1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

খেলাধুলা

শিরোপা না পেলেও অনলাইন ভক্তদের কাছে সেরা জার্মানি

হাড্ডাহাড্ডি লড়াই চালিয়ে বিশ্বকাপের ফাইনালে পৌঁছেছিল স্পেন এবং নেদারল্যান্ডস৷ শিরোপা ঘরে তুলতে প্রচণ্ড বেগ পেতে হয় স্পেনকে৷ আর জার্মানি তৃতীয় স্থানে৷ কিন্তু অনলাইনের ভক্তদের বিচারে শ্রেষ্ঠ হয়েছে জার্মানি৷

CAPE TOWN, Miroslav Klose, Germany, goal, 2010 World Cup, South Africa, গোল করার পর মিরোস্লাভ ক্লোজের উল্লাস

গোল করার পর মিরোস্লাভ ক্লোজের উল্লাস

সবুজ মাঠের লড়াইয়ে হারলে কি হবে, অন্তত অনলাইনের লড়াইয়ে তো এগিয়েছে জার্মানি৷ হয়তো এটুকু পাওয়াতেও কিছুটা সান্ত্বনা খুঁজে পাবেন জার্মান ভক্তরা৷ তাছাড়া টপ স্কোরার হিসেবেও কিছুটা প্রাপ্তিতো রয়েছেই ডয়েচদের৷ অন্যদিকে, ফরাসি দলের খেলোয়াড়দের অভ্যন্তরীণ ঝামেলা তাদেরকে নামিয়ে দিয়েছে একেবারে নিম্নস্তরে৷

ফুটবল নিয়ে দক্ষিণ আফ্রিকার মাঠে যখন চলছে প্রচণ্ড লড়াই, ঠিক তখনই ইন্টারনেটের পাতায় সমীক্ষা চালাচ্ছে অল্টারিয়ান পিএলসি৷ ভক্তদের জন্য দেওয়া হয় তিনটি পছন্দের সুযোগ৷ প্রতিটি দেশের নামের পাশে ছিল খুব খারাপ, খারাপ এবং খুব ভালো - এই তিনটি বোতাম৷ একজন ভক্ত যে কোন দেশের জন্য বেছে নিতে পারেন একটি বোতাম৷ এই সমীক্ষায় অংশ নেয় প্রায় বিশ লাখ ফুটবলপ্রেমী৷ আর সবচেয়ে সাড়া পাওয়া গেছে টুইটার ব্যবহারকারীদের কাছ থেকে৷ শুধুমাত্র টুইটার থেকেই অনলাইন ভক্তরা এই সমীক্ষায় অংশ নিয়েছেন ৪০ শতাংশ৷

অনলাইন ভক্তদের কাছে থেকে সর্বোচ্চ প্রশংসা পেয়েছে জার্মানি৷ বিশেষ করে মেসুট ওজিল, বাস্টিয়ান শোয়াইনস্টাইগার এবং থমাস ম্যুলারের খেলায় যে নতুনত্ব এবং বৈচিত্র্য ছিল তা-ই নাকি সবচেয়ে বেশি মুগ্ধ করেছে ভক্তদের, বলছেন বোদ্ধারা৷ বিশ্বকাপের শেষ দু'দিনেই জার্মানির পক্ষে ভোট পড়ে ৬৮ শতাংশ৷ তবে স্পেনও খুব পিছিয়ে নেই৷ পেয়েছে ৪৮ শতাংশ ইতিবাচক ভোট৷

অন্যদিকে, মাঠে খারাপ খেলা, দলের খেলোয়াড়দের সাথে কোচের গণ্ডগোল, এমনকি পরিস্থিতি স্বাভাবিক করতে দেশের শীর্ষ নেতার হস্তক্ষেপ - এসব মিলিয়ে ফুটবল প্রেমীদের কাছে সবচেয়ে খারাপ অবস্থান ফ্রান্সের৷ ফলে অনলাইন ভক্তদের কাছ থেকেও শোনা গেল নানান কটুক্তি আর সমালোচনা৷ সাথে বিশ্বকাপ ২০১০ এ অংশগ্রহণকারী দলগুলোর মধ্যে সবচেয়ে খারাপ সাড়া পেয়েছে যথারীতি ফ্রান্স৷ শেষমেষ মাত্র ২৮ শতাংশ ভোট জুটেছে ফ্রান্সের কপালে৷

গত বিশ্বকাপের রানার্স আপ ফরাসিদের কী করুণ অবস্থা এবার! একেই বোধহয় বলে আয়রনি!

প্রতিবেদন: হোসাইন আব্দুল হাই

সম্পাদনা : সুপ্রিয় বন্দ্যোপাধ্যায়