1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

‘শান্তিপূর্ণভাবেই শেষ হলো চার সিটির নির্বাচন’

সামান্য কিছু বিচ্ছিন্ন ঘটনা ছাড়া শান্তিপূর্ণভাবেই শেষ হয়েছে রাজশাহী, বরিশাল, খুলনা ও সিলেট সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনের ভোটগ্রহণ৷

শুধুমাত্র খুলনায় এক ওয়ার্ড কাউন্সিলর প্রার্থীর সমর্থকদের র‌্যাব ধাওয়া দিলে হৃদযন্ত্রের ক্রিয়া বন্ধ হয়ে একজন মারা যান৷

আর বরিশালে প্রধান দুই প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী আওয়ামী লীগ সমর্থিত শওকত হোসেন হিরণ ও বিএনপি সমর্থিত আহসান হাবীব কামালের উপস্থিতিতেই দুই পক্ষ সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে৷ এতে একটি কেন্দ্রের ভোট গ্রহণ প্রায় সোয়া এক ঘণ্টা বন্ধ ছিল৷ এছাড়া রাজশাহী ও সিলেটে কোনো অপ্রীতিকর ঘটনার খবর পাওয়া যায়নি৷ নির্বাচন কমিশন জানিয়েছে, চারটি সিটি কর্পোরেশনে গড়ে ৭০ শতাংশের বেশি ভোট পড়েছে৷ তাদের কাছে কোনো প্রার্থীই বড় ধরনের অভিযোগ করেননি৷

বিকেল চারটায় ভোটগ্রহণ শেষে নির্বাচন কমিশনের সচিব ড. মুহম্মদ সাদিক সাংবাদিকদের এক ব্রিফিংয়ে বলেন, যেসব ভোটার বিকেল চারটার আগে কেন্দ্রে পৌঁছেছেন তাদের ভোট নেয়া হয়েছে৷ কেউ ভোট না দিতে পেরে ফিরে যাননি৷ কোনো প্রার্থী সরাসরি তাদের কাছে কোনো অভিযোগ করেননি উল্লেখ করে তিনি বলেন, প্রার্থীর এজেন্টরা কিছু অভিযোগ করেছে৷

Narayanganj City Corporation Wahlen Flash-Galerie

সংসদ নির্বাচনের আগে জনপ্রিয়তা যাচাইয়ের লড়াই এই সিটি নির্বাচন, মন্তব্য অনেক বিশ্লেষকের

সঙ্গে সঙ্গে ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে৷ অভিযোগের ভিত্তিতে খুলনা কোতয়ালি থানার ওসিকে সতর্ক করে দেয়া হয়েছে৷ এছাড়া বরিশালের একটি কেন্দ্রে ১ ঘণ্টা ১০ মিনিট ভোটগ্রহণ বন্ধ রাখা হয়েছিল৷

শনিবার একযোগে চারটি সিটি কর্পোরেশনে সকাল ৮টায় শুরু হওয়া ভোটগ্রহণ বিরতিহীনভাবে চলে বিকেল ৪টা পর্যন্ত৷ তবে প্রধান বিরোধী দল অনিয়মের কিছু অভিযোগ করেছে নির্বাচন কমিশনের কাছে৷ এছাড়া বিএনপি নেতারা ব্রিফিং করেও অনিয়মের কথা তুলে ধরেছেন৷ নির্বাচন কমিশন তাৎক্ষণিকভাবে সঠিক পরিসংখ্যান দিতে না পারলেও চার নগরীতে ১২ লাখেরও বেশি ভোটারের মধ্যে গড়ে ৭০ শতাংশের বেশি ভোট পড়েছে বলে মনে করছে৷ এই চার সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে সকালে উৎসবমুখর পরিবেশে ভোটগ্রহণ শুরু হয়৷ বুথ চালু হওয়ার আগেই কেন্দ্রগুলোতে ভোটারদের উপস্থিতি দেখা যায়৷ নারী ভোটারদের উপস্থিতিও ছিল লক্ষণীয়৷

বরিশালে সিটি করপোরেশন নির্বাচন চলাকালে প্রতিপক্ষের সমর্থকেরা হামলা চালিয়েছে বলে পাল্টাপাল্টি অভিযোগ করেছেন প্রধান দুই প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী শওকত হোসেন হিরণ ও আহসান হাবিব কামাল৷ এর জের ধরেই শহরের পূর্ব রূপতলী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে ভোট নেওয়া স্থগিত করা হয়৷ এক ঘণ্টা পর বেলা পৌনে তিনটায় আবারও ওই কেন্দ্রে ভোট গ্রহণ শুরু হয়৷ শওকত হোসেন হিরণ অভিযোগ করে বলেন, রূপতলী কেন্দ্র থেকে তিনি বের হওয়ার সময় দেখেন সেখানে ঢুকছেন আহসান হাবিব কামাল৷ তিনি করমর্দনের জন্য আহসান হাবিবের দিকে হাত বাড়িয়ে দেন, কিন্তু আহসান কামাল তার সঙ্গে হাত না মিলিয়ে উত্তেজিত হয়ে গালিগালাজ শুরু করেন। একপর্যায়ে মাহমুদ নামে কামালের একজন সমর্থক তাকে মারতে উদ্যত হন৷

Narayanganj City Corporation Wahlen Flash-Galerie

কেন্দ্রগুলোতে নারী ভোটারের উপস্থিতি ছিল লক্ষ্যণীয়

আর কামাল পাল্টা অভিযোগ করেন, শওকত হোসেন হিরণের সঙ্গে থাকা সন্ত্রাসীরা তাদের ওপর হামলা চালিয়েছে৷

এদিকে এই চার সিটি কর্পোরেশনের একটি করে ওয়ার্ডে মোট ১৩টি কেন্দ্রে ইভিএমে ভোটগ্রহণ হয়৷ যান্ত্রিক পদ্ধতিতে ভোটগ্রহণে কারো কারো সমস্যা হলেও অধিকাংশই উচ্ছ্বাস প্রকাশ করেছেন৷ রাজশাহীতে ইভিএমের একটি কেন্দ্রের সাতটি বুথের মধ্যে একটি বুথের সাড়ে ৩ শ'র মতো ভোট মেশিনের যান্ত্রিক ত্রুটির কারণে গণনা সম্ভব হয়নি৷ এদিকে সিলেট নগরীর ২ নম্বর ওয়ার্ডের মদন মোহন কলেজে কেন্দ্রে জীবনে প্রথমবার ভোট দিয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী মনিরা খাতুন বলেন, এত সহজে ভোট দেয়া যায় আগে ভাবিনি, এক টিপে কাজ শেষ৷ খুবই ভালো একটা সিস্টেম৷ সবখানেই এটা চালু করা উচিত৷ ভোট চলাকালে সকাল সোয়া ১০টার দিকে খুলনার খালিশপুরে ক্রিসেন্ট জুট মিল মাধ্যমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রের সামনে এক কাউন্সিলর প্রার্থীর পক্ষে মিছিলের চেষ্টা হয়৷ তখন র‌্যাব ধাওয়া করলে পালাতে গিয়ে আলম সর্দার (৫০) নামে এক ব্যক্তির হদরোগে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু হয় বলে জানান খুলনা মহানগরীর সহকারি পুলিশ কমিশনার মোহাম্মদ জয়েন উদ্দিন৷ প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, কাউন্সিলর প্রার্থী শামসুল আলমের নির্বাচনি প্রতীক চাঁদ সম্বলিত প্রচারপত্র ও অন্যান্য সরঞ্জাম নিয়ে ৫০ থেকে ৬০ জনের একটি দল একসঙ্গে কেন্দ্রের বাইরে ঘোরা ফেরা করছিলেন৷ এ সময় র‌্যাবের একটি গাড়ি এলে তারা ছত্রভঙ্গ হয়ে দৌড়ে পালানোর চেষ্টা করে৷ ঘটনাস্থল থেকে নয় জনকে আটক করে তাদের পুলিশের কাছে হস্তান্তর করে র‌্যাব৷

এদিকে রাজশাহীতে সকালে একই কেন্দ্রে ভোট দেয়ার পর পরস্পরের সঙ্গে সৌহার্দ্য বিনিময় করেন প্রধান দুই প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী খায়রুজ্জামান লিটন ও মোসাদ্দেক হোসেন বুলবুল৷ ভোট গ্রহণ শেষে তারা মোটামুটি সন্তুষ্টি প্রকাশ করেছেন৷

(প্রতিবেদনের ছবিগুলো ফাইল থেকে নেয়া)

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়