1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

লাহোরে দু দফা আত্মঘাতী বোমা হামলায় নিহত অন্তত ৪৫

পাকিস্তানের পাঞ্জাব প্রদেশের রাজধানী লাহোরে আবারো দুটি আত্মঘাতী বোমা হামলার ঘটনা ঘটেছে৷ লাহোরে সেনানিবাসের কাছে দু-দুটি আত্মঘাতী বোমা হামলায়, ৯ সেনা সদস্যসহ কমপক্ষে ৪৫জন নিহত হয়েছে৷

default

আত্মঘাতী বোমা হামলার পর নিরাপত্তা বাহিনীর টহল

সেনানিবাসের কাছের একটি বাজার এবং জনবহুল এলাকায় ওই বোমা হামলা চালানো হয়৷ এর মাধ্যমে সরকারের বিরুদ্ধে আরেক দফা চ্যালেঞ্জ ছুঁড়ে দিলো জঙ্গি গোষ্ঠী৷ পাকিস্তান সরকার তালেবান গোষ্ঠীর বিরুদ্ধে জোর অভিযান পরিচালনা করছে৷

পুলিশ কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, লাহোরের আরএ বাজার এবং কাছেরই একটি জনবহুল এলাকায় জুমার নামাজ শুরুর অল্প কিছুক্ষণ আগে, দুই আত্মঘাতী হামলাকারী বোমা বিস্ফোরণটি ঘটায়৷ প্রাদেশিক পুলিশ প্রধান তারিক সালেম দোগার জানিয়েছেন, মাত্র ১৫ থেকে ২০ সেকেন্ডের মধ্যে বোমা দুটি বিস্ফোরণ ঘটানো হয়৷ আত্মঘাতী হামলাকারীরা পায়ে হেঁটে ঘটনাস্থলে আসেন এবং নিজেদের উড়িয়ে দেন৷ ভারতের সীমান্তবর্তী এই শহরে চালানো হামলায়, অন্তত শতাধিক মানুষ আহত হয়েছে বলে জানাচ্ছে বিভিন্ন সংবাদ সংস্থা৷

শুক্রবার রয়টার্সের এক চিত্রগ্রাহক জানান, সেনারা বিস্ফোরণস্থল ঘিরে রেখেছে৷ এছাড়া, ঐ এলাকায় সেখানে কাউকে প্রবেশ করতে দেওয়া হচ্ছে না বলেও জানান তিনি৷ প্রত্যক্ষদর্শীদের বরাত দিয়ে বার্তা সংস্থাগুলো আরো জানায় যে, বিভিন্ন বাড়িঘরের ছাদেও সেনা মোতায়েন করা হয়েছে এবং সেনা হেলিকপ্টার আকাশে চক্কর দিচ্ছে৷ ইতিমধ্যে সেখানে কাজ শুরু করে দিয়েছেন উদ্ধারকর্মীরাও৷

পুলিশ কর্মকর্তা মোহাম্মদ শফিক জানিয়েছেন, আত্মঘাতী ঐ দুই হামলাকারীর বিচ্ছিন্ন মাথা তারা উদ্ধার করেছেন৷ পাকিস্তানের সরকারি কর্তৃপক্ষ বলছে, নিরাপত্তা বাহিনীর অভিযানের মুখে তালেবান গোষ্ঠীর কার্যক্রম দূর্বল হয়ে পড়তে থাকায় বিভিন্ন স্থানে জঙ্গি আক্রমণ চালানো হচ্ছে৷ তবে বিশ্লেষকরা বলছেন, পিপিপি সরকারের মধ্যে সৃষ্ট মতভেদের সুযোগ নিচ্ছে তালেবান জঙ্গিরা৷ এ সপ্তাহেই পাকিস্তানে অন্তত পাঁচ দফা বোমা হামলা পরিচালনা করেছে জঙ্গি গোষ্ঠী৷ এই সব আক্রমনের বর্তামনে প্রধান লক্ষ্যস্থল সরকারি বাহিনী এবং তাদের ঘাঁটি৷ পাকিস্তান পিপলস পার্টির অধিকাংশ নেতা এবং বিভিন্ন পর্যায় থেকে দাবি উঠছে যে, অজনপ্রিয় প্রেসিডেন্ট আসিফ আলি জারদারি'র কাছ থেকে ক্ষমতা প্রধানমন্ত্রী ইউসুফ রাজা গিলানির কাছে হস্তান্তর করা হোক৷ যদি এই মতভেদের অবসান না হয়, তাহলে পাকিস্তানের রাজনৈতিক অবস্থা আবারো নতুন করে সংকটের মুখে পড়তে পারে বলে মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা৷

২০০৭ সালের জুলাই থেকে পাকিস্তানে তিন হাজারেরও বেশি মানুষ নিহত হয়েছে৷ গত বছরের এপ্রিল মাসে সামরিক বাহিনী লোয়ার দির, বুনের ও সোয়াত এলাকায় তালেবান জঙ্গিদের বিরুদ্ধে অভিযান শুরু করার পর থেকে কমপক্ষে দুই হাজার ১৫০ জন জঙ্গি নিহত হয়৷

প্রতিবেদন: সাগর সরওয়ার

সম্পাদনা: দেবারতি গুহ

সংশ্লিষ্ট বিষয়