1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

শুভ জন্মদিন, হুসেইন মুহাম্মদ এরশাদ

লেফটেন্যান্ট জেনারেল (অবঃ) হুসেইন মুহাম্মদ এরশাদ৷ বাংলাদেশের সাবেক সেনা প্রধান ও রাষ্ট্রপতি, এবং জাতীয় পার্টির প্রতিষ্ঠাতা৷ ৯ম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ঢাকা-১৭ আসন থেকে নির্বাচিত সংসদ সদস্য৷ আজ তাঁর ৮১তম জন্মদিন৷

default

হুসেইন মুহাম্মদ এরশাদ

১৯৩০ সালের এই দিনে রংপুর জেলায় জন্মগ্রহণ করেন৷ তিনি রংপুর জেলায় শিক্ষাগ্রহণ করেন এবং ১৯৫০ সালে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে স্নাতক ডিগ্রি লাভ করেন৷ আজ তাঁর ৮১তম জন্মদিন উপলক্ষ্যে পল্লীবন্ধু ফাউন্ডেশন আয়োজিত প্রেসিডেন্ট পার্কের অনুষ্ঠানে এরশাদ কেক কাটেন৷ এছাড়া বনানীতে দলের চেয়ারম্যানের কার্যালয়, তোপখানা রোডে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে কেক কাটা, মিলাদ ও দোয়া অনুষ্ঠানের আয়োজন করে জাতীয় পার্টি৷

৮১তম জন্মদিনে ডয়চে ভেলের সাথে টেলিফোন আলাপচারিতায় এরশাদ বলেন, ‘‘আজকে আমার দলের নেতাকর্মীরা আমাকে ভালোবাসা দিয়ে আপ্লুত করেছে৷

Ershad, Hasina &co. in Dhaka, 18.12.2006

রাজনৈতিক সভায় এরশাদ (বামে)

তাদের বলেছি, এই ভালোবাসা বুকে নিয়ে আমি মরতে চাই৷ জাতীয় পার্টিকে সফলভাবে বাংলার রাজনীতিতে প্রতিষ্ঠিত করে যাবো৷ আজকের এই দিনে আমি জাতির প্রতিটি মানুষের কাছে এই দোয়া চাই, যেন আমি আগামী দিনে তাদের পাশে থাকতে পারি, তাদের উপকারে লাগতে পারি৷ তাদের বিপদ আপদে যেন সাহায্য করতে পারি৷''

আজকের এই বিশেষ দিনে জীবন সম্পর্কে তাঁর অনুভূতি সম্পর্কে বলেন, ‘‘আমার জীবনে চাওয়া-পাওয়া সবকিছু শেষ হয়ে গেছে৷ আমি যা চেয়েছি তার চেয়ে বেশি পেয়েছি৷ সবচেয়ে বড় কথা - মানুষের ভালোবাসা পেয়েছি৷ আজ একথা বলতে পারি যে, গ্রামের প্রতিটি মানুষ আমাকে ভালোবাসে৷ যেখানে যাই, মানুষ ভালোবাসা দিয়ে আমাকে অভ্যর্থনা জানায়৷ এটা একজন রাজনীতিবিদের জন্য সবচেয়ে বড় পাওয়া৷ এর চেয়ে বড় পাওয়া আর কিছু হতে পারে না৷ আমার চাওয়ার আর কিছু নেই৷''

অদূর ভবিষ্যতে দেশ ও জাতির জন্য তাঁর পরিকল্পনা সম্পর্কে এরশাদ বলেন, ‘‘আমরা তো মহাজোটে রয়েছি৷ মহাজোট অনেক বিষয়ে সফল হয়েছে, অনেক বিষয়ে এখনও সফল হতে পারে নি৷ মহাজোটের অনেক প্রতিশ্রুতি আমরা পূরণ করতে পারিনি৷ আমরা যদি আগামী তিন বছরে এ প্রতিশ্রুতি পালন করতে না পারি, তাহলে আগামী নির্বাচন আমাদের জন্য শুভ হবে না৷

H. M. Ershad, ehemaliger Präsident von Bangladesch

‘জনগণের কাছে থাকতে চাই’

তাই আমার পক্ষ থেকে আমি একটা কথাই বারবার বলে আসছি, সরকারকেও বলে আসছি যে, আমরা সর্বাত্মক চেষ্টা করি৷ সবাই ঐক্যবদ্ধভাবে চেষ্টা করি এবং মহাজোটকে শক্তিশালী করি৷ তাহলে হয়তো আগামী নির্বাচনে আমরা জয়ী হয়ে দেশ ও জাতিকে কিছু দিতে পারবো৷ তবে কতটুকু সফল হবো এখন তা বলতে পারছি না৷

আর আমার শেষ জীবনে দেওয়ার বিশেষ কিছু নেই৷ তবে একটু আগেই বলেছি, জনগণের কাছে থাকতে চাই৷ তাদের সুখ-দুঃখের ভাগী হতে চাই৷ এবং আমি আশা করি, আল্লাহ পাক সেই সুযোগ আমাকে আরেকবার দিবেন৷''

রাজনৈতিক জীবনে ভালোলাগার মুহূর্তের কথা বলতে গিয়ে তিনি বলেন, ‘‘আমি যখন বাইরে যাই, তখন প্রতিটি মানুষ আমাকে অভ্যর্থনা জানায়, ভালোবাসা জানায়৷ আমি বাজারে নামলে, সবাই এসে আমার সাথে করমর্দন করে, কুশল বিনিময় করে৷ সবাই বলে, আপনি আরেকবার ভোটে দাঁড়ান৷ আরেকবার ক্ষমতায় আসেন৷ এ কথাটা শুনতে ভালো লাগে৷''

ব্যক্তি জীবনে ভালোলাগার মুহূর্ত বাসায় ফিরলে ছেলে এরিকের দৌড়ে এসে জড়িয়ে ধরা৷ এরশাদের ভাষায়, ‘‘আমাদের সংসারে আমরা দু'জন - আমি আর আমার ছেলে এরিক৷ বাসায় আসলে এরিক দরজা খুলে দৌড়ে আসে ‘ড্যাডি এসেছে, ড্যাডি এসেছে' বলে৷ অভ্যর্থনা জানায় আমাকে লিফটের কাছ থেকে৷ তো, ওটা আমার খুব ভালো লাগে৷ সারাদিনের পরিশ্রমের পর যখনই ফিরে আসি, এরিক আমাকে অভ্যর্থনা জানায়, স্বাগত জানায়৷ আমার হাত ধরে বাসায় নিয়ে যায়৷ আমার জীবনের সবচেয়ে বড় পাওয়া এটি৷''

সাক্ষাৎকার: হোসাইন আব্দুল হাই

সম্পাদনা: জাহিদুল হক