1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

সমাজ সংস্কৃতি

শিশু সন্তানকে রান্নার ওভেনে ঢুকিয়ে দিলেন পিতা

শিশুটির বয়স মাত্র ৫ সপ্তাহ৷ এই বয়সেই তাকে দেখতে হলো বাবার বিকৃত মানসিকতা৷ সারারাত কাটাতে হলো রান্নাবান্নার যন্ত্র ওভেনের মধ্যে৷ যদিও ওভেনটি সেসময় চালু না থাকায় আর ওভেনের দরজাটা সামান্য খোলা থাকায়, প্রাণে বেঁচে যায় সে৷

default

ফাইল ফটো

ঘটনাস্থল মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের কেন্টাকি৷ ৩৩ বছর বয়সী ল্যারি লং পেশায় একজন বাবুর্চি৷ কর্মস্থলে বসেই গাঞ্জিকা টানার অভ্যাস তার৷ আর সেই গঞ্জিকা সেবনের পর, রবিবার রাতে বাড়ি ফিরে তিনি বসেছিলেন হুইস্কি নিয়ে৷ সঙ্গে শিশুটির মা ব্র্যান্ডি হ্যাটন৷ পুলিশ জানায়, রবিবার রাতে কয়েক পেগ হুইস্কি খেয়েই শুতে চলে যায় হ্যাটন৷ আর বাকি বোতল পুরোটাই নাকি শেষ করে লং৷

আর তারপরেই নিষ্ঠুর ঘটনাটি ঘটায় সে৷ শিশু সন্তানটিকে নিয়ে রান্নাঘরের ওভেনের মধ্যে ঢুকিয়ে দেয়৷ সকাল সাড়ে পাঁচটার দিকে শিশুটির কান্নায় ঘুম ভাঙ্গে মা ব্র্যান্ডি হ্যাটন'এর৷ ততক্ষনে উদ্ধারকর্মীরা পৌঁছে গেছে সেখানে৷ সঙ্গে সঙ্গে শিশুটিকে নিয়ে যাওয়া হয় হাসপাতালে৷ ডাক্তার জানিয়েছে, ভাগ্যের জোরে সুস্থই আছে সে৷

অবশ্য জরুরী উদ্ধারকারী দলের কাছে খবরটা কিন্তু পাঠিয়েছিল শিশুটির বাবা, মানে লং নিজেই৷ পুলিশ জানায়, লং যখন বুঝতে পারে যে শিশুটিকে সে ওভেনে ঢুকিয়ে দিয়েছে, তখনই একটি মানসিক হাসপাতালে ফোন করে ল্যারি৷ জানায়, তার অপকর্মের কথা৷ এরপর হাসপাতাল থেকে উদ্ধারকারীদলকে বলা হয় শিশুটিকে বাঁচানোর জন্য৷

এদিকে, ঘটনাটির পর আটক আছেন লং৷ তবে ১০,০০০ ডলারের বিনিময়ে জামিন পেতে পারে সে৷ অন্যদিকে, শিশুটিকে জরুরী ভিত্তিতে রাখা হয়েছে পরিবারের অন্য সদস্যদের তত্ত্বাবধানে৷

প্রতিবেদক : আরাফাতুল ইসলাম

সম্পাদনা : দেবারতি গুহ

সংশ্লিষ্ট বিষয়