1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

‘লিবিয়া থেকে আল-কায়েদা নেতাকে তুলে আনা আইনসম্মত'

কথিত আল-কায়েদা নেতা আল-লিবিকে লিবিয়া থেকে তুলে নিয়ে গেছে যুক্তরাষ্ট্র৷ তাদের নাগরিককে এভাবে ধরে নিয়ে যাওয়া ‘বেআইনি' বলে এর কারণ জানতে চেয়েছে লিবিয়া৷ তবে যুক্তরাষ্ট্র মনে করে, আল-লিবিকে ‘অপহরণ' করা আইনসম্মত৷

শনিবার যুক্তরাষ্ট্রের ডেল্টা ফোর্স আবু আনাস আল-লিবি নামে পরিচিত নাজিল আল-রাগেইকে ত্রিপোলি থেকে ধরে নিয়ে যায়৷ আল-লিবির বিরুদ্ধে ১৯৯৮ সালে কেনিয়া ও তানজানিয়ার মার্কিন দূতাবাসে হামলার সঙ্গে জড়িত থাকার অভিযোগ রয়েছে৷ হামলা দুটিতে ২৭৮ জন নিহত হয়েছিল৷ ঘটনার পর যুক্তরাষ্ট্রের কেন্দ্রীয় আদালত আল-লিবিকে দোষী সাব্যস্ত করে৷ তারপর লিবিয়ার এই নাগরিককে জীবিত বা মৃত অবস্থায় খুঁজে দেয়ার জন্য ৫০ লক্ষ ডলার পুরস্কার ঘোষণা করে যুক্তরাষ্ট্র৷ দীর্ঘ ১৩ বছরের অপেক্ষা শেষে শনিবার ডেল্টা ফোর্স পাঠিয়ে আল-লিবিকে ধরে নেয়া হলো৷

Al-Kaida-Führer Abu Jahja al-Libi

কথিত আল-কায়েদা নেতা আল-লিবি

একজন লিবীয় নাগরিককে ‘অপহরণ' করার ঘটনার তীব্র সমালোচনা করে যুক্তরাষ্ট্রের কাছে এর কারণ ব্যাখ্যা করার দাবি করেছে লিবিয়া৷ সেই সঙ্গে আল-লিবির বিরুদ্ধে কোনো অভিযোগ থাকলে লিবিয়ার আদালতে তার শুনানিরও দাবি জানানো হয়েছে৷ সোমবার যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্রমন্ত্রী জন কেরি বলেছেন, ‘‘আবু আনাস আল-লিবির প্রতি পূর্ণ সম্মান রেখেই বলছি, আল-কায়েদার গুরুত্বপূর্ণ নেতা হওয়ায় তিনি যুক্তরাষ্ট্রের সেনাবাহিনীর আইনসঙ্গত এবং সঠিক লক্ষ্যবস্তু৷ তাই আইন প্রয়োগ এবং যুক্তরাষ্ট্রের নিরাপত্তা বিধানের স্বার্থে যুক্তরাষ্ট্র সাধ্যমতো সব চেষ্টাই করবে৷''

শুধু লিবিয়া নয়, আল-কায়েদার সঙ্গে সংশ্লিষ্ট আরেক ব্যক্তিকে ধরার জন্য সোমালিয়াতেও একটি অভিযান পরিচালনা করেছে যুক্তরাষ্ট্র৷ সেই অভিযান অবশ্য সফল হয়নি৷

এসিবি/ডিজি (রয়টার্স, এএফপি, ডিপিএ)

নির্বাচিত প্রতিবেদন