1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

শচীন টেন্ডুলকার থাকছেন ফেসবুক, টুইটারে

ক্রিকেট পিচ থেকে বিদায় নিলেও ফেসবুক, টুইটার থেকে বিদায় নিচ্ছেন না শচীন টেন্ডুলকার৷ ভক্তরা তাঁকে আগের মতোই পাবেন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে৷ এমনকি তিনি ভক্তদের সঙ্গে সরাসরি চ্যাটেও অংশ নিচ্ছেন৷

GettyImages 1268988 LONDON, UNITED KINGDOM: India's Sachin Tendulkar makes his way onto the field for the start of the second innings during fourth day of the 4th npower Test Match against England at The Oval in London 08 September 2002. Tendulkar is playing his 100 th test. AFP PHOTO Adrian DENNIS (Photo credit should read ADRIAN DENNIS/AFP/Getty Images)

Bildergalerie zu dem indischen Cricketspieler Sachin Tendulkar

ফেসবুকে একজন ব্যক্তির জনপ্রিয়তার মাপকাঠি বিচারে ব্যবহার করা হয় ফলোয়ার বা লাইকের সংখ্যা৷ সেই সংখ্যার বিচারে মোটেই পিছিয়ে নেই ‘ক্রিকেট ঈশ্বর' খ্যাত শচীন টেন্ডুলকার৷ ১৪ নভেম্বর দুপুর পর্যন্ত ফেসবুকে তাঁর আনুষ্ঠানিক পাতায় ভক্তের সংখ্যা ছিল ১১,৯৭৯,৪৬১৷ বলা বাহুল্য প্রতিনিয়ত এই সংখ্যা শুধু বাড়ছে৷ শচীন তাঁর এই ভক্তদের সঙ্গে নিয়মিতই যোগাযোগ রাখছেন৷ যেমন বুধবার এক পোস্টে ভক্তদের উদ্দেশ্যে তিনি লিখেছেন, ‘‘এখন তুমি আমার সঙ্গে সরাসরি কথা বলতে পারো, ক্লিক করো এখানে – (একটি লিংক)৷''

ফেসবুকের পাশাপাশি টুইটারেও সক্রিয় আছেন ক্রিকেটের সফলতম ব্যাটসম্যান শচীন টেন্ডুলকার৷ এই মাইক্রোব্লগিং সাইটে বৃহস্পতিবার পর্যন্ত তাঁর ভক্তের সংখ্যা ছিল ৩,৮২২,০৫৮৷ টুইটারে এক পোস্টে ২৪ বছর ধরে অব্যাহত সমর্থন দিয়ে যাওয়ায় অগুনতি ভক্তদের ধন্যবাদ জানিয়েছেন শচীন৷ বিদায় বেলায় শচীনকে ধন্যবাদ জানাতে একটি হ্যশট্যাগও তৈরি হয়েছে৷ #ThankYouSachin ব্যবহার করে শচীনের ভক্তরা বিভিন্ন বার্তা এবং ছবি প্রকাশ করছে৷

প্রসঙ্গত, ফেসবুক এবং টুইটারে শচীন টেন্ডুলকারের আনুষ্ঠানিক উপস্থিতি সম্পর্কে নিশ্চিত হওয়া গেলেও তাঁর ব্যক্তিগত ওয়েবসাইট নিয়ে বিভ্রান্তি রয়েছে৷ শচীনটেন্ডুলকার ডটইন নামক একটি ব্লগসাইট ইন্টারনেটে বেশ সক্রিয়৷ তবে এটি শচীনের এক ভক্তের তৈরি৷ সাইটটিতে ভক্তদের পক্ষ থেকে শচীনকে নিয়ে নিয়মিত বিভিন্ন পোস্ট করা হয়৷ এছাড়া শচীনিস্ট ডটকম নামক একটি ওয়েবসাইট রয়েছে, যেখানে শচীন সম্পর্কিত বিভিন্ন সংবাদ প্রকাশ করা হয়৷ বিশ্বের বিভিন্ন দেশের গণমাধ্যমে শচীনকে নিয়ে কী ধরনের সংবাদ প্রকাশ হচ্ছে তা জানা যাবে এই সাইটে৷

উল্লেখ্য, আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে টেন্ডুলকারের যাত্রা শুরু হয় ১৯৮৯ সালের ১৫ নভেম্বর, চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী পাকিস্তানের বিপক্ষে টেস্ট সিরিজে৷ অভিষেক ইনিংসে তাঁর সংগ্রহ ছিল মাত্র ১৫ রান৷ সর্বোচ্চ ১৬৮টি টেস্ট খেলার রেকর্ডও তার৷ ১৫ হাজারের বেশি রান করে সর্বোচ্চ রানের মালিক তিনি৷ ১৯৯৪ সালের ক্রিকেট জীবনের প্রথম শতকের পর আর ফিরে তাকাতে হয়নি তাঁকে৷

নির্বাচিত প্রতিবেদন