1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিজ্ঞান পরিবেশ

লিফটে করে মহাকাশ যাত্রা!

ধরুন, আপনি লিফটের সামনে এসে দাঁড়ালেন৷ সেখানে থাকা একজন আপনাকে জিজ্ঞেস করছে, স্যার কোথায় যাবেন, লো আর্থ অর্বিট (এলইও) নাকি জিওস্টেশনারি অর্বিটে (জিএসও)?

default

এবার লিফটে করে মহাকাশে যাওয়া যাবে

না, চমকানোর কিছু নেই৷ কারণ দিন আসছে, যখন সত্যি সত্যিই আপনাকে এমন কথা শুনতে হবে৷ কারণ পৃথিবী থেকে মহাকাশে যাবার লিফট তৈরি নিয়ে গবেষণা চলছে এবং সেটা অনেক দূর এগিয়েছে বলে জানালেন ভারতের বিক্রম সারাভাই স্পেস সেন্টারের উপ-প্রধান এ. সেঁথিল কুমার৷

তিনি বলছেন কার্বন ন্যানোটিউবের তৈরি দড়ি বেয়ে লিফটটি মহাকাশে পৌঁছে যাবে৷ সেজন্য এই ন্যানোটিউবের প্রসারণ ক্ষমতা হতে হবে কমপক্ষে ১৩০ গিগাপ্যাসকাল৷ বর্তমানে যে ন্যানোটিউব পাওয়া যায় তার ক্ষমতা পাঁচ গিগাপ্যাসকাল৷

প্রথমে স্যাটেলাইটে করে দড়িটি মহাকাশে নিয়ে যাওয়া হবে৷ তারপর সেখান থেকে দড়িটির এক প্রান্ত নিচে ছেড়ে দেয়া হবে৷ এরপর সেই প্রান্তটি বাঁধা হবে পৃথিবীতে থাকা উঁচু কোনো ভবনে স্থাপিত স্টেশনের সঙ্গে৷

ঐ স্টেশন থেকে ৩৫,৭৮৬ কিলোমিটার উচ্চতায় থাকা জিওস্টেশনারি অর্বিটে যেতে লিফটির সময় লাগবে আটদিন৷ কারণ লিফটটি চলবে ঘন্টায় ২০০ কিলোমিটার বেগে৷

লিফটে করে কম খরচে স্যাটেলাইট ও মানুষ সহ অন্যান্য জিনিস পৃথিবী থেকে মহাকাশে নিয়ে যাওয়া যাবে৷ ফলে এখন এক কেজি জিনিস মহাকাশে নিয়ে যেতে যেখানে প্রায় চল্লিশ হাজার ডলার খরচ হচ্ছে, সেখানে লিফটে করে নিয়ে যেতে খরচ হবে মাত্র আড়াইশো ডলার বা এর চেয়েও কম৷

প্রতিবেদন: জাহিদুল হক

সম্পাদনা: অরুণ শঙ্কর চৌধুরী

সংশ্লিষ্ট বিষয়