসি ছবির মধ্যে রয়েছে ডাকসাইটে তারকা কাতরিন দন্যোফ অভিনীত ‘পটিশ' ৷

প্রতিযোগিতায় অংশ নেয়া চলচ্চিত্রের মধ্যে সংখ্যার দিক দিয়ে অ্যামেরিকান ছবি অন্য সবাইকে ছাড়িয়ে গেছে৷ চার ভাগের এক ভাগ ছবিই এসেছে অ্যামেরিকা থেকে৷ মার্কিন পরিচালক জুলিয়ান শ্নাবেলের রাজনৈতিক পটভূমিকায় নির্মিত ‘মিরাল'একটি ব্যতিক্রমধর্মী ছবি৷ ইসরায়েল ও প্যালেস্টাইন সংকটকে তুলে ধরা হয়েছে ছবিতে৷ পরিচালক শ্নাবেল বলেন, ‘‘যত দ্রুত সম্ভব এই সংকটের সমাপ্তি হওয়া প্রয়োজন৷ যে কোনো পক্ষেই একটি শিশুর মৃত্যু মানে নিরর্থক এক করুণ মৃত্যু৷ তাই অ্যামেরিকান ইহুদি হিসাবে বিষয়টিকে ছবিতে তুলে ধরার দায়িত্ব অনুভব করেছি আমি৷ আমাদের পরস্পরকে বোঝার চেষ্টা করতে হবে৷ এতে দু পক্ষেরই লাভ৷''

জার্মানির একটি মাত্র ছবি প্রতিযোগিতায় অংশ নিচ্ছে৷ পরিচালক টম টিকভার'এর ট্র্যাজিকমেডি ‘দ্রাই' বা ‘থ্রি'৷ ভেনিস চলচ্চিত্র উৎসবে শ্রেষ্ঠ ছবির জন্য স্বর্ণ সিংহটি কার হাতে আসবে, সেটাই এখন দেখার পালা৷

প্রতিবেদন: রায়হানা বেগম

সম্পাদনা: সঞ্জীব বর্মন

ইন্টারনেট লিংক