1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

খেলাধুলা

লন্ডনে ফাইনাল, জার্মানরা টিকিট পেতে আকুল

খেলাটা যেন বুন্ডেসলিগার, ডর্টমুন্ড বনাম বায়ার্ন৷ কিন্তু হচ্ছে লন্ডনের ওয়েম্বলে স্টেডিয়ামে, কেননা এটা চ্যাম্পিয়নস লিগের ফাইনাল৷ ওদিকে জার্মানরা যেমন করে পারে এই ঐতিহাসিক জার্মান-জার্মান দ্বন্দ্বযুদ্ধে হাজির থাকতে চায়৷

মে মাসের ২৫ তারিখে লন্ডন ছেয়ে যাবে কালো-লাল-হলদে ফ্ল্যাগে৷ দুই জার্মান ক্লাবের ফ্যানরা লন্ডন যেতে পাগল৷ ওয়েম্বলের ফাইনালের জন্য ডর্টমুন্ড পাচ্ছে হাজার চব্বিশেক টিকিট৷ সেগুলোর জন্য আবেদন জমা পড়েছে পাঁচ লাখের বেশি! ক্লাব বলছে, হাজার পাঁচেক ফ্যান সম্ভবত টিকিট ছাড়াই লন্ডনে গিয়ে হাজির হবে বলে তাদের ধারণা৷

শুধু টিকিট হলেই তো হলো না, লন্ডনে যাওয়ার সমস্যাটাও আছে৷ নিজের গাড়ি নিয়ে যাওয়া মুশকিল: ইংলিশ চ্যানেল পার হওয়া থেকে শুরু করে ইংল্যান্ডে লেফ্ট হ্যান্ড ড্রাইভ, এ সবই আছে৷ বাকি থাকে বিমান৷ ডর্টমুন্ড ক্লাব স্বয়ং একটা জাম্বো জেট ভাড়া করেছে, কেননা তাদের একটা নিজস্ব ট্র্যাভেল এজেন্সি আছে৷

WDR Europa Forum in Berlin am 16.05.2013 Merkel

খেলা দেখতে যাবেন জার্মান চ্যান্সেলর আঙ্গেলা ম্যার্কেল

ফাইনালের দিন সকালে সেই জাম্বো লন্ডনে যাবে৷ তার আসনগুলো বুক হতে সময় লেগেছে সাত মিনিট! ক্লাবের ‘বেস্টট্র্যাভেল' ট্র্যাভেল এজেন্সি বলছে, তারা এ রকম বিশটা জাম্বোর টিকিট বেচতে পারতো৷

সস্তার এয়ারলাইন বলে পরিচিত জার্মান উইংস এবং রায়ানএয়ার বলছে, তারা খেলার দিন ডর্টমুন্ড থেকে লন্ডনে যাবার ছ'টা করে অতিরিক্ত বিমান রাখবে৷ ওদিকে বায়ার্নের ফ্যানরাও আছে৷ তারা আবার সমৃদ্ধ বাভারিয়ার মানুষ কিনা, তাই মিউনিখ থেকে লন্ডনে ওড়ার একদিকের দাম দাঁড়িয়েছে কোন না কম দু'হাজার ইউরো!

লন্ডনে ফাইনালের দিন হোটেলে থাকার দামও বেড়েই চলেছে৷ বুক করতে হচ্ছে এক রাত নয়, অন্তত দু'রাতের জন্য৷ তবে এক জার্মান অতিথি বা দর্শকের না ফ্লাইট, না হোটেল নিয়ে ঝামেলা থাকবে৷ তিনি হলেন জার্মান চ্যান্সেলর আঙ্গেলা ম্যার্কেল৷ তিনিও যাচ্ছেন ফাইনাল দেখতে৷ স্বভাবতই রিপোর্টারদের প্রশ্ন আসে, ডর্টমুন্ড না বায়ার্ন, কা-কে তিনি সাপোর্ট করবেন৷ ম্যার্কেল বলেন:

‘‘আমি তো জার্মান চ্যান্সেলর৷ কাজেই আমি বলবো, একটা জার্মান দল জিতবে৷ সেটাই সম্পূর্ণ নিরাপদ৷''

এসি/ডিজি (এএফপি)

নির্বাচিত প্রতিবেদন