1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

শুরু হচ্ছে বিশ্ব ইজতেমা

বাংলাদেশে শুক্রবারই শুরু হচ্ছে তবলীগ জামাতের বিশ্ব ইজতেমা৷ দুই পর্বের এই ধর্মীয় জমায়েতে দেশি-বিদেশি মিলিয়ে ৪০ লাখ মুসলমান অংশ নেবেন বলে ধারণা৷ সার্বিক পরিস্থিতি বিবেচনা করে নিশ্চিত করা হয়েছে সর্বোচ্চ নিরাপত্তা৷

গত কয়েক বছর ধরে নিরাপত্তার কারণে বিশ্ব ইজতেমা অনুষ্ঠিত হচ্ছে দুই পর্বে৷ প্রথম পর্ব শুক্রবার ফজরের নামাজের পর শুরু হয়ে শেষ হবে সোমবার আখেরি মোনাজাতের মধ্য দিয়ে৷ এরপর দ্বিতীয় পর্ব ৩১শে জানুয়ারি থেকে ২রা ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত চলবে৷ বাংলাদেশের ৬৪টি জেলার মুসল্লিরা ভাগ হয়ে এই দুই পর্বের ইজতেমায় অংশ নেবেন৷ আখেরি মোনাজাতের দিন প্রায় ৪০ লাখ মুসলিম মোনাজাতে অংশ নেবেন বলে আয়োজকরা জানিয়েছেন৷ এছাড়া, এবারের ইজতেমায় বিভিন্ন দেশ থেকে প্রায় ৩০ হাজার মুসলমান অংশ নিচ্ছেন বলে জানা গেছে৷

ঢাকার অদূরে টঙ্গির তুরাগ নদীর তীরে ১৯৬৪ সাল থেকে প্রতিবছর তবলীগ জামাত এই ইজতেমার আয়োজন করে আসছে৷ এবার ৪৯তম বিশ্ব ইজতেমার সব প্রস্তুতি শেষ হয়েছে ইতিমধ্যেই৷ দেশের বিভিন্ন জেলা থেকে মুসল্লিরা ইতিমধ্যেই ইজতেমার মাঠে সমবেত হয়েছেন৷

Bildergalerie Bangladesch Religionsfest Biswa Ijtema

গত কয়েক বছর ধরে নিরাপত্তার কারণে বিশ্ব ইজতেমা দুই পর্বে অনুষ্ঠিত হচ্ছে

গাজীপুর সিটি কর্পোরেশন তাঁদের থাকা, চিকিত্‍সা এবং যোগাযোগের সার্বিক দিক দেখাশুনা করছে৷ তাঁদের জন্য মেডিকেল ক্যাম্পসহ অন্যান্য সেবার ব্যবস্থা করা হয়েছে৷ গাজীপুর সিটি কর্পোরেশনের মেয়র এম এ মান্নান বৃহস্পতিবার ইজতেমা ময়দান পরিদর্শনের পর ডয়চে ভেলেকে জানান, শীতে মুসল্লিদের যাতে কষ্ট না হয় সেজন্য মাঠে তারা তাবুর ব্যবস্থা করেছেন৷ রেখেছেন পানীয় জলের ব্যবস্থাও৷

অন্যদিকে, গাজীপুর জেলা পুলিশসহ ব়্যাব এবং পুলিশ কেন্দ্রীয়ভাবে নিরাপত্তার বিষয়টি দেখছে৷ গাজীপুরের সহকারী পুলিশ সুপার মো. ফারুক হোসেন ডয়চে ভেলেকে জানান, সার্বিক পরিস্থিতির কারণে এবার তারা নিরাপত্তার ওপর বেশি জোর দিচ্ছেন৷ ব়্যাব, পুলিশ ও গোয়েন্দা মিলিয়ে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর প্রায় ১০ হাজার সদস্য কাজ করছেন৷ নিরাপত্তা ব্যবস্থা কন্ট্রোল রুমের মাধ্যমে কেন্দ্রীয়ভাবে মনিটরও করা হচ্ছে৷

Bildergalerie Bangladesch Religionsfest Biswa Ijtema

ইজতেমা মাঠে ব়্যাবের হেলিকপ্টার সার্বক্ষণিকভাবে টহল দিচ্ছে



ইজতেমা মাঠ প্রায় অর্ধশত সিসি ক্যামেরায় পর্যবেক্ষণ করা হচ্ছে৷ ১৪টি ওয়াচ টাওয়ারে সার্বক্ষণিক পর্যবেক্ষণ করছে ব়্যাব-পুলিশ৷ ইজতেমা মাঠের প্রতিটি প্রবেশ পথে মেটাল ডিটেকটর দিয়ে করা হচ্ছে তল্লাশি৷

ব়্যাবের অতিরিক্ত মহাপরিচালক কর্নেল জিয়াউল আহসান ডয়চে ভেলেকে জানান, ইজতেমা মাঠে ব়্যাবের হেলিকপ্টার সার্বক্ষণিকভাবে টহল দিচ্ছে৷ তাছাড়া, ব়্যাব সদস্যরা দুরবিনের মাধ্যমে ইজতেমা মাঠের ওপর নজরদারিও করছেন৷ তিনি জানান, নানা কারণেই এবার ইজতেমায় নিরাপত্তার বিষয়টিকে গুরুত্ব দেয়া হচ্ছে৷ এ কারণে এবার ইজতেমার নিরাপত্তায় কোনো ত্রুটি রাখা হয়নি৷

প্রসঙ্গত, তবলীগ জামাত একটি অরাজনৈতিক সংগঠন৷ ইসলাম ধর্মের প্রচারই তাদের মূল কাজ৷ ইজতেমা তারই অংশ৷

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়