1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

পাঠক ভাবনা

লঞ্চডুবির নানা তথ্য পেলাম

বেশ কয়েকদিন পর আবার ঢাকা থেকে সোহেল রানা ই-মেল পাঠিয়েছেন৷ তিনি লিখেছেন, ‘‘প্রিয় বন্ধুরা, আমার ভালোবাসা ও শুভেচ্ছা নিবেন৷ আশা করছি সবাই ভালো আছেন৷ আমরা সবাই ভালো আছি...৷’’

বন্ধু সোহেল রানা হৃদয় লিখেছেন, ‘‘বাংলাদেশের লঞ্চডুবির নানা তথ্য আপনারা দিচ্ছেন সেজন্য ধন্যবাদ৷ কষ্টের কথা হচ্ছে – আর হয়ত কেউই বেঁচে নেই যাঁরা ঐ লঞ্চের ভিতরে ছিলেন৷ তবে আসলে কতজন ঐ লঞ্চে ছিলেন আর কতজন বেঁচে আছেন, সেটা নিয়ে একটা সংশয় সবার মাঝে থেকেই যাবে৷ পত্র-পত্রিকায়, ইন্টারনেটে যত ছবি আর লেখা দেখছি মনটা ততই খারাপ হয়ে যাচ্ছে৷ আর কত! এবার ঈদের আগে-পরে মিলিয়ে হাজার খানেকের বেশি মানুষ মারা গেল বিভিন্ন দুর্ঘটনায়৷ এটা আসলে কোন ইঙ্গিত তা বোঝা যাচ্ছে না৷ উপরওয়ালাই হয়ত ভালো জানেন৷''

তিনি আরো লিখেছেন, ‘‘ইউরোপের সবচেয়ে সুন্দর সাতটি রেলস্টেশন নিয়ে ছবিঘরটি দারুণ লাগলো৷ আর তার সাথে দেয়া তথ্যগুলোর জন্য ধন্যবাদ৷ অস্ট্রেলিয়ার এক দম্পতি নিজের অসুস্থ ছেলেকে ভাড়া করা গর্ভধারিণীর কাছে ফেলে রেখে চলে গেছে – এই খবরটি আমাকে বেশ কষ্ট দিয়েছে৷ এছাড়া চায়ের দেশ চীনে কফির জয়যাত্রা শিরোনামের প্রতিবেদনটিও বেশ ভালো লেগেছে৷ ভিয়েতনামের রেস্তোরাঁয় সুস্বাদু বিড়াল ভাজা নিয়ে প্রতিবেদনটিও খুব ভালো লাগলো৷ তবে এটা অন্যায়....সব জিনিসই খেতে হবে এমন তো কথা নেই!''

সোহেল রানার কথায়, ‘‘ঈদের আগে এবং পরে ‘পাঠক ভাবনা' পাতার প্রতিটি লেখাই বেশ ভালো লেগেছে৷ আপনাদেরকে ধন্যবাদ যে, আপনারা কষ্ট করে আমাদের লেখাগুলো আপনাদের ওয়েবসাইটে প্রকাশ করেছেন৷''

‘‘এখন যেহেতু অনেক পাঠকই আপনাদের ওয়েবসাইট বা ফেসবুক ব্যবহার করছে, সেক্ষেত্রে আবারো মাসিক কুইজের ব্যবস্থা চালু করা যেতে পারে৷ বিশ্বকাপ ফুটবলের সময় ছবি প্রতিযোগিতায় ছবি পাঠিয়েছিলাম৷ তার কোনো ফলাফল তো দিলেন না৷ আপনাদের সবাইকে আবারও ঈদ পরবর্তী শুভেচ্ছা জানাচ্ছি৷ ভালো থাকবেন৷ আবারও লিখবো কথা দিচ্ছি....মো.সোহেল রানা হৃদয়, ঢাকা সেনানিবাস, ঢাকা, বাংলাদেশ৷''

সংকলক: নুরুননাহার সাত্তার

সম্পাদনা: দেবারতি গুহ

নির্বাচিত প্রতিবেদন